bangla news

ভারতে খুলছে স্টেডিয়ামের ‘বন্ধ দরজা’

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৫-১৮ ৬:০৬:১৩ পিএম
.

.

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব রুখতে ভারতে চলছে চতুর্থ ধাপের লকডাউন। তবে রোববার (১৭ মে) ক্রীড়া আসরগুলোর জন্য সুসংবাদ দিয়েছে দেশটির সরকার। নতুন ঘোষণায় স্টেডিয়াগুলোর বন্ধ দরজা খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে খেলার আয়োজন করতে হবে দর্শকবিহীন মাঠে।

সরকারের সিদ্ধান্তকে সাদরে গ্রহণ করেছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)। তবে এখনই চলতি বছরের আইপিএল আয়োজন নিশ্চিত করার মতো পরিস্থিতি এখনও হয়নি বলে জানিয়েছে বিসিসিআই। অবশ্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হলে কিংবা ছাড় দেওয়া হলে গত এপ্রিলে স্থগিত ঘোষণা করা আইপিএল মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছে একাধিক ভারতীয় সংবাদমাধ্যম।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চতুর্থ দফার লকডাউনে যে নতুন নির্দেশনা জারি করেছে, সেখানে ভারতের ক্রীড়া ক্ষেত্রগুলোর জন্য ছাড় দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। নির্দেশনায় জানানো হয়েছে, স্পোর্টস কমপ্লেক্স এবং স্টেডিয়াম খোলা যাবে। তবে দর্শক ঢুকতে পারবে না।

নতুন নির্দেশনায় সবচেয়ে খুশি হওয়ার কথা অলিম্পিক গেমসে। টোকিও অলিম্পিকে অংশগ্রহণের আগে মেরি কম, পিভি সিন্ধু, নীরজ চোপড়াদের মতো অ্যাথলেটরা ক্রীড়া কমপ্লেক্স খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। সরকারের সিদ্ধান্তে তাদের সেই সুযোগ মিলে গেল।

অ্যাথলেটদের জন্য সুবিধা হলেও ভারতের সবচেয়ে বড় ঘরোয়া ক্রীড়া আসর আইপিএল নিয়ে এখনও সংশয় রয়ে গেছে। কারন আইপিএল ঘিরে দর্শকদের ব্যাপক আগ্রহ থাকে। বিক্রি হয়ে কোটি কোটি রুপির টিকিট। কিন্তু দর্শকবিহীন মাঠে টিকিট বিক্রি তো হবেই না, দর্শকদের উন্মাদনাও কমে যাবে। এমন পরিস্থিতিতে আইপিএল আয়োজন নিয়ে অনাগ্রহ প্রকাশ করেছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলীও।

তবে আইপিএল আয়োজন না হলেও স্টেডিয়ামের দরজা খুলে দিলে ক্রিকেটাররা উপকৃত হবেন। অন্তত অনুশিলনের কাজটা চালিয়ে যেতে পারবেন কোহলি-রোহিতরা। এতে আসন্ন ক্রিকেট প্রতিযোগিতাগুলোর জন্য প্রস্তুতি নিতেও সহজ হবে।

ভারতে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে এবং মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় ৩ হাজার। এর আগে তৃতীয় ধাপের লকডাউন শেষ হওয়ার কথা ছিল সোমবার (১৮ মে)। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্যই ৩১ মে পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৬ ঘণ্টা, মে ১৮, ২০২০
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-05-18 18:06:13