bangla news

দাবি না মানলে বলাকায় ঢুকতে মানা পর্ষদ সদস্যদের

902 |
আপডেট: ২০১৪-০৭-২২ ৩:৩৬:০০ এএম
ছবি:বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি:বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

১৪ দফা দাবি না মানা পর্যন্ত বিমানের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম পরিচালনা পর্ষদের কোনো সদস্যকে বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না। এ ঘোষণা দিয়েছে বিমান শ্রমিক লীগ।

ঢাকা: ১৪ দফা দাবি না মানা পর্যন্ত বিমানের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম পরিচালনা পর্ষদের কোনো সদস্যকে বিমানের প্রধান কার্যালয় বলাকায় ঢুকতে দেওয়া হবে না। এ ঘোষণা দিয়েছে বিমান শ্রমিক লীগ।

সংস্থার অর্গানোগ্রাম প্রবর্তন, ইউনিফর্ম ভাতা চালুসহ ১৪ দফা দাবিতে মঙ্গলবার সকাল থেকে বিমান ফ্লাইট ক্যাটারিং সেন্টার (বিএফসিসি) ঘেরাও কর্মসূচি পালন করছেন বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের কর্মীরা। ঘেরাও কর্মসূচি থেকেই এ ঘোষণা দেন বিমান শ্রমিক লীগ সভাপতি মশিকুর রহমান।

এছাড়া বুধ ও বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বলাকা ভবনে অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণাও দেন বিমান শ্রমিক লীগের এ নেতা।

মশিকুর রহমান বলেন, বুধ ও বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে ১২টা পর্যন্ত বলাকা ভবনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে। দাবি না মানা পর্যন্ত পরিচালনা পর্ষদের কোনো সদস্যকে বলাকা ভবনে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। এমনকি কোনো বোর্ড মিটিংও করতে দেওয়া হবে না।

এসময় কোনো সদস্য বলাকায় প্রবেশ করতে চাইলে তাকে প্রতিরোধ করার জন্য বিমানের সব কর্মীকে নির্দেশ দেন তিনি।  

এছাড়া বলাকা ভবনে যে ডে কেয়ার সেন্টার খোলার কথা তার কাজ শুরুর জন্য বিমানমন্ত্রী রাশেদ খান মেননকে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয় এ কর্মসূচি থেকে।

তা না হলে মন্ত্রীকেও বলাকায় প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন মশিকুর রহমান।

মশিকুর রহমানের নেতৃত্বে গত ২৫ জুন আন্দোলন শুরু করেন এয়ারলাইন্সের কর্মীরা।

কর্মীদের অন্যসব দাবির মধ্যে রয়েছে শতভাগ মেডিকেল ভাতা প্রদান, ক্যাজুয়ালদের চাকরি স্থায়ী করা,আহার ভাতা বৃদ্ধি, পার্সোনাল পে বেতনের সঙ্গে সমন্বয় করা, বিমান ফ্লাইট ক্যাটারিং সেন্টারের (বিএফসিসি) কর্মীদেরও রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এয়ারলাইন্সের কর্মীদের সমান সুবিধা প্রদান।

একই সঙ্গে কর্মীরা সরকারের ঘোষিত সময়েই মহার্ঘ ভাতা দেবার দাবি জানিয়েছেন। বিমানের কর্মীদের দাবি অনুযায়ী সরকারের ঘোষণার চার মাস পর বিমান মহার্ঘ ভাতা চালু করে। তাই পেছনের চার মাস ভাতা দিতে। 

বিমানের কর্মীরা গত বছরের জানুয়ারিতে ইউনিফর্ম ভাতা চালু, আহার ভাতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন  দাবিতে আন্দোলন করেছিলেন। আন্দোলনের এক পর্যায়ে তারা বিমানের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ দাবি করেন। দাবি বাস্তবায়নে তারা কর্মবিরতি এবং ধর্মঘটের মতো কঠোর আন্দোলনে যান। আন্দোলনকারীদের থামাতে তৎকালীন বিমানমন্ত্রী ফারুক খান ওই সব দাবি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন। 

ওই প্রেক্ষাপটেই সম্প্রতি শর্ত সাপেক্ষে এসব দাবির কয়েকটি মেনে নেওয়ার আশ্বাস দেন বিমানের চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন আহমেদ। তবে বিনিময়ে বিমানের গ্রাউন্ড হ্যান্ডেলিংয়ের কাজ বেসরকারি খাতে দেওয়ার বিরোধিতা করা যাবে না। ওই শর্তে রাজি না হওয়ায় বিমানকর্মীরা আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। 

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩২ ঘণ্টা, জুলাই ২২, ২০১৪

**বিএফসিসি ঘেরাও করেছেন বিমানকর্মীরা

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পর্যটন বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2014-07-22 03:36:00