ঢাকা, রবিবার, ১০ কার্তিক ১৪২৭, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

পর্যটন

টোকেন থাকলেও মিলছে না সৌদির টিকিট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০
টোকেন থাকলেও মিলছে না সৌদির টিকিট

ঢাকা: হবিগঞ্জের বাসিন্দা আবুল হাসান খান। একদশক ধরে থাকেন সৌদি আরবের তাবুক এলাকায়।

করোনার পূর্বে গত জানুয়ারিতে দেশে বেড়াতে আসেন। চার মাসের ছুটিতে এসে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিলে আর প্রবাসে ফিরতে পারেননি।

আবুল হাসান খান বলেন, দেশে ফেরার সময় রিটার্ন টিকিট করে এসেছি। কিন্তু তবুও টিকিট পাচ্ছি না। টিকিটের টোকেন থাকলেও চারদিন ধরে টিকিটের অপেক্ষায় হোটেল সোনারগাঁওয়ে এয়ারলাইন্স কার্যালয়ের সামনে দিনরাত্রি যাপন করছি। তবুও টিকিটের সুখবর পাচ্ছি না।

তথ্য বলছে, প্রায় ৬ মাস পর সম্প্রতি সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিদেশি কর্মীদের ফেরার ঘোষণা দেয়। তারপরই রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) থেকে টিকিট রিইস্যুর ঘোষণা দেয় সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স। এরপর থেকেই টিকিটের প্রত্যাশায় হোটেল সোনারগাঁওয়ে সৌদি এয়ারলাইন্সের কার্যালয়ে অবস্থান নেন বহু সৌদি প্রবাসি।

বিক্রমপুরের শরীফ খান বলছেন, চারদিন ধরে রুটি পানি খেয়ে এখানে দিনাতিপাত করছি। কিন্তু সমাধান নেই। রিটার্ন টিকিট কেটে এসেছি, তবুও কেন এ সংকট। এটা কৃত্রিমভাবে সংকট তৈরি করা হয়েছে। সিন্ডিকেট করে বাহিরের এজেন্ট টিকিট নিয়ে গেছে। এখন বলছে অনলাইনে নিয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আব্দুল মোতালেব। ২৫ বছর ধরে সৌদি আরব থাকেন। কিন্তু দেশে ফিরে এমন পরিস্থিতির শিকার কখনও হতে হয়নি। তিনি বলেন, জানি না এবার ফিরতে পারবো কী না। রিটার্ন টিকিট কেটে আসলাম, তারপরও এখন টিকিট দিচ্ছে না।

চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার বাসিন্দা মোহাম্মদ সোহেল বলেন, এ যে ক'দিন ধরে এখানে অপেক্ষা করছি, কেউ তো কিছু বলছে না। কেন আসছি, কী জন্য আসছি, তাও জিজ্ঞেস করছে না। আমাদের রিটার্ন টিকিট কেনা, তবুও কেন এতো ভোগান্তি। কিছু আমাদের তারা বলুক। তিনি বলেন, মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) আমার মেয়ে মারা গেছে, তবুও আমি বাড়ি যেতে পারিনি। চারদিন ধরেই এখানে অপেক্ষা করছি।

মোহাম্মদ মহসিন আলী নামের একজন প্রবাসী বলছেন, তার টোকেনের সিরিয়াল ১৯৮। কিন্তু রোববার থেকে তিনি ভেতরেই প্রবেশ করতে পারছি না। টোকেন অনুসারে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না। তিনি বলেন, আকামার মেয়াদ শেষ। টোকেন না দিলে তো আসতাম না।

এদিকে, সৌদি আরব ফিরে যেতে ব্যবস্থা করে দেওয়ার দাবিতে বুধবার সকালে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় ঘেরাও করে প্রবাসীরা। প্রবাসীদের ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল এ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকও করে। এসময় ভবনের বাইরে অবস্থান নেন শতাধিক সৌদি গমনেচ্ছু কর্মীরা।

তবে বৈঠকে কী সিদ্ধান্ত হয়েছে, তা এখনও জানা যায়নি। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সামনে পুলিশ অবস্থান করছে। বুধবার দুপুর আড়াইটায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সামনে কোনো প্রবাসীকে অবস্থান করতে দেখা যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১২০০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০
টিএম/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa