ঢাকা, সোমবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

বাংলানিউজ টি-২০ বিশ্বকাপ-২০২১

তিন উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০২১
তিন উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে শ্রীলঙ্কা

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে নামিবিয়ার দেওয়া ৯৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে শ্রীলঙ্কা। কিন্তু দ্বিতীয় ওভারে কুশল পেরেরাকে আউট করে ব্রেকথ্রু এনে দেন ট্রাম্পেলম্যান।

৮ বলে ১১ রান করে স্মিতের হাতে ক্যাচ তুলে সাঝঘরে ফেরেন শ্রীলঙ্কার এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার।

পরের ওভারের শেষ বলে আরেক ওপেনার পাথুম নিশাকাকে হারায় শ্রীলঙ্কা। স্কটজের বলে ব্যক্তিগত ৫ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি। পরপর দুই উইকেট হারানো শ্রীলঙ্কার হয়ে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি চান্দিমাল। পঞ্চম ওভারের প্রথম বলে গ্রিনের হাতে ক্যাচ তুলে ব্যক্তিগত ৫ রানে সাঝঘরে ফেরেন তিনি।  

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৩ উইকেট হারিয়ে ৬ ওভার শেষে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৩৭ রান।  

এর আগে ওমানের শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ধীরগতির শুরু করলেও থিতু হতে পারেননি নামিবিয়ার ওপেনার স্টিফেন বার্ড। তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে থিকশানার হাতে ক্যাচ তুলে ব্যক্তিগত ৭ রান নিয়ে সাঝঘরে ফেরেন তিনি।  

ওপেনার বার্ডের ফেরার পর ওয়ান রাউন্ডে মাঠে নেমে দলের হার ধরেন ক্রেইগ উলিয়ামস। তার সঙ্গে লড়ে যাচ্ছেন আরেক ওপেনার জেন গ্রিন। কিন্তু বেশিক্ষন টিকতে পারলেন না তিনি। ষষ্ঠ ওভারে থিকশানার বলে শানাকার হাতে ক্যাচ তুলে ব্যক্তিগত ৮ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন এই ব্যাটার।

দুই ওপেনার হারিয়ে যখন বিপাকে নামিবিয়া, তখন মাঠে নেমে উইলিয়ামসকে সঙ্গ দেন অধিনায়ক এরাসমাস। ঠান্ডা মাথায় ব্যাট করে দলকে ভালো সংগ্রহের পথে টানছিলেন এ দুই ব্যাটার। তবে ১৩তম ওভারে এরাসমুসকে শিকার করে ব্রেকথ্রু এনে দেন লাহিরু কুমারা। ব্যক্তিগত ২০ রান করে হাসারাঙ্গার হাতে ক্যাচ তুলে সাঝঘরে ফেরেন নামিবিয়ার অধিনায়ক। একই পথে হাঁটেন উইলিয়ামসও। চতুর্দশ ওভারে ব্যাক্তিগত ২৯ রান করে হাসারাঙ্গার বলে এলবিডব্লিউ হন তিনি।

পরের ওভারেই করুনারত্নের শিকার হন ডেভিড ভিসে। ব্যক্তিগত ৬ রান করে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি। একই পথে হাঁটেন ফ্রাইলিঙ্কও। থিকশানার স্পিন ঘূর্ণিতে ব্যাক্তিগত ২ রানের মাথায় উইকেট হারান তিনি। প্রতি ওভারে উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে নামিবিয়া।  

১৮তম ওভারের তৃতীয় বলে উইকেট হারান জ্যান নিকল লফটি এটনও। হাসারাঙ্গার দুর্দান্ত বোলিংয়ে ব্যক্তিগত ৩ রান করেই আউট হন বাঁহাতি এই ব্যাটার। পরের ওভারেই মাত্র ১ রান করে সাঝঘরে ফিরেন রাবেন চ্যাম্পেলমান। ১৯তম ওভারের প্রথম বলেই লাহিরু কুমারার শিকার হন পিক্কি ইয়া ফ্রান্স। তার ঠিক এক বল পরেই নিশানকার থ্রো’তে রান আউট হন বের্নার্ড স্কলটজ। ৩ বল বাকি থাকতেই মাত্র ৯৬ রানে গুটিয়ে যায় নামিবিয়া।

বাংলাদেশ সময়: ২২২৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০২১
আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa