bangla news

তিন মাসের জন্য বন্ধ রিজেন্ট এয়ারওয়েজের ফ্লাইট  

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-২২ ৬:৫৮:৩৫ পিএম
রিজেন্ট এয়ারওয়েজের একটি প্লেন

রিজেন্ট এয়ারওয়েজের একটি প্লেন

ঢাকা: করোনা ভাইরাস থেকে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে (কোভিড-১৯) সংকটে পড়েছে বেসরকারি খাতের রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। বিভিন্ন দেশের নিষেধাজ্ঞা ও যাত্রী সংকটের কারণে তিন মাসের জন্য সব ধরনের ফ্লাইট কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করলো এয়ারলাইন্সটি। 

রিজেন্ট এয়ারওয়েজ সূত্র জানায়, আন্তর্জাতিক রুটের মধ্যে কাতার, মালয়েশিয়া, ওমান, সিঙ্গাপুর ও ভারতে ফ্লাইট পরিচালনা করে আসছিল রিজেন্ট। বিভিন্ন দেশের আরোপ করা নিষেধাজ্ঞায় একে একে বন্ধ হয়ে যায় এসব রুটের ফ্লাইট। 

সবশেষ গত শুক্রবার থেকে বন্ধ হয়ে যায় ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটের ফ্লাইটও। আর অভ্যন্তরীণ রুটের মধ্যে ঢাকা-কক্সবাজার রুটে সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট চালু ছিল। যাত্রী সংকটে রোববার (২২ মার্চ) থেকে তাও বন্ধ হয়ে যায়। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় আগামী তিন মাস ফ্লাইট পরিচালনা কার্যক্রম বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এয়ারলাইন্সের কর্মীদেরও তিন মাসের বিনা বেতনে ছুটিতে (লিভ উইথআউট পে) পাঠানো হয়েছে। যা এরই মধ্যেই চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে। 

রিজেন্ট এয়ারওয়েজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইমরান আসিফ বাংলানিউজকে বলেন, গোটা এভিয়েশন ইন্ডাস্ট্রিই সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতি কতদিন চলবে, সেটিও জানা যাচ্ছে না। আমাদের রাজস্ব আয় শূন্য শতাংশে চলে এসেছে। সবকিছু বিবেচনা করে আমরা আগামী তিন মাসের জন্য ফ্লাইট পরিচালনা কার্যক্রম বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। 

তিনি বলেন, বিভিন্ন দেশের আরোপ করা নিষেধাজ্ঞা কবে নাগাদ উঠিয়ে নেওয়া হবে সেটাও অনিশ্চিত। আবার নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর যাত্রীদের ভ্রমণে আস্থা ফিরতেও সময় লাগতে পারে। 

কোভিড-১৯ সংক্রমণ হওয়ার পর থেকেই বিশ্বব্যাপী সংকটে পড়েছে অ্যাভিয়েশন শিল্প। ফ্লাইট বন্ধ করেছে বহু উড়োজাহাজ সংস্থা। 

২০১০ সালের ১০ নভেম্বর বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট পরিচালনার মাধ্যমে কার্যক্রমে আসে চট্টগ্রামভিত্তিক ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান হাবিব গ্রুপের প্রতিষ্ঠান রিজেন্ট এয়ারওয়েজ (এইচজি এভিয়েশন লিমিটেড)। 

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০২০
টিএম/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-22 18:58:35