bangla news

১৯ বছরের অর্লান্দের কাছে হারলো নেইমার-ডি মারিয়ারা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-১৯ ৪:১৭:৩০ এএম
বল পায়ে ছুটছেন অর্লান্দ

বল পায়ে ছুটছেন অর্লান্দ

চলতি চ্যাম্পিয়নস লিগে রেড বুল সালজবার্গের হয়ে গ্রুপ পর্বেই থেমে গিয়েছিল আরলিং ব্রট অর্লান্দের যাত্রা। অস্ট্রিয়ান ক্লাবটির হয়ে মাত্র ৩৭৪ মিনিট মাঠে কাটিয়ে ৮ গোল করে ইউরোপীয়ান ফুটবলের আলো কেড়ে নিয়েছিলেন ১৯ বছর বয়সী এ নরওয়েজিয়ান স্ট্রাইকার। 

ফুটবলের এ নতুন তারকা এরপর আর বেশিদিন থাকেননি সালজবার্গে। মাস খানেক হয়েছে যোগ দিয়েছেন বরুসিয়া ডর্টমুন্ডে। এরপর তো সবাই জানেন, বুন্দেসলিগায় কী করে যাচ্ছেন অর্লান্দ। 

জার্মান ক্লাবটির হয়ে অভিষেকেই হ্যাটট্রিক করেছিলেন তিনি। ইতোমধ্যে বুন্দেসলিগায় ৫ ম্যাচে করে ফেলেছেন ৮ গোল! আর এবার তার পায়ের জাদুতে পুড়লো প্যারিস সেন্ট জার্মেই। জার্সি বদল হলেও থামেনি অর্লান্দের গোল গোল অভিযান। ডর্টমুন্ডের হয়ে চলতি মৌসুমের চ্যাম্পিয়নস লিগে ফের সুযোগ পেয়ে করলেন জোড়া গোল। 

অর্লান্দের জোড়া গোলেই চ্যাম্পিয়নস লিগে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে পিএসজিকে ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে ডর্টমুন্ড। 

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে ঘরের মাঠ সিগন্যাল ইদুনা পার্কে নেইমার-কিলিয়ান এমবাপ্পে-অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়াদের আতিথেয়তা দেয় লুসিয়ান ফাভরের শিষ্যরা। 

কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রাখার জন্য ম্যাচের শুরু থেকে আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে ওঠে দু’দল। কিন্তু প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কেউ। 

বিরতির পর অবশ্য বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি ডর্টমুন্ডকে। আশরাফ হাকিমির কাছ থেকে বল পান রাফায়েল গুরেইরো। তিনি শট নেন পিএসিজর গোলমুখে। কিন্তু বাধা পেয়ে বল চলে আসে অর্লান্দের পায়ে। তরুণ তারকা গোল করতে ভুল করেননি। ৬৯ মিনিটে ডর্টমুন্ড সমর্থকদের উল্লাসে ভাসান অর্লান্দ। 

বল দখলের লড়াইয়ে নেইমারগোল গোল হজমের পর সমতায় ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে পিএসজি। ৭৫ মিনিটে সুযোগও পেয়ে যায় তারা। এমবাপ্পের পাস থেকে বল পেয়ে ব্যবধানটা ১-১ করেন নেইমার। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দীর্ঘদিন পর চ্যাম্পিয়নস লিগে ফিরেই গোল পেলেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার। কিন্তু উদযাপনটা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি টমাস টুখেলের শিষ্যদের। 

দুই মিনিট পরেই নেইমারের গোল ব্যর্থ করে বদলি খেলোয়াড় জিওভান্নি রেয়নার কাছ থেকে বল পেয়ে ডর্টমুন্ডকে জয়সূচক গোল এনে দেন অর্লান্দ। এ নিয়ে চলতি চ্যাম্পিয়নস লিগ আসরে দুই দলের হয়ে মোট ১০ গোল করে শীর্ষ গোলদাতা বায়ার্ন মিউনিখের পোলিশ স্ট্রাইকার রবার্ট লেভানডভস্কিকে ছুঁয়ে ফেললেন তিনি। 

চেষ্টা সত্ত্বেও বাকি সময় আর গোলের দেখা পায়নি ফরাসি জায়ান্টরা। এই জয়ে শেষ আটে এক পা দিয়ে রাখলো ডর্টমুন্ড। অ্যাওয়ে গোল থাকায় কোয়ার্টারে যেতে হলে ঘরের মাঠের ফিরতি লেগে ১-০ গোলে জিততে হবে পিএসজিকে।

বাংলাদেশ সময়: ০৪১৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২০
ইউবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফুটবল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-19 04:17:30