ঢাকা, রবিবার, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭, ০৭ মার্চ ২০২১, ২২ রজব ১৪৪২

পর্যটন

ধর্মঘটের প্রভাব সিলেটের পর্যটনে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০২০
ধর্মঘটের প্রভাব সিলেটের পর্যটনে

সিলেট: ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ডভ্যান মালিক ঐক্য পরিষদের ডাকা ৭২ ঘণ্টার ধর্মঘটের প্রভাব পড়েছে সিলেটের পর্যটনখাতে।
 
করোনাকালে সিলেটের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খানিকটা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টাকালে আবারো খেতে হলো হোঁচট।

তিনদিনের ধর্মঘটে কার্যত অচল সিলেট। গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখতে রাস্তায় লাঠি হাতে পাহারায় শ্রমিকরা।
 
যানবাহন না চলায় সিলেটে আসতে পারছেন না পর্যটকরা। ফলে পর্যটকশূন্য সিলেটের জাফলং, সাদাপাথর, বিছানাকান্দি, রাতারগুলসহ সব ক’টি পর্যটনকেন্দ্র।
 
সিলেটের সাদাপাথর এলাকার নৌকা শ্রমিক জহির আহমদসহ আরো অনেকে বাংলানিউজকে জানান, আগে পাথর উত্তোলন শ্রমিকের কাজ করতাম। পাথর উত্তোলন বন্ধ থাকায় বিকল্প পেশা হিসেবে নৌকা চালিয়ে জীবনযাপন করছি। প্রতিদিন প্রায় দুই হাজার টাকা আয় হতো। কিন্তু মঙ্গলবার থেকে ঘাটে বসে সময় কাটাতে হচ্ছে। এমনটি এর আগে কখনো ঘটেনি।
 
ধর্মঘটের কারণে বেকায়দায় পড়েছেন হোটেল-মোটেলের ব্যবসায়ীরাও। করোনাকালেও কোনোমতে ব্যবসা চালিয়ে যাওয়া হোটেলগুলোতে অতিথি নেই।   
 
এ বিষয়ে সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি তাহমিন আহমদ বাংলানিউজকে বলেন, করোনাকালে আগে থেকেই হোটেল-মোটেল ব্যবসায় ধস নেমেছ। আর ধর্মঘটের কারণে কেবল হোটেল-মোটেলে নয়, সব ধরনের ব্যবসায় প্রভাব পড়েছে।
 
তিনি বলেন, সমস্যা থাকতেই পারে। সমাধানও আছে। এরজন্য সবার সঙ্গে আলোচনা করে যত দ্রুত সম্ভব সমাধান করা প্রয়োজন। এক্ষেত্রে রাজনৈতিক নেতাদের ভূমিকা রাখা উচিত।
 
পাথর কোয়ারি খুলে দেওয়ার দাবিতে সিলেট বিভাগীয় ট্রাক-পিকআপ-কাভার্ডভ্যান মালিক ঐক্য পরিষদ গত সোমবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠকে সুরাহা না হওয়ায় তিনদিনের ধর্মঘট আহ্বান করে। বুধবার ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত হচ্ছে।  
 
বাংলাদেশ সময়: ১৬২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০২০
এনইউ/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa