bangla news

করোনা মোকাবিলায় ৬ মাসের বেতন দান করলেন ভারতীয় কুস্তিগির

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-২৪ ৯:০৭:০২ পিএম
ভারতীয় কুস্তিগির বজরং পুনিয়া/ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় কুস্তিগির বজরং পুনিয়া/ছবি: সংগৃহীত

বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়ছে গোটা বিশ্ব। নিজ নিজ দেশের মানুষদের এই বিপদের দিনে সামর্থ্য অনুযায়ী এগিয়ে আসছেন অনেকেই। এই তালিকায় আছেন ক্রীড়া জগতের তারকারাও। এই যেমন নিজের ছ'মাসের বেতন করোনা প্রতিরোধ তহবিলে দান করার কথা জানালেন ভারতীয় কুস্তিগির বজরং পুনিয়া।

পুরো বিশ্বের মতো ভারতও করোনার শিকার হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫১১ জন। মারা গেছেন ১০ জন। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভারতের ৩২টি রাজ্য এবং ৭টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। প্রতিটি রাজ্যে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

দেশটির নাগরিকদের নিজ নিজ ঘরে থাকার আহবান জানিয়ে 'জনতা কারফিউ' ঘোষণা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দেশটির প্রতিটি রাজ্য এখন করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছে। নিজ দেশের এমন দশা থেকে মন খারাপ ২০১৯ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ব্রোঞ্জ পদকজয়ী বজরংয়েরও। এজন্যই ৬ মাসের বেতন করোনা মোকাবিলা তহবিলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

পেশাদার কুস্তিগির হলেও ভারতীয় রেলওয়ের স্পেশাল ডিউটি অফিসার পদে কর্মরত বজরং। সেখানে থেকে প্রাপ্ত ছয় মাসের বেতনই দিয়ে দিচ্ছেন তিনি। এক টুইটে তিনি লেখেন, 'করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মোহনলাল খাট্টার একটি ত্রাণ তহবিল গঠন করেছেন। সেই তহবিলেই নিজের ৬ মাসের বেতন দান করলাম।'

বজরং পুনিয়া অন্য ক্রীড়া তারকাদেরও 'হরিয়ানা করোনা রিলিফ ফান্ড' এ অর্থসাহায্য করা আহবান জানিয়েছেন। তার এই পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানাচ্ছেন নেটিজেনরা। এমনকি ভারতের ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুও তাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন। পুনিয়ার পথ ধরে সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ও বিজেপি'র সাংসদ গৌতম গম্ভীরও দিল্লির সরকারি হাসপাতালে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা খরচ বাবদ ৫০ লাখ টাকা সরকারি ফান্ডে অনুদান দিয়েছেন।

বিশ্বব্যাপী এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৯৫ হাজার ৫৮৩ জন আর মারা গেছেন ১৭ হাজার ২৩৪ জন।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০২০
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-03-24 21:07:02