[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

স্কুটি চেপে ৪ ভ্রমণকন্যার বরিশাল দর্শন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৯-০১ ১০:৩৩:৪৩ এএম
স্কুটিতে চেপে বরিশাল ঘুরে বেড়াচ্ছেন ‘ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ’ ভ্রমণকন্যার চার সদস্য। ছবি: বাংলানিউজ

স্কুটিতে চেপে বরিশাল ঘুরে বেড়াচ্ছেন ‘ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ’ ভ্রমণকন্যার চার সদস্য। ছবি: বাংলানিউজ

পটুয়াখালী: ‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ স্লোগানে ভ্রমণকন্যারা স্কুটিতে চেপে পুরো দেশ ঘুরে বেড়াবে আর জানান দেবে নিজের স্বাধীন সত্তার অস্তিত্ব।

এর ধারবাহিকতায় শনিবার (১ সেপ্টেম্বর) বরিশাল ঘুরে বেড়িয়েছে ‘ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ’-ভ্রমণকন্যার চার সদস্য। একইসঙ্গে বরিশাল নগরের হালিমা খাতুন উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের সঙ্গে তারা আলোচনা করেছেন বাংলাদেশ, মুক্তিযুদ্ধ, বাল্যবিয়ে, আত্মপ্রতিরক্ষা, খাদ্য-পুষ্টি এবং বয়োসন্ধিকালীন স্বাস্থ্য নিয়ে।

দুপুরে বিদ্যালয়ের দ্বিতীয়তলার হলরুমে ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীদের নিয়ে এ আলোচনায় আগ্রহের কোনো কমতি ছিলো না শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের।

শিক্ষার্থীরা জানান, এ ধরনের সেশনের মাধ্যমে তারা অনেক কিছুই জেনেছেন। যার মধ্যে আত্মরক্ষার কৌশল ও বয়োসন্ধিকালীন স্বাস্থ্য নিয়ে বেশ কিছু পরামর্শ উপকারে আসবে তাদের। এসব না জানা থাকলেও আলোচনার বিষয়বস্তু ভিত্তিক কোনো সমস্যায় পড়লে হয়তো প্রতিকার পাওয়াটা কঠিন হতো।

এর আগে ‘‌ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ’ ভ্রমণকন্যা কর্তৃক আয়োজিত ইভেন্ট, কর্ণফুলী প্রেজেন্টস ‌‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ এর পঞ্চমধাপের কর্মসূচির সূচনা হয় ২৭ আগস্ট ঢাকার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে পটুয়াখালীর উদ্দেশে যাত্রার মধ্য দিয়ে।...ভ্রমণকন্যাদের দলটি গত মঙ্গলবার (২৮ আগস্ট) সকালে পটুয়াখালী পৌঁছে পটুয়াখালী কালেক্টরেট বিদ্যালয়ের মেয়েদের সঙ্গে মতবিনিময় করে। এরপর তারা প্রকৃতির অপরূপ লীলাভূমি সাগরকন্যা কুয়াকাটায় পৌঁছে আকর্ষণীয় বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখেন। পরের দিন বুধবার (২৯ আগস্ট) বরগুনা জেলার বরগুনা আদর্শ মাদ্যমিক বিদ্যালয়ের মেয়েদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন এবং তালতলী উপজেলার বৌদ্ধমন্দির ও বেতাগী উপজেলার ঐতিহাসিক বিবিচিনি মসজিদসহ উল্লেখযোগ্য স্থানসমূহ পরিদর্শন করেন।

বৃহস্পতিবার (৩০ আগস্ট) পিরোজপুরের পেয়ারা বাগান, রায়েরকাঠি জমিদার বাড়ি ঘুরে দেখে ভ্রমণকন্যারা ঝালকাঠি পৌঁছান। সেখানে গাবখান সেতু, জমিদার বাড়িসহ অন্যান্য দর্শণীয় স্থানগুলো ঘুরে দেখেন।

শুক্রবার (৩১ আগস্ট) তারা স্কুটির চাকা ঘুরিয়ে বরিশাল পৌঁছে উজিরপুরের সাতলা-আগৈলঝাড়ার বাঘদা এলাকার শাপলার বিল ঘুরে দেখেন এবং শনিবার (১ সেপ্টেম্বর) হালিমা খাতুন উচ্চ বিদ্যালয়ের মেয়েদের সঙ্গে আলোচনা সভা করেন।

সভা শেষে তারা মাদারীপুরের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। সেখানকার দর্শণীয় স্থানগুলো ঘুরে দেখে রোববার (২ সেপ্টেম্বর) শরীয়তপুর হয়ে সন্ধ্যায় ঢাকায় ফিরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে উপস্থিত হয়ে পঞ্চম পর্বের শেষ করবেন তারা।

ভ্রমণকারী দলে রয়েছেন ‘ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ’ ভ্রমণকন্যার প্রতিষ্ঠাতা ডা. সাকিয়া হক, ডা. মানসী সাহা তুলি, ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার নবীনগর এলাকার মাঝিকাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জান্নাতুল ফেরদৌস শুভা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চূড়ান্ত বর্ষের শিক্ষার্থী শামসুন নাহার সুমা ও ঢাকার বিএএফ শাহীন ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী মুশফিকা রহমান নিঝুম। তবে মুশফিকা রহমান নিঝুম শধু পটুয়াখালী ও বরগুনার কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।

‘ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ’ ভ্রমণকন্যার প্রতিষ্ঠাতা ডা. মানসী সাহা তুলি বলেন, এ কাজটিতে বেশ উৎসাহ পাই। পড়াশুনা ও কাজের ফাঁকে ছুটিতে এ কাজ করছি সবাই। কর্ণফুলী প্রেজেন্টস ‘নারীর চোখে বাংলাদেশ’ কর্মসূচির পঞ্চম ধাপ শেষ হলে ২৮ জেলা ভ্রমণ শেষ হবে আমাদের। কর্মসূচিতে আমরা জেলাগুলোর দর্শণীয় স্থানগুলো ঘুরে দেখছি এবং সেসব জায়গার ছবি ও ভিডিও ধারণ করে ফেইসবুক-ইউটিউবে প্রচার করছি। পাশাপাশি বিভিন্ন স্কুলে গিয়ে মেয়েদের সঙ্গে বিভিন্ন সমস্যা ও এর সমাধানে কথা বলছি। এরমধ্য দিয়ে ব্যাপক সাড়াও পাচ্ছি।

তিনি বলেন, কোথাও কোথাও বিশেষ করে চলার পথে ছোট-খাটো কিছু সমস্যা হয়, তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সহায়তার মনোভাব নিয়ে মানুষ পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। তাই সমস্যার থেকে প্রাপ্তিটাই বেশি বলা চলে।

ভ্রমণকারী দলের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সাকিয়া হক বলেন, দেশের সার্বিক উন্নয়নে সুস্থ-সচেতন, উদারমনা নারী সমাজের কোনো বিকল্প নেই। সঠিক শিক্ষা আর ভ্রমণই পারে নারীর দৃষ্টিভঙ্গি প্রসারিত করে তাকে মানবসম্পদে পরিণত করতে।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০১, ২০১৮
এমএস/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   পর্যটন
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa