bangla news

মাশরাফিকে অবসর নিয়ে ভাবতে বলছেন পাপন

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-১৯ ৬:৩১:০৪ পিএম
মাশরাফি ও পাপন/ছবি: সংগৃহীত

মাশরাফি ও পাপন/ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর ক্রিকেট থেকে একপ্রকার দূরেই আছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। কবে ফিরবেন কিংবা ফিরবেন কি-না সেটা নিয়েও ছিল অনিশ্চয়তা। তবে অবশেষে বিষয়টার একটা সুরাহা হয়েছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন ওয়ানডে সিরিজ দিয়েই ফের নেতৃত্বে ফিরছেন তিনি। 

তবে জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেললেও এটাই হতে পারে মাশরাফির অধিনায়কত্বের ‘শেষ অধ্যায়’। ইঙ্গিতটা দিয়েছেন খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) প্রধান নাজমুল হাসান। শুধু তাই না, এক মাসের মধ্যেই নতুন অধিনায়ক নিয়ে ভাবতে বসার কথাও জানিয়েছেন তিনি। অর্থাৎ, মাশরাফির বিদায় নিশ্চিত।

মাশরাফির নেতৃত্বে ফেরা নিয়ে বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে বিসিবি প্রধান বলেন, 'জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফি থাকছে। অবশ্যই থাকছে। ও যদি ফিট না হয়, সেটা আলাদা বিষয়। ওর জন্য (ফিটনেসের ব্যাপারে) আমরা অতটা কড়াকড়ি করতে যাচ্ছি না। এরপর যদি খেলতে চায় খেলবে। কিন্তু দলে চান্স পাবে কি না সেই গ্যারান্টি আমরা দিতে পারবো না। ন্যাশনাল টিমে চান্স পেতে হলে যে যে ক্রাইটেরিয়া আছে তা ফুলফিল করে আসতে হবে।' 

তবে আপাতত মাশরাফিতে কাজ চালিয়ে নিলেও খুব শিগগিরই নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক বাছাইয়ের কথা ভাবছে বিসিবি। এ নিয়ে পাপন বলেন, 'খুব শিগগিরই পরবর্তী যে বিশ্বকাপ আছে সেটার জন্য অধিনায়ক ঠিক করা নিয়ে সিদ্ধান্তে আসতে হবে। হঠাৎ করে তো আর নতুন অধিনায়ক ঠিক করবো না। কিন্তু টিম এবং অধিনায়ক দুই বছর আগে থেকেই ঠিক করবো। তাই আমাদের হাতে খুব বেশি সময় নেই। আগামী এক মাসের মধ্যেই এই সিদ্ধান্ত নেব। অন্তত এই সিরিজটা পর্যন্ত আমরা অপেক্ষা করছি।'

জিম্বাবুয়ে সিরিজের পরই নতুন অধিনায়ক নিয়ে ভাবতে বসবে বিসিবি। তবে সেই অধিনায়ক যে মাশরাফি নন তা স্পষ্ট করেই বলেছেন নাজমুল হাসান পাপন। তবে দলের দুয়ার তার জন্য খোলা থাকার কথাও জানিয়ে দিয়েছেন তিনি। তার ভাষায়, ‘অবসর যার যার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। হয়তো সে (মাশরাফি) ভবিষ্যতেও খেলবে। কিন্তু আমর ভাবছি নেতৃত্ব নিয়ে। মাসখানেকের মধ্যেই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলব। অন্য কেউ অধিনায়ক হলেও ও যদি নিজের পারফরম্যান্সে দলে ঢুকতে পারে ঢুকবে। সেটা তো ভিন্ন ব্যাপার। সেটা তো কারো জন্যই বাধা নেই। তবে অধিনায়কত্বের ব্যাপারে আমরা মাসখানেকের মধ্যে আপনাদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেব।'

অবসর ভাবনা যদিও মাশরাফির ব্যক্তিগত, তবে এখন এটা নিয়ে ভাবার সময় হয়েছ বলেই মনে করেন পাপন। তার মতে, ‘সাকিবের মতো খেলোয়াড়ের বিকল্প আমাদের নেই। মাশরাফির মতো অধিনায়কের বিকল্প এই মুহূর্তে আমাদের হাতে নেই। এটা সত্যি। আমি সবসময় বলে এসেছি। মাশরাফির ব্যাপারটা হচ্ছে, এখন তো পরিবর্তন হচ্ছে। আগে আমাদের বিপ টেস্ট পাশ করার ব্যাপার ছিল না। এখন তো আমরা চালু করেছি। স্বাভাবিকভাবে বিপ টেস্ট নাও পাশ করতে পারে মাশরাফি। এটা একটা ব্যাপার।'

তবে মাশরাফির অবদানের কথা স্মরণ করে তাকে বাদ দেওয়ার চিন্তাও করছে না বিসিবি। পাপনের কথায়, 'বিপ টেস্ট পাশ না করলেও মাশরাফিকে বাদ দেওয়া যাবে না। আমাদের মাথায় এটাও রাখতে হবে যে বাংলাদেশের ক্রিকেট ঘুরে দাঁড়িয়ে যে জায়গাটায় এসেছিল সেখানে মাশরাফির ভূমিকা অস্বীকার করার কারো উপায় নেই। ওর নেতৃত্ব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। কিন্তু এটাও আবার আমরা জানি ওর একটা সময় এসেছে সিদ্ধান্ত নেওয়ার যে ও আর কতদিন খেলবে। এখানে অনেকগুলো ইস্যু আছে।।’

মাশরাফিকে আয়োজন করে বিদায়ের ইচ্ছার কথাও জানালেন পাপন, ‘আমরা যেটা জানি নামীদামী খেলোয়াড় যারা আছেন, তারা নিজেরা প্ল্যানড ওয়েতে বলে দেয় যে আমি...একটা সময় এসে তারা রিটায়ার করে। আমাদেরও ইচ্ছে ছিল ও যদি এমন কিছু করে তাকে অনুষ্ঠান করে ভালোভাবে বিদায় দিতে পারি। ওর সঙ্গে আমার শেষ যে কথা হয়েছিল বিশ্বকাপের সময় তখনই একটা কথা ছিল যে জিম্বাবুয়ে বা কারো সঙ্গে যদি ঘরের মাঠে একটা টি-টোয়েন্টির ব্যবস্থা করতে পারি সেখানে সে হয়তো অবসর নেবে। পরে ওখান থেকে আসার পর দেখলাম ও ওর চিন্তা বদলে ফেলেছে। এর পরবর্তীতে দেখলাম যে ওর জন্য কিছু একটা অনুষ্ঠান করবো ওর রিটায়ারমেন্ট ডেতে সেটাও সে চায় না। আমার কাছে সে কিছু বলেনি। মিডিয়াতে দেখেছি যে ওসব সে চায় না।

২২ থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারি মিরপুর শের-ই-বাংলায় একমাত্র টেস্ট ম্যাচ শেষে সিরিজের তিনটি ওয়ানডেই অনুষ্ঠিত হবে সিলেটে। ম্যাচগুলো যথাক্রমে ১, ৩ ও ৬ মার্চ মাঠে গড়াবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-19 18:31:04