ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

ক্রিকেট

মাহমুদউল্লাহদের হারিয়ে তামিমদের শুভ সূচনা

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৩-১৬ ০৬:১৫:৪১ পিএম
মাহমুদউল্লাহদের হারিয়ে তামিমদের শুভ সূচনা বল করছেন মাহমুদউল্লাহ: ছবি-শোয়েব মিথুন

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) জয় দিয়ে এবারের মৌসুম শুরু করেছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। নিজেদের প্রথম ম্যাচে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে ৯ রানে হারিয়েছে তামিম ইকবালের দল। 
 

সোমবার (১৬ মার্চ) মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৫১ রান করে প্রাইম ব্যাংক। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে ২৪২ রানে থেমে যায় গাজী গ্রুপের ইনিংস।

২৫২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই জাকির হোসেনের (৫) উইকেট হারায় গাজী গ্রুপ। এরপর সৌম্য সরকার ‍ও মুমিনুল হক দ্বিতীয় উইকেটে ৫০ রান যোগ করেন। মুমিনুল ২৮ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরত যান।

এরপরই ফিফটি থেকে এক রান দূরে থাকতে আউট হন সৌম্য। দলের রান তখন ১০৫ রান। ইয়াসির আলী চৌধুরী (১) ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৩২) দ্রুত বিদায় নিলে চাপে পড়ে যায় গাজী গ্রুপ।

করোনা ভাইরাস নিয়ে খুনসুঁটিতে মেতেছেন তামিমরা: ছবি-শোয়েব মিথুনচাপ আরও বাড়ে আরিফুল হক ব্যক্তিগত ২০ রান করে বিদায় নিলে। তবে গাজী গ্রুপের জয়ের আশার আলো হয়ে ছিলেন যুব বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক আকবল আলী। তবে শেষ পর্যন্ত তিনিও আশার আলো দেখিয়ে ব্যর্থ হন। ২৮ বলে ৩১ রান করে দলীয় ১৭৪ রানের মাথায় সপ্তম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন আকবর।

শেষদিকে মেহেদি হাসান চেষ্টা করলেও দলের পরাজয় এড়াতে পারেনি গাজী গ্রুপ। ৫০ ওভার ব্যাট করে ৯ উইকেটে ২৪২ রানের বেশি করতে পারেনি তারা। মেহেদি ৪৯ বলে ৫৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন।  

প্রাইম ব্যাংকের মোস্তাফিজুর রহমান, নাহিদুল ইসলাম ও অলক কাপালি ২টি এবং নাঈম একটি উইকেট নেন।

শট খেলার পথে রনি তালুকদারএর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারেই এনামুল হক বিজয়ের (০) উইকেট হারায় প্রাইম ব্যাংক। তামিম ইকবাল ১৯ রান করে দলীয় ৪৬ রানে বিদায় নেন। এরপর সাজঘরে ফেরেন রকিবুল হাসানও (৫)।

চতুর্থ উইকেটে মোহাম্মদ মিঠুন ও রনি তালুকদার ৫৫ রান যোগ করেন। অর্ধ-শতক তুলে নেন রনি। মিঠুন ২৯, রনি ৭৯ ও অলক কাপালি ১৯ রান করে আউট হলে দলীয় ১৫৬ রানে ৬ উইকেটে হারায় প্রাইম ব্যাংক।

শট খেলার পথে কাপালি: ছবি-শোয়েব মিথুননাহিদুল ইসলাম ও নাঈম হাসান সপ্তম উইকেটে প্রাইম ব্যাংককে শক্ত অবস্থানে নিয়ে যেতে সাহায্য করেন। এই দুজনের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে লড়াকু সংগ্রহ পায় প্রাইম ব্যাংক। নাহিদুল ৪৩ বলে ৫৩ আর নাঈম ৩৬ বলে ৪৬ রানে অপরাজিত ছিলেন। সপ্তম উইকেটে ৯৬ রানে জুটি গড়ে অবিচ্ছিন্ন থাকেন তারা।

গাজী গ্রুপের মাহমুদউল্লাহ ৩টি, নাসুম আহমেদ ২টি এবং হাসান মাহমুদ ১টি উইকেট নেন।

প্রাইম ব্যাংকের নাহিদুল ইসলাম ম্যাচ সেরা হয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৫ ঘণ্টা, মার্চ ১৬, ২০২০
আরএআর/ইউবি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa