bangla news

নেইমার-এমবাপ্পের ৭ মিনিটের ঝড়ে পিএসজির ফেরা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৮ ১:৪৬:৪৬ এএম
পিএসজি স্টারদের উদ্দীপনা, ছবি: সংগৃহীত

পিএসজি স্টারদের উদ্দীপনা, ছবি: সংগৃহীত

প্রথমার্ধে প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের ভাগ্যটা হেলে পড়েছিল দুর্ভাগ্যের দিকে। মুহুর্মুহু আক্রমণ সত্ত্বেও গোলের দেখা পাচ্ছিল টমাস টুখেলের আক্রমণভাগ। উল্টো আত্মঘাতী গোল হজম করে লজ্জাজনক হারের সামনে পড়তে যাচ্ছিল ফরাসি জায়ান্টরা। তবে দ্বিতীয়ার্ধে ভাগ্যের চাকা ঘুরে যায় তাদের। মাত্র সাত মিনিটের ঝড়ে মঁপেলিয়ারের মাঠে ৩-১ ব্যবধানে জিতেছে পিএসজি।

শনিবার (০৭ ডিসেম্বর) ফ্রেঞ্জ লিগ ওয়ানে মঁপেলিয়ারের মুখোমুখি হয় পিএসজি। নেইমার-কিলিয়ান এমবাপ্পে-মাউরো ইকার্দি-পাবলো সারাবিয়ারা শুরু থেকে আক্রমণের ঝড় তুলে স্বাগতিকদের বিপক্ষে। কিন্তু চেষ্টা সত্ত্বেও প্রতিপক্ষের রক্ষণদেয়াল ভাঙতে পারছিল না তারা।

এরমধ্যে ৪১ মিনিটে নিজেদের ভুলে গোল হজম করে বসে গত আসরের চ্যাম্পিয়নরা। গোলপোস্ট রক্ষা করতে গিয়ে নিজেদের জালে বল জড়িয়ে দেন পিএসজির আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার লিওয়ান্দ্রো পেরেদেস।

পিএসজি বিরতিতে যায় এক গোলে পিছিয়ে থেকে। দ্বিতীয়ার্ধে সমতায় ফেরার চেষ্টা অব্যাহত রাখে তারা। কিন্তু এবারও টুখেলের শিষ্যদের সামনে বাধা হয়ে দাঁড়ায় মঁপেলিয়ারের রক্ষণভাগ। তবে ৭২ মিনিটে সৌভাগ্যের দেখা পায় পিএসজি।

ডি-বক্সের অল্প বাইরে নেইমারকে বাজেভাবে বাধা দেওয়ায় সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন স্বাগতিকদের ডিফেন্ডার পেদ্রো মেন্দেস। এর দুই মিনিট পরই দশজনের দল হয়ে পড়া মঁপেলিয়ারের বিপক্ষে ২৫ গজ দূর থেকে নেওয়া অনবদ্য ফ্রি-কিক থেকে পিএসজিকে সমতায় ফেরান নেইমার। 

এরপরই শুরু হয় পিএসজির ঝড়। ৭৬ মিনিটে নেইমারের পাস থেকে ব্যবধানটা দ্বিগুণ করেন এমবাপ্পে। ৮১ মিনিটে ইকার্দিকে দিয়ে দলের তৃতীয় গোলটি করান এই ফরাসি ফরোয়ার্ড।

এই জয়ে ফ্রেঞ্জ লিগ ওয়ানের শিরোপা জয়ের মিশনে নেমে সিংহাসনটা ধরে রেখেছে টুখেলের দল। ১৬ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৩৯।

বাংলাদেশ সময়: ০১৪২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
ইউবি/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   নেইমার ফুটবল খেলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-08 01:46:46