ঢাকা, রবিবার, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৫ আগস্ট ২০১৯
bangla news

হামিদের উপর ক্ষোভ ঝাড়লেন আফ্রিদি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: -০০০১-১১-৩০ ১২:০০:০০ এএম

সতীর্থ ক্রিকেটারদের নিয়ে ইয়াসির হামিদের বক্তব্য কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন শহীদ আফ্রিদি। রীতি মতো চোটেছেন ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। গালমন্দ না করলেও হামিদের মানসিকতাকে কিশোর বয়সের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

কার্ডিফ: সতীর্থ ক্রিকেটারদের নিয়ে ইয়াসির হামিদের বক্তব্য কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন শহীদ আফ্রিদি। রীতি মতো চোটেছেন ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। গালমন্দ না করলেও হামিদের মানসিকতাকে কিশোর বয়সের সঙ্গে তুলনা করেছেন।

আফ্রিদি বলেন,“আমরা তাকে অনেক দিন ধরে চিনি এবং জানি সে যে কোন ধরণের আচরণ করতে পারে। এর আগেও সে অনেক বার এমন করেছে।”

পরিস্থিতি বুঝে ভোল পাল্টে ফেলেছেন হামিদ। ৩২ বছরের এই ব্যাটসম্যান বলেছেন তাকে বোকা বানিয়েছে বৃটিশ ট্যাবলয়েডের সাংবাদিক।

হামিদ অপরিচিত এক সাংবাদিককে পানশালায় আয়েশ করার সময় বলেছিলেন পাকিস্তানের খেলোয়াড়রা প্রতি ম্যাচেই স্পট ফিক্সিং করে। নিজেকে অভিযোগমুক্ত প্রমাণ করতে সতীর্থদের ওপর সে জন্য ক্ষোভও ঝেড়ে ছিলেন হামিদ,“আমি সেরাটা খেলতাম। আর তারা হারের চেষ্টা করে। এতে আমি ক্ষুদ্ধ হতাম।”

হামিদের ও আলাপ চারিতা গোপনে রেকর্ড করে প্রচার করে নিউজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড। ভিডিও চিত্রে দেখা যায় হামিদ বলেছেন,“তারা প্রতি ম্যাচেই ফিক্সিং করতো। আল্লাহ জানেন, তারা সেটা কিভাবে করেছে। অবশেষে তারা ধরা পড়েছে।”

এদিকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) হামিদের লিখিত বক্তব্য প্রকাশ করা হয়েছে। লন্ডনে পাকিস্তান হাইকমিশনের বাইরে সাংবাদিকদের লিখিত পত্র পড়ে শোনান পিসিবির আইনজীবি তাফাজ্জুল রিজভী।

৩২ বছর বয়সী ওই ক্রিকেটার বলেছেন, একজন সম্ভাব্য স্পন্সর হিসেবেই পরিচয় গোপন রাখা সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলেছিলেন তিনি। লোকটি একটি বিমানের স্পন্সর হিসেবে তাকে ৫০ হাজার পাউন্ডের প্রস্তাব দিয়েছিলো।

হামিদ দাবি করেন,“দুই দিন পরে ঐ লোক আমাকে আবার ফোন করে এবং বাট, আমের আর আসিফের বিরুদ্ধে বলার জন্য আমাকে ২৫ হাজার পাউন্ড দেয়ার প্রস্তাব করে। যা আমি প্রত্যাখ্যান করি এবং ফোন রেখে দেই।”

আগের সপ্তাহে বৃটিশ ট্যাবলয়েডটি স্পট ফিক্সিংয়ের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে পাকিস্তানের চার ক্রিকেটারের নাম প্রকাশ করে। তবে অভিযোগ তোলে সাতজনের বিরুদ্ধে। তিনজনের নাম প্রকাশ করতে পারেনি পত্রিকাটি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩৯ ঘন্টা, সেপ্টেম্বর ০৬, ২০১০





        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 -0001-11-30 00:00:00