bangla news

পর্যটকদের কাছে বাংলাদেশকে তুলে ধরছে দেশীয় প্রতিষ্ঠান 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-২৮ ১২:২৭:৫১ পিএম
দেশীয় স্টলে আগ্রহীদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

দেশীয় স্টলে আগ্রহীদের ভিড়। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: দেশীয় পর্যটনের প্রসার চান সম্ভাবনাময় এ খাতের সংশ্লিষ্টরা। তারা এদেশের বিস্ময়কর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বিদেশি পর্যটকদের কাছে তুলে ধরতে কাজও করছেন। 

রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি)  অষ্টম এশিয়ান পর্যটনমেলায় অংশগ্রহণকারী দেশি পর্যটন প্রতিষ্ঠানের সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন এমনটিই। 

তারা বলছেন, প্রচার-প্রসারের অভাবেই এতদিন বাংলাদেশের পর্যটনখাত বিকশিত হয়নি। এখন সেই কাজটি সরকারের পাশাপাশি করছেন পর্যটন-সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরাও। 

শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) আইসিসিবির পুষ্পগুচ্ছ হলে এশিয়ান পর্যটনমেলার দেশীয় স্টলে গিয়ে দেখা যায়, বাংলাদেশ ভ্রমণ করতে বিদেশি প্রতিষ্ঠান ও পর্যটকদের উৎসাহ দিচ্ছেন স্টলের কর্মীরা। বাংলাদেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, ঐতিহাসিক স্থাপনা, চা বাগান ও হাওরের অপরূপ সৌন্দর্য তুলে ধরা হচ্ছে আগ্রহীদের সামনে। 

এবারের মেলায় বাংলাদেশের বাইরে ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, নেপাল ও ভারতসহ সাতটি দেশের ৫৭টি প্রতিষ্ঠানের ১১৫টি স্টল রয়েছে। 

দেশীয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে মেলায় অংশ নিয়েছে টি হ্যাভেন, লেমন গার্ডেন, এসকেডি আমার বাড়ি, হেরিটেজ, ছুটিওয়ালা, গ্র্যান্ড সুলতান, রেস্ট ইন হোটেল ও সাজেক ভ্যালি। এসব প্রতিষ্ঠান ভ্রমণপিপাসুদের প্রথমে দেশে ঘোরার জন্য উৎসাহ যোগাচ্ছে। 

শ্রীমঙ্গল পর্যটন সেবা সংস্থার আহ্বায়ক আবু সিদ্দিক মোহাম্মদ মূসা বাংলানিউজকে বলেন, আমরা এদেশের বিস্ময়কর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য সারাবিশ্বের পর্যটকদের কাছে তুলে ধরতে চাই। চায়ের কন্যা শ্রীমঙ্গল বর্ষায় কী অপরূপ রূপ ধারণ করে, সেটা পর্যটকরা দেখলে বিস্মিত হবেন। আমরা দেশের পর্যটনশিল্পকে এগিয়ে নিতে চাই। 

দেশের পর্যটন নিয়ে কাজ করছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ ইয়াসমিন চৌধুরী ফ্রাসা। তিনি পর্যটন প্রতিষ্ঠান লাভদেশ-এর প্রতিষ্ঠাতা। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, আমার হৃদয়ে সবসময় বাংলাদেশ। বিলেতে আমার জন্ম হলেও ছুটে আসি এদেশে। এদেশের পর্যটনশিল্প নিয়ে আমি কাজ করছি। আমি সবসময় ব্রিটিশসহ বিদেশিদের বাংলাদেশে ভ্রমণ করার উৎসাহ যোগাচ্ছি। বাংলাদেশের পর্যটনশিল্পকে অনেক দূর যেতে হবে।

শ্রীমঙ্গল ট্যুরিস্ট গাইড কমিউনিটির সাধারণ সম্পাদক তাপস দাস বলেন, বর্ষায় শ্রীমঙ্গল অপরূপ ধারণ করে। এটা আমরা বিদেশিদের কাছে তুলে ধরছি। 

সাজেক ভ্যালির এক্সিকিউটিভ রাহানুমা বলেন, সাজেক ভ্রমণপিপাসুদের কাছে আকর্ষণীয় স্থান। আমরা মেলায় আকর্ষণীয় অফার দিচ্ছি।

আবু সাঈদ নামের এক দর্শনার্থী বলেন, নিজের দেশটাকে প্রথমে ঘুরে দেখতে চাই। এজন্য মেলায় শ্রীমঙ্গলের প্যাকেজ বুকিং দিয়েছি। 

বেলজিয়াম থেকে আগত ফ্লোরেন্স ও মাজারিন বাংলানিউজকে বলেন, আমরা প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে এসেছি। এদেশের মানুষ খুব বন্ধুত্বসুলভ ও অতিথিপরায়ণ। আমরা সাত দিন শ্রীমঙ্গলে ঘুরেছি। অসাধারণ একটা জায়গা সেটা। এর সৌন্দর্য বর্ণনা করার মতো নয়। 

বাংলাদেশ সময়: ১২২২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৯
টিএম/এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পর্যটন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-09-28 12:27:51