ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ সফর ১৪৪২

টেনিস

করোনাযুদ্ধ জয়ের আগে অলিম্পিক নয়: জাপানের প্রধানমন্ত্রী

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৫৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৯, ২০২০
করোনাযুদ্ধ জয়ের আগে অলিম্পিক নয়: জাপানের প্রধানমন্ত্রী ২০২১ সালেও অলিম্পিক আয়োজনের সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী/ছবি:সংগৃহীত

পুরো বিশ্ব এখন করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। দেশে দেশে চলছে লকডাউন। ঘরবন্দি অবস্থায় আছে কোটি কোটি মানুষ। বন্ধ হয়ে গেছে সবধরনের ক্রীড়া আসর। কিন্তু তাতেও হাজারো মানুষের মৃত্যু ঠেকানো সম্ভব হচ্ছে না। এ পরিস্থিতির উন্নতি না হলে আগামী বছরও অলিম্পিক আয়োজনের সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

গত মাসেই করোনা সংক্রমণের কথা চিন্তা করে টোকিও অলিম্পিক ২০২১ সালের জুলাই পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেয় আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি এবং জাপান সরকার। কিন্তু করোনা আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে এবং ভ্যাকসিনও নিকট ভবিষ্যতে আবিষ্কারের কোনো সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না।

 

এ অবস্থায় আপাতত অলিম্পিকের মতো বৈশ্বিক ক্রীড়া আসর আয়োজন না করার নিদান দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের বক্তব্যেও সেই কথারই প্রতিফলন দেখা গেল। তিনি বলেন, 'আমাদের বলা হয়েছে, অলিম্পিক এবং প্যারা-অলিম্পিক অবশ্যই পূর্ণ আকারে আয়োজন করতে হবে, তবে অ্যাথলেট এবং দর্শকদের নিরাপদে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। কিন্তু করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত এটা অসম্ভব। '

পরিস্থিতি এমন থাকলে আগামী বছর টোকিও অলিম্পিক আয়োজন করবে কি না, বুধবার (২৯ এপ্রিল) পার্লামেন্টের বিরোধীদলীয় এক আইনপ্রণেতার এমন প্রশ্নের জবাবে আবে এসব কথা বলেন।

গত মঙ্গলবার জাপানে আরও ১১২ জনের দেহে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। জাপানের জাতীয় প্রচারমাধ্যম 'এনএইচকে'র তথ্যমতে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ হাজার ৮৯৫ এবং মৃতের সংখ্যা ৪১৩।

অন্য অনেক দেশের চেয়ে জাপানে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা অনেক কম হলেও দেশটি এখনও ঝুঁকিমুক্ত নয়। ফলে অলিম্পিকের মতো বড় আসর নিয়ে এখনই ভাবতে চায় না জাপান। শিনজো আবে বলেন, 'বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের যত দ্রুত সম্ভব এই মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জিততে হবে। '

জাপানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, অলিম্পিক এমন এক উপায়ে অনুষ্ঠিত হতে হবে যেন, সারা বিশ্ব করোনাযুদ্ধে বিজয়ী হয়েছে এমন কিছুকে প্রতিনিধিত্ব করবে। নয়তো খেলা আয়োজন কঠিন হয়ে যাবে।

এদিকে মঙ্গলবার 'নিক্কন স্পোর্টস'কে টোকিও অলিম্পিক কমিটির প্রেসিডেন্ট ইয়োশিরো মোরি বলেন, যদি ২০২১ সালেও আয়োজন করা সম্ভব না হয় তাহলে অলিম্পিক বাতিলও হয়ে যেতে পারে। একইদিন জাপান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (জেএমএ) প্রধান ইয়োশিতাকে ইয়োকোকুরা এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, 'করোনার কার্যকর প্রতিষেধক আবিষ্কার না হলে, আমার মতে অলিম্পিক আয়োজন কঠিন হয়ে যাবে। '

এর আগে তীব্র সমালোচনার মুখে এ বছর হতে যাওয়া টোকিও অলিম্পিক শেষ পর্যন্ত স্থগিতের সিদ্ধান্ত দিয়েছিল জাপান সরকার ও অলিম্পিক কমিটি। পরে আসরটির নতুন সূচিও ঘোষণা করা হয়। দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’র পরবর্তী আসরটি ২০২১ সালের ২৩ জুলাই শুরু হয়ে শেষ হবে ৮ আগস্ট।

৩০ মার্চ দ্য ইন্টারন্যাশনাল অলিম্পিক কমিটি নির্বাহী বোর্ড সভা শেষে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। অবশ্য ২০২১ সালে হলেও আসরটির নাম টোকিও অলিম্পিক ২০২০’ই রাখা হবে।

এছাড়া প্যারাঅলিম্পিক ২০২০ সালের ২৫ আগস্ট শুরু হওয়ার কথা থাকলেও, নতুন সূচিতে সেটি ২০২১ সালের ২৪ আগস্ট থেকে ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নেওয়া হয়েছে। কিন্তু জাপানের প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে এটা পরিষ্কার যে আগামী বছরও অলিম্পিক আয়োজনের সম্ভাবনা নেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৯, ২০২০
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa