bangla news

আমের রাজধানীর সবচেয়ে বড় হাট বানেশ্বর 

মাহবুবুর রহমান মুন্না, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৬-০১ ৬:০৫:১৪ এএম
বানেশ্বর হাটে আম কিনতে ভিড় করেছেন কয়েকজন ক্রেতা। ছবি: বাংলানিউজ

বানেশ্বর হাটে আম কিনতে ভিড় করেছেন কয়েকজন ক্রেতা। ছবি: বাংলানিউজ

রাজশাহীর বানেশ্বর বাজার থেকে: আমের রাজধানী রাজশাহীর বাজারে উঠেছে বাহারি আম। গ্রামগঞ্জের ছোট ছোট হাট-বাজার থেকে শুরু করে শহরের বড় বড় আড়তে এখন আমের স্তূপ। আর এই পাকা আমের ম ম গন্ধে মাতোয়ারা চারদিক।

যে দিকেই চোখ যায়, চারদিকে শুধু আম আর আম। আর প্রতিবারের মতো এবারও রাজশাহীর আমের সবচেয়ে বড় হাট বসেছে পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর বাজারে। 

রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মৌসুমি আম ব্যবসায়ীরা ভিড় করছেন এই হাটে। পাইকারি বাজার হলেও এখানে খুচরা আম কিনতে পাওয়া যায়। তাই অনেকে এসেছেন পরিবার পরিজনের জন্য সুমিষ্ট আম কিনতে। 

শুক্রবার (০১ জুন) সরেজমিনে বাজার ঘুরে এবং সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে এমনটাই জানা গেছে। বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বৃষ্টি ও বৈরী আবহাওয়াকে উপেক্ষা করে বানেশ্বর বাজারের আশপাশের সড়কগুলোতে এখন শুধুই আম ভর্তি ভ্যান ও ট্রলির আনাগোনা। সবার গন্তব্য বানেশ্বর বাজার। বাজারের অসংখ্য আড়তে উঠেছে নানা জাতের আম। মাসের ৩০দিনই বিভিন্ন স্থান থেকে আসা ক্রেতা-বিক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত থাকে বানেশ্বর বাজার। বানেশ্বর হাটে আম কিনতে ভিড় করেছেন কয়েকজন ক্রেতা। ছবি: বাংলানিউজ
রোজার মধ্যেও আম কেনাকাটায় ব্যস্ত সময় পার করছেন ক্রেতা ও বিক্রেতারা। এ বাজার থেকেই আম যায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। প্রায় শতাধিক আড়তদার এখানে ব্যবসা করেন। 

বানেশ্বর বাজারের বানেশ্বর আম বাড়ির আড়তদার সুজন কুমার সাহা বলেন, এ বাজারে পুঠিয়া, চারঘাট, বাঘা, বেলপুকুর, মনিহার, দুর্গাপুরসহ রাজশাহীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আম আসে। 

কি কি আম এসেছে জানতে চাইলে আড়তদার নান্টু কুমার বলেন, গুঁটি, গোপালভোগ, হিমসাগর,  লক্ষণভোগ, বউ ভুলানিসহ বাহারি আম বাজারে এসেছে। 

দাম প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাজারে প্রতিমণ গুটি আম ৭০০-১০০০ টাকা, গোপালভোগ ১৫০০-২০০০ টাকা, লকনা ৯০০-১০০০ টাকা, হিমসাগর ১৫০০-২০০০ টাকা, লক্ষণভোগ ১০০০-১২০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। 

আগামী ১০ দিনের মধ্যে ফসলি আম বাজারে উঠবে বলে জানান নান্টু কুমার। 

আড়তদাররা জানান, সবগুলো আড়তেই টাটকা আমের আমদানি। এখন আড়তে যেসব আম আছে, তার অধিকাংশই গাছ পাকা। আর শক্ত থাকতেই গাছ থেকে নামানো হয়েছে যেসব আম তা দূর-দূরান্তে পাঠানোর জন্য। 

এখানকার এসব টাটকা আম ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট, কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় আম পাঠানো হয় জানান তারা। বানেশ্বর হাটে আম কিনতে ভিড় করেছেন কয়েকজন ক্রেতা। ছবি: বাংলানিউজ
বাজারে আসা খুঁটিপাড়ার আম চাষি সাইফুল ইসলাম জানান, জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা ও বেঁধে দেওয়া সময় সূচি মেনে ২০ মে (রোববার) সকাল থেকে রাজশাহীতে গাছ থেকে আম পাড়া শুরু হয়েছে। জৈষ্ঠ্যের তাপদাহ যতই বাড়ছে গোপালভোগ ও গুটি জাতের আমসহ বিভিন্ন জাতের আম ততই পেকে যাচ্ছে। 

তবে এবার ফলন খুব ভালো হলেও দাম কম পাওয়া যাচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। 

রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপার মো. শহিদুল্লাহ বাংলানিউজকে বলেন, বানেশ্বর হচ্ছে আমের সবচেয়ে বড় বাজার। ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা থেকে ব্যবসায়ীরা এসে এখান থেকে আম কেনেন। এখানে আমাদের একটা নিরাপত্তার বিষয় আছে।

ব্যবসায়ীরা যাতে নির্বিঘ্নে আম বেচা কেনা করতে পারে, তাদের  মালামাল নিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারে এই বিযয় গুলোতে আমরা গুরুত্ব দিয়ে থাকি। 

‘আমের সময় রাস্তাটা প্রায় বন্ধ হয়ে যায়, আমরাও বেশ সচেতন থাকি। যাতে চুরি-ডাকাতি না হয়, যানবহন চলাচল স্বাভাবিক থাকে, ট্রাফিকটা সুন্দর থাকে আমরা সে বিষয় লক্ষ্য রাখি।’

তিনি বলেন, শুধু এখানে না সব মেইন রোডের ক্ষেত্রেও আমরা একই ব্যবস্থা নিই। পথে যাতে কেউ চাঁদা না নিতে পারে সে ব্যবস্থাও করা হয়। 

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৫ ঘণ্টা, জুন ০১, ২০১৮
এমআরএম/এমএ 
.

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-06-01 06:05:14