ঢাকা, বুধবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

খেলা

সামনের ঘরোয়া মৌসুমে নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ!

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২০
সামনের ঘরোয়া মৌসুমে নিউজিল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ! ছবি: সংগৃহীত

করোনা বিরতির পর ক্রিকেট ফিরতে শুরু করেছে। ইংল্যান্ডের মাটিতে তো পুরোদমে ক্রিকেট শুরুও হয়ে গেছে।

তবে করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত মাঠে নামা হয়নি বাংলাদেশ দলের। আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে শ্রীলঙ্কা সফরের ব্যাপারে আলোচনা চলচলেও চূড়ান্ত সফরসূচি এখনও জানায়নি দুই বোর্ড। কিন্তু নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট জানাচ্ছে, আসন্ন ঘরোয়া মৌসুমেই সফরে যাবে বাংলাদেশ দল।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট জানিয়েছে, করোনা মহামারি সত্ত্বেও আসন্ন ঘরোয়া মৌসুমে পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজের পাশাপাশি সফরে যাওয়ার বিষয়টি নিশিচত করেছে বাংলাদেশ।  

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট সংবাদমাধ্যমে বলেন, 'সফরকারী দলগুলোর জন্য আইসোলেশন সুবিধার ব্যবস্থা করতে তারা ওয়েলিংটন প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করছেন। তিনি বলেন, ‘আমি ফোনে ওয়েস্ট ইন্ডিজে কথা বললাম, তারা (সফর) নিশ্চিত করেছে। পাকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া এবং বাংলাদেশও তাই। ফলে ৩৭ দিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট চলবে। ’

সফরের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও সূচির ব্যাপারে এখনই কিছু জানাতে রাজি নন হোয়াইট। তিনি জানিয়েছেন, সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইংল্যান্ড সফরে যেভাবে জীবাণুমুক্ত পরিবেশের ব্যবস্থা করা হয়েছিল অর্থাৎ দুই দলের জন্য একই ভেন্যুতে থাকা ও অনুশীলনের পাশাপাশি আইসোলেশনের ব্যবস্থা ছিল সেটারই অনুকরণ করা হবে নিউজিল্যান্ডেও।

হোয়াইট বলেন, ‘আমরা এসব (জীবাণুমুক্ত পরিবেশ ও আইসোলেশন) নিয়ে সরকারি এজেন্সিগুলোর সঙ্গে কাজ করছি। তারা খুবই সহায়ক ভূমিকা পালন করছে, সরকারও দারুণ সহায়তা দিচ্ছে। ’

করোনা সংক্রমণ রোধে বাইরে থেকে কেউ নিউজিল্যান্ডে গেলে বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিন কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। কিন্তু দেশটির মানুষজন বেশ স্বাভাবিক জীবনযাপন চালিয়ে যাচ্ছেন, অনেকটা করোনা মহামারি শুরুর আগের মতো।

৫০ লাখ জনসংখ্যার দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃতের সংখ্যা মাত্র ২২। দেশটিতে গত সপ্তাহে পর্যন্ত টানা ১০০ দিনের বেশি সময় ধরে কোনো করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়নি। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা পজিটিভের সংখ্যা ১৫৭০।  ফলে দেশটির মানুষজন সামাজিক দূরত্ব মানতে বাধ্য নন এবং খেলাধুলা ও বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান আয়োজনেও কোনো বাধা নেই।

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৪ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa