bangla news

করোনা রোধে ৮০ লাখ রুপি দান রোহিত শর্মার

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-৩১ ১:১৬:২৪ পিএম
রোহিত শর্মা

রোহিত শর্মা

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে ‍লড়াই করতে একাই ৮০ লাখ রুপি দান করেছেন টিম ইন্ডিয়া ওপেনার রোহিত শর্মা। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ৯০ লাখ ৬৭ হাজার টাকা। 

মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) রোহিত তার দানের ৪৫ লাখ রুপি দেন প্রধানমন্ত্রীর নাগরিক সহায়তা এবং জরুরি পরিস্থিতি ত্রান তহবিলে (পিএম কেয়ার্স ফান্ড)। মহারাষ্ট্র মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে দেন ২৫ লাখ রুপি। ৫ লাখ রুপি দেন অ-মূলধনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান জোমাতো ফিডিং ইন্ডিয়া এবং বাকি ৫ লাখ রুপি দেন রাস্তার কুকুরদের কল্যাণে। 

করোনার কারণে পুরো দেশ লকডাউন অবস্থায় আছে ভারত। যার কারণে বিপদে পড়েছেন সমাজের সুবিধাবঞ্চিত জনগণ। দেশকে ‘পুনরায় নিজ পায়ে দাঁড়াতে’ সাহায্য করার জন্য এই বিপুল অঙ্কের অর্থ দান করলেন রোহিত। ৩২ বছর বয়সী মারকুটে ব্যাটসম্যান নিজের অফিসিয়াল টুইটারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেই’কে ট্যাগ করে লিখেন, ‘চলুন আমাদের নেতাদের পেছনে দাঁড়ায় এবং তাদের সমর্থন করি।’  

এর আগে গত সপ্তাহে করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে ৫০ লাখ রুপি দান করেন ভারতের সাবেক কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার। অলরাউন্ডার সুরেশ রায়না দেন ৫২ লাখ রুপি। প্রধানমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে বিসিসিআই (বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া) দান করে ৫১ লাখ রুপি। 

এছাড়াও দেশটির ব্যাডমিন্টন তারকা পি.ভি. সিন্ধু, কুস্তিগির বজরং পুনিয়া, দৌড়বিদ হিমা দাস এবং বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট ও সাবেক টিম ইন্ডিয়া অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলিও অর্থ দান করেছেন ত্রান তহবিলে।

তবে এখন পযর্ন্ত ভারতের ক্রীড়া ব্যক্তিত্বদের মধ্যে সবচয়ে বেশি অর্থ দান করেছেন ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও তার অভিনেত্রী পত্নী আনুশকা শর্মা। এই তারকা দম্পতি পিএম কেয়ার্স ফান্ড ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রান তহবিলে একত্রে দান করেছেন ৩ কোটি রুপি। অবশ্য দানের অঙ্ক প্রকাশ করেননি কোহলি-আনুশকা। তবে ভারতের গণমাধ্যম ধারণা করছে, উল্লেখিত সম-পরিমাণ অর্থই দান করেছেন উভয়ে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৩১৫ ঘণ্টা, মার্চ ৩১, ২০২০
ইউবি 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-31 13:16:24