ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৪ আগস্ট ২০২০, ১৩ জিলহজ ১৪৪১

এভিয়াট্যুর

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যাত্রা জুনে, ঢাকায় প্রথম প্লেন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৪-০৫-২৩ ০২:১৭:০০ পিএম
ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যাত্রা জুনে, ঢাকায় প্রথম প্লেন ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: আগামী মাসে যাত্রা শুরু করবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। এয়ারলাইন্সটি কানাডার বোম্বাডিয়ার কোম্পানির দুটি টার্বোপ্রপ ড্যাশ-৮-৪০০ প্লেন দিয়ে সার্ভিস শুরু করবে জুনের শেষে।

শুক্রবার প্রথম প্লেনটি ঢাকায় পৌঁছেছে।  

দুপুর দেড়টার দিকে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রেনটি অবতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক মোহাম্মদ আবদুল্লাহ আল মামুনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

ড্যাশ ৮ কিউ-৪০০ টাবোর্প্রপ(পাখাওয়ালা) প্লেনটি  মধ্যম পাল্লার দূরত্ব যাতায়াতে সক্ষম। কানাডা, আমেরিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন এয়ারলাইন্সে এটি বেশ জনপ্রিয়। কারণ ছোট রানওয়েতে প্লেনটি উড্ডয়ন ও অবতরণ করতে পারে। এছাড়া জ্বালানি সাশ্রয়ী প্লেন হিসেবে এটি বিশেষভাবে সমাদৃত। ড্যাশ-৮ এর ৪০০ সিরিজ প্লেনটি ৭৮ যাত্রী বহন করতে পারে। এর আরেকটি বিশেষত্ব হচ্ছে কেবিন এর ভিতরে শব্দ কম শোনা যায়।

উড়োজাহাজটি নেদারল্যান্ডস থেকে ঢাকায় এসেছে। খুব শিগগিরই আসছে একই মডেলের আরো একটি উড়োজাহাজ। ৬ মাসের মধ্যে যুক্ত হবে তৃতীয় উড়োজাহাজটি।     

সংশ্লিষ্ট এয়ারলাইন্স সূত্রে জানা যায়, প্রাথমিকভাবে ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-যশোর, ঢাকা-সিলেট এবং ঢাকা-কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট চালুর মাধ্যমে যাত্রা শুরু করতে চায় এয়ারলাইন্সটি। এয়ারলাইন্সটির টিকিটের মূল্য অন্য এয়ারলাইন্সের তুলনায় কম হবে।



শুরুর দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ৫টি ফ্লাইট চালু হবে। এর বাইরে ঢাকা-যশোর রুটে দু’টি এবং ঢাকা-সিলেট এবং ঢাকা-কক্সবাজার রুটে একটি করে ফ্লাইট চালু করা হবে। এরপর একে একে অভ্যন্তরীণ অন্য রুটগুলোতেও যেতে চায় ইউএস-বাংলা।

প্লেনটিতে ৬টি বিজনেস ক্লাসের আসনও থাকবে। ইউএস-বাংলার প্লেনটির দুটি দরজা, কার্গো স্পেস বেশি। দেশে এর আগে অন্য এয়ারলাইন্স ড্যাশ ৮ ৩০০ এর পুরনো মডেলের উড়োজাহাজ ব্যবহার করছে। পুরনো মডেলের উড়োজাহাজটিতে আসন সংখ্যা ৪৯টি, ব্লেড সংখ্যা ৫টি আর কিউ-৪০০ এর তা ৬টি। ব্লেড সংখ্যা বেশি হওয়ায় এটি খুব দ্রুত বেশি উচ্চতায় উঠে যেতে পারে।

যাত্রীদের সুবিধার কথা চিন্তা করে এয়ারলাইন্সটি যশোর থেকে খুলনার যাত্রীদের জন্য আধুনিক ৪২টি আসনের বাস সার্ভিসের ব্যবস্থা রাখছে। সেই সঙ্গে চট্টগ্রাম শহরের জিইসি মোড় এবং আগ্রাবাদ থেকে শাহ আমানত বিমানবন্দরেও যাত্রীদের পরিবহনের জন্য বাস সার্ভিস থাকবে।   

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৫ ঘণ্টা, মে ২২, ২০১৪/আপডেটেড: ১৫০৬ ঘণ্টা

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa