bangla news

গলফারদের দারুণ প্ল্যাটফর্ম বসুন্ধরা ওপেন গলফ টুর্নামেন্ট

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-২৯ ৬:২০:২৫ পিএম
বিপিজিএ’র যুগ্ম সম্পাদক মেজর মোর্শেদ: ছবি- রাজীন চৌধুরী

বিপিজিএ’র যুগ্ম সম্পাদক মেজর মোর্শেদ: ছবি- রাজীন চৌধুরী

ঢাকার সাভারে বসেছে দেশের সবচেয়ে বড় গলফের আসর বসুন্ধরা ওপেন গলফ টুর্নামেন্ট-২০১৯ এর চতুর্থ আসর। দেশের পেশাদার গলফারদের জন্য এই টুর্নামেন্ট দারুণ এক প্ল্যাটফর্ম। বিশেষ করে অ্যামেচারদের জন্য, যারা এখানে খেলে নিজেদের খেলার উন্নতি সাধন করার পাশাপাশি বাইরের টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়ার জন্য প্রস্তুত হতে পারে।

দেশের বৃহত্তম শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় বাংলাদেশ প্রফেশনাল গলফারস অ্যাসোসিয়েশন (বিপিজিএ) এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছে।

বাংলাদেশ প্রফেশনাল গলফারস অ্যাসোসিয়েশন (বিপিজিএ) টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ও সমাপনী অনুষ্ঠান আয়োজিত হবে আগামী ০১ জানুয়ারি (মঙ্গলবার)। আসরের সেরা গলফারদের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। 

এবারের আয়োজন নিয়ে বিপিজিএ’র যুগ্ম সম্পাদক মেজর মোরশেদ বলেন, ‘চতুর্থবারের মতো এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করছি। প্রতিবারই ভালো সাড়া পাই। পেশাদার যারা তারা যেন খেলার সুযোগ পায় এটাই আমাদের লক্ষ্য। এবারের আসরে যেমন মোট ১২টি ক্লাব অংশগ্রহণ করছে।’

ছবি: রাজীন চৌধুরীএই টুর্নামেন্টের আসল লক্ষ্য ভালো খেলোয়াড়দের প্রতিযোগিতা করে নিজেদের খেলায় উন্নতি সাধনে সহায়তা করা, জানান বিপিজিএ’র যুগ্ম সম্পাদক। তিনি বলেন, ‘আমাদের এখানে পেশাদার ছাড়াও ১৫ জন অ্যামেচার গলফারও আছেন, যারা ভালো খেলেন, কিন্তু সুযোগ কম পান। এমন খেলোয়াড়দের আমরা আমন্ত্রণ জানাই যেন তারা নিজেদের খেলার মান বুঝতে পারে এবং নিজেদের খেলার উন্নতি ঘটাতে পারে। এছাড়া আমাদের চার জন নারী গলফার আছেন, তারাও এবার খেলবেন।’

জাতীয় পর্যায়ে গলফার তৈরি করার ক্ষেত্রে কতটা অবদান রাখছে এই টুর্নামেন্ট, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমাদের এখানে প্রায় ১৫৯ জন পেশাদার গলফার আছেন। অনেকে আবার দেশের বাইরে থাকেন। তবে আমাদের এই সংস্থা থেকে এই খেলার সুযোগটা পায়। প্রায় ৮০ শতাংশের বেশি গলফার এখানে অংশগ্রহণ করেন। এখানে যারা ভালো করে তারা বাইরেও ভালো করার আত্মবিশ্বাস পায়। র্যাংকিং হয়।’

‘এখন এশিয়ান ট্যুর, এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ট্যুর এমন টুর্নামেন্ট আয়োজিত হয়। এখানে অংশ নিয়ে যে প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব হয় তা এসব টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ তৈরি করে। বিশেষ করে ভারতের পেশাদার টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ। এই সুযোগগুলো কিন্ত তৈরি হয় আমাদের এই টুর্নামেন্ট থেকে,’ যোগ করেন তিনি।

পেশাদার গলফারদের আসর শেষে নতুনদের জন্য ‘অ্যামেচার গলফ’ নামে আলাদা টুর্নামেন্টও এবার আয়োজিত হবে। অ্যামেচারদের জন্য এই টুর্নামেন্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে বলেও জানান তিনি, ‘অ্যামেচারদের জন্য এটা বেশ ভালো একটা সুযোগ। যারা বিভিন্ন ক্লাবে ভালো খেলে শুধু তারাই এখানে খেলার সু্যোগ পান। ফলে নিজেদের একটা ভালো অবস্থান তৈরি করার সুযোগ পাওয়া যায়।’ 

রোববার সকাল থেকে সাভার গলফ ক্লাবে টি নম্বর-১ প্রথমদিনের খেলা শুরু হয়। টুর্নামেন্টটি ২৯ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে চলবে ২০২০ সালের ০১ জানুয়ারি পর্যন্ত।

ছবি: রাজীন চৌধুরীএ খেলায় অংশগ্রহণ করছেন বাংলাদেশ গলফার অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেজর (অব.) গোলাম মোরশেদ (পিএসসি) ও অ্যামেচার গলফার হিসেবে খেলবেন সাভার গলফ ক্লাবের সিইও (অব.) মেজর আহাদ। এছাড়া সাভার গলফ ক্লাবের সদস্য ইসমাইল, মজনু ও কুর্মিটোলা গলফ ক্লাবের দুলাল, সজিব, আকবর, নাজিমসহ ১০৪ জন।

চার রাউন্ডের খেলায় ৮৩ জন পেশাদার, ১৬ জন অ্যামেচার এবং সেনাবাহিনীর ৪ জন নারী গলফারসহ মোট ১০৪ জন অংশ নিচ্ছেন। তবে প্রথমদিনে প্রথম রাউন্ডের খেলায় ৯৮ জন গলফার অংশ নেন। এদিন পারের চেয়ে ৩ শট কম খেলে শীর্ষে আছেন সাভারের গলফার মো. রবিন। এরপর দ্বিতীয় দিনে মাঠে গড়াবে দ্বিতীয় রাউন্ডের খেলা। সেখান থেকে ৪০ জনের বেশি গলফার অংশ নেবেন শেষ রাউন্ডে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৯
এমএইচএম/ইউবি 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   খেলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-29 18:20:25