ঢাকা, শনিবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ সফর ১৪৪২

টেনিস

আর্চারি থেকে আরও একটি সোনার পদক

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৮, ২০১৯
আর্চারি থেকে আরও একটি সোনার পদক ছবি:সংগৃহীত

সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসের অষ্টম দিনে একের পর এক সুখবর দিচ্ছে বাংলাদেশের আর্চারির দলগুলো। দিনের শুরুতেই আর্চারিতে তিনটি স্বর্ণ জয় হয়েছিল। এবার ছেলেদের কম্পাউন্ড দলগত ইভেন্টে ভুটানকে হারিয়ে সোনার পদক জয় করলো বাংলাদেশ। 

এর আগে রোববার (০৮ ডিসেম্বর) রিকার্ভ মিশ্র ইভেন্টে সোনা জিতে নেন বাংলাদেশের রোমান সানা ও ইতি খাতুন জুটি। রিকার্ভ মিশ্র ইভেন্টের ফাইনালে রোমান-ইতি জুটি ভুটানকে ৬-২ সেটে হারিয়েছে।

ভারতকে হারিয়ে আর্চারিতে নারীদের দলগত রিকার্ভে স্বর্ণ জেতে বাংলাদেশ। এনিয়ে এসএ গেমসের অষ্টম দিনে পঞ্চমসহ মোট ১১তম স্বর্ণ ঘরে তুললো বাংলাদেশ। আর্চারি ছাড়া মেয়েদের ক্রিকেটে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে স্বর্ণ জিতেছিল বাংলাদেশ।

নেপালের কাঠমান্ডুতে ১৩তম সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসের দিনের শুরুতেই অষ্টম স্বর্ণ জেতে বাংলাদেশ। আসরের অষ্টম দিনে আর্চারিতে পুরুষদের দলগত রিকার্ভে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে এই সফলতা পায় লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

এর আগে শনিবার ভারোত্তলনে দুটি সোনার পদক জেতার রেশ কাটতে না কাটতেই বাংলাদেশকে সপ্তম স্বর্ণ পদক পাইয়ে দেন ফাতেমা মুজিব। ফেন্সিংয়ে ব্যক্তিগত সেভার ইভেন্টে তিনি সোনার পদক জিতেছেন।

মাবিয়া আক্তার সীমান্তের পর বাংলাদেশ আরও একটি স্বর্ণ পদক জেতে। বাংলাদেশকে ষষ্ঠ স্বর্ণ পদক পাইয়ে দেন জিয়ারুল ইসলাম। ৯৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে তিনি স্বর্ণ জিতেছেন। মাইনুল ইসলাম ১০২ কেজিতে জিতেছেন রৌপ্য পদক।

গতবারের মতো এবারও বাংলাদেশকে সোনার পদক পাইয়ে দিয়েছেন সীমান্ত। ৭৬ কেজি ওজন শ্রেণিতে স্বর্ণ জিতেছেন তিনি। ৮১ কেজিতে রৌপ্য জিতেছেন বাংলাদেশের জোহরা খাতুন নিশা।

বাংলাদেশকে প্রথম পদক এনে দিয়েছিলেন হুমায়রা আক্তার অন্তরা। তবে সেটি ছিল ব্রোঞ্জ। তায়কোয়ান্দোতে এবার বাংলাদেশ প্রথম সোনার পদক জেতে। দিপু চাকমা পাইয়ে দেন প্রথম স্বর্ণ। তায়কোয়ান্দোতে ছেলেদের এককে পুমসায় ২৯ অথবা এর বেশি ওজনে ভারতের প্রতিযোগীকে হারিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম সোনা জেতান রাঙামাটির ছেলে দিপু।

এরপর কারাতে কুমিতে সোনা জেতেন আল আমিন। সেটি ছিল বাংলাদেশের দ্বিতীয় সোনার পদক। কারাতে ইভেন্টের ৬০ কেজি ওজন শ্রেণি কুমিতে সোনা পাইয়ে দেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আল আমিন। দেশের তৃতীয় স্বর্ণ জেতেন বাংলাদেশের আরেক খেলোয়াড় মারজানা আক্তার প্রিয়া। এসএ গেমসে দেশের পক্ষে তৃতীয় সোনার পদক আসে মেয়েদের কারাতে ইভেন্টে। মেয়েদের অনূর্ধ্ব-৫৫ কেজি কুমি ইভেন্টে সোনা জেতেন মারজানা।

বাংলাদেশকে ১৩তম আসরে প্রথম পদক পাইয়ে দেওয়া হুমায়রা আক্তার অন্তরা বাংলাদেশ চতুর্থ সোনার পদক পাইয়ে দেন। কারাতে ৬১ কেজি কুমিতে স্বর্ণ জেতেন অন্তরা। নেপালের অনু গুরুংকে ৫-২ পয়েন্টে হারান তিনি। এরপর চারদিন বিরতি দিয়ে আজ আবারও সোনার মুখ দেখেছে বাংলাদেশ। দেশকে পঞ্চম স্বর্ণ পাইয়ে দিয়েছেন মাবিয়া আক্তার সীমান্ত। পরে ষষ্ঠ স্বর্ণ আসে জিয়ারুল ইসলামের হাত ধরে। এবার ফাতেমা জেতালেন সপ্তম স্বর্ণ পদক।

স্বর্ণ জয়ের হিসেবে গতকাল পর্যন্ত পদক তালিকার শীর্ষে আছে ভারত। ২১৪টি পদক জিতেছে ভারত। এর মধ্যে আছে ১১০টি স্বর্ণ, ৬৯টি রৌপ্য আর ৩৫টি ব্রোঞ্জ পদক। ৪৩টি স্বর্ণ, ৩৪টি রৌপ্য আর ৬৫টি ব্রোঞ্জ সহ মোট ১৪২টি পদক জিতে গতকাল পর্যন্ত দুইয়ে স্বাগতিক নেপাল। তিন নম্বরে থাকা শ্রীলঙ্কার অ্যাথলেটরা জিতেছেন ৩১টি স্বর্ণ, চারে থাকা পাকিস্তান জিতেছে ২৪টি স্বর্ণ। বাংলাদেশের আজকের স্বর্ণসহ মোট সোনার পদক দাঁড়ালো ১১টিতে। এছাড়া, ২২টি রৌপ্য আর ৫৫টি ব্রোঞ্জ নিয়ে বাংলাদেশের পদকের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৮টি।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa