bangla news

ছাড়া পেলেন আমির

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১২-০২-০২ ৪:০৬:২৫ এএম

স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার দায়ে তিন মাস কিশোর অপরাধ সংশোধন কেন্দ্রে আটক থাকার পর বুধবার মুক্তি পেয়েছেন পাকিস্তানী পেসার মোহাম্মদ আমির।

লন্ডন: স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকার দায়ে তিন মাস কিশোর অপরাধ সংশোধন কেন্দ্রে আটক থাকার পর বুধবার মুক্তি পেয়েছেন পাকিস্তানী পেসার মোহাম্মদ আমির।

আমির ও তার সতীর্থ মোহাম্মদ আসিফ ও সালমান বাটকে দূর্নীতির মাধ্যমে অর্থ গ্রহন ও জুয়ায় প্রতারণার ষড়যন্ত্রের দায়ে ২০১১ সালের নভেম্বর লন্ডনের সাউথওয়ার্ক ক্রাউন কোর্ট কারাদন্ডের আদেশ দেয়।বাটকে আড়াই বছর, আসিফকে এক বছর ও আমিরকে ছয় মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়। অন্যদিকে এই খেলোয়াড়দের এজেন্ট মাজহার মাজিদকে দেওয়া হয় দুই বছর আটমাস কারাদন্ড।

বৃটিশ আইনানুযায়ী সাজার কমপক্ষে অর্ধেক সময় কারাগারে থাকার পর কেউ জামিনে বের হতে পারেন। বয়স কম হওয়ায় কারাগারের পরিবর্তে সাজার অর্ধেকটা কিশোর অপরাধ সংশোধন কেন্দ্র পোর্টল্যান্ড ইয়াং অফেন্ডার্স ইন্সটিটিউটে কাটান পেসার মোহাম্মদ আমির।

পাকিস্তান ফেরার আগে আমির আগামী কয়েক সপ্তাহ লন্ডনে থাকবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ সময়ে আইসিসির পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে কোর্ট অব আর্বিট্রেশন ফর স্পোর্টস (সিএএস)’এ আপিল করার বিষয়ে আইনজীবিদের সঙ্গে কথা বললেন এই পেসার। ভিসার মেয়াদ থাকায় মার্চ পর্যন্ত ইংল্যান্ডে অবস্থান করতে পারবেন আমির।

গত ফেব্রুয়ারীতে আইসিসি ট্রাইব্যুনাল আমিরকে পাঁচ বছরের জন্য এবং পাকিস্তান দলে সতীর্থ মোহাম্মদ আসিফকে দুই বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ সাত বছর এবং অধিনায়ক সালমান বাটকে পাঁচ বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ দশ বছর পেশাদার ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০১ ঘণ্টা, ফেব্রয়ারি ০২, ২০১২

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2012-02-02 04:06:25