ঢাকা, শনিবার, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৫ মে ২০১৯
bangla news

আমিরকে বিশেষ বিবেচনা করা উচিৎ: আকরাম খান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: -০০০১-১১-৩০ ১২:০০:০০ এএম

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বর্তমানে অস্থিরতা চলছে। বিশেষ করে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের স্পট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ ওঠায় খেলোয়াড়দের নৈতিকতার বিষয়টি বড় হয়ে দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে ক্রিকেটারদের সচেতন করে তোলার পক্ষে মত দিয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান।

ঢাকা: আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বর্তমানে অস্থিরতা চলছে। বিশেষ করে পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের স্পট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ ওঠায় খেলোয়াড়দের নৈতিকতার বিষয়টি বড় হয়ে দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে ক্রিকেটারদের সচেতন করে তোলার পক্ষে মত দিয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান।

প্রশ্ন: স্পট ফিক্সিংয়ের ঘটনায় ক্রিকেট কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হলো?

আকরাম খান: অনেক অনেক ক্ষতি হয়ে গেছে। পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা যদি সত্যিই দোষি প্রমাণিত হয় তবে এটা একটা কালো অধ্যায় হয়ে থাকবে।

প্রশ্ন: বেশি ক্ষতি হলো কার পাকিস্তানের না ব্যক্তি ক্রিকেটারদের?

আকরাম খান: পাকিস্তান অনেক বিখ্যাত ক্রিকেটারের জন্ম দিয়েছে। ভবিষ্যতেও হয়তো দেবে। কিন্তু স্পট ফিক্সিংয়ের বিষয়টি স্পষ্ট প্রমাণ হলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবেন তরুণ পেসবোলার মোহাম্মদ আমির। আমার মনে হয় আমিরের বিষয়ে আইসিসি নমনীয় হলে ভালো হবে। সে বয়সে খুবই ছোট। এত অল্প বয়সে একা কোন সিদ্ধান্ত নেওয়ার সাহস পাওয়ার কথা নয়। অন্যরাই তাকে প্রভাবিত করে থাকতে পারে। আইসিসি ব্যক্তি হিসেবে বিচার করলে যুক্তিসঙ্গত হবে। আমির বিশ্ব ক্রিকেটের অনেক বড় প্রতিভা।

প্রশ্ন: আপনার কি মনে হয় ম্যাচ পাতানোর সঙ্গে উপমহাদেশের ক্রিকেটারদের নাম সবচেয়ে বেশি আসছে?  

আকরাম খান: আমি তা মনে করি না। এশিয়ার বাইরেও এমন ঘটনা হয়তো ঘটে। অতীতে তার প্রমাণও পাওয়া গেছে। উপমহাদেশে ক্রিকেট বেশি জনপ্রিয়। সেকারণেই এখানেই বাজিকরদের আনাগোনা বেশি। সংবাদমাধ্যমও এখানে অনেক বেশি সচেতন।

প্রশ্ন: সমস্যা থেকে মুক্তির উপায় সম্পর্কে কিছু বলবেন?

আকরাম খান: আমি মনে করি ক্রিকেটারদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে। অপরিচিত লোকের সঙ্গে মেলা মেশার বিষয়ে সতর্ক করতে হবে। এজেন্ট নির্বাচনের বিষয়েও ক্রিকেট বোর্ড এবং আইসিসির শৃঙ্খলায় আনতে হবে।

প্রশ্ন: বাজিকরদের হাত থেকে বাঁচাতে বাংলাদেশকে কি ধরণের পদক্ষেপ নেওয়া উচিৎ?

আকরাম খান: বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা অনেক বেশি সৎ। অনৈতিক কাজের সঙ্গে এখন পর্যন্ত কোন ক্রিকেটার জড়ায়নি। আশা করি ভবিষ্যতেও হবে না। ক্রিকেটের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রত্যক্ষভাবে সম্পৃক্ত থাকায় আমি এনিশ্চয়তা দিতে পারছি। তার পরেও ছোট বেলা থেকেই ক্রিকেটারদের এ বিষয়ে সচেতন করতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৩৭ ঘন্টা, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১০


        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 -0001-11-30 00:00:00