bangla news

উড়ন্ত টাইগ্রেসদের বিপক্ষে ৬ রানে অলআউট মালদ্বীপ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১২-০৫ ২:৫৭:৪৪ পিএম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

এসএ (সাউথ এশিয়ান) গেমসে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে মালদ্বীপের বিপক্ষে বিশাল জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশের মেয়েরা। নিজেদের রেকর্ড ২৪৯ রানে মালদ্বীপের মেয়েদের উড়িয়ে দিয়েছে সালমা খাতুনের দলটি।

ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ২৫৫ রানের বিশাল পাহাড় গড়ে বাংলাদেশের মেয়েরা। শুরুতেই ২ উইকেট হারানো বাংলাদেশের নিগার সুলতানা ও ফারজানা হক দেখা পেয়েছেন প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরির। পরে মালদ্বীপ ১২.১ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে তোলে মাত্র ৬ রান। গতকাল ছেলেদের ক্রিকেটে এই মালদ্বীপের বিপক্ষেই ১৭৪ রান তুলেছিলেন সৌম্য সরকার-নাজমুল হোসেনরা। ১০৯ রানে জিতেছিল ছেলেরা।

শুরুতে শ্রীলঙ্কা আর দ্বিতীয় ম্যাচে নেপালকে গুঁড়িয়ে আগেই ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশের নারী দলের জন্য মালদ্বীপের বিপক্ষে ম্যাচটি নিয়মরক্ষার ম্যাচে পরিণত হয়। আর তাতে ফাইনালের আগে ব্যাটিং-বোলিয়ের প্রস্তুতিটাও ভালোই হয়েছে। স্বর্ণপদক এখন সালমা খাতুনদের নাগালের মধ্যেই বলা যায়।

নেপালের পোখারায় রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার (০৫ ডিসেম্বর) টসে জিতে ব্যাটিং করতে নেমে ১৯ রানেই দুই ওপেনার শামীমা সুলতানা ও সানজিদা ইসলামের উইকেট হারায় বাংলাদেশ নারী দল। কিন্তু এরপর মালদ্বীপের বোলারদের ওপর স্টিম রোলার চালিয়েছেন নিগার ও ফারজানা।

মাত্র ৩৫ বলে ফিফটি হাঁকানো নিগার সুলতানা প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি তুলে নেন ৫৯ বলে। আর ফারজানার প্রথম টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি আসে ৪৯ বলে। দুজনে মিলে শেষদিকে রীতিমত ঝড় তুলেছেন। এর মধ্যে শেষ পাঁচ ওভারে এসেছে ৮০ রান। আর ১৫তম ওভারে এসেছে ২৪ রান। দুজনের জুটিতে এসেছে অবিচ্ছিন্ন ২৩৬ রান। 

শেষ পর্যন্ত ১১৩ রানে অপরাজিত থাকা নিগার সুলতানার ৬৫ বলের ইনিংসটি ১৪টি চার ও ৩টি ছক্কায় সাজানো। আর ৫৩ বলে ১১০ রানে অপরাজিত থাকা ফারজানার ইনিংসটি সাজানো ২০টি চারে। মালদ্বীপের হয়ে একমাত্র উইকেটটি নিয়েছেন শাম্মা আলী।

ব্যাটিংয়ে নেমে মালদ্বীপের ৮ ব্যাটারই ফেরেন ০ রানে। রিতু মনি ৪ ওভারে তিন মেডেন নিয়ে মাত্র ১ রান দিয়ে তুলে নেন তিনটি উইকেট। সালমা খাতুন ৩.১ ওভারে ২ রানে তিনটি উইকেট পান। সর্বোচ্চ ২ রান করেন শাম্মা আলী। রাবেয়া আর নাহিদা একটি করে উইকেট তুলে নেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৯
এমএইচএম/এমআরপি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-12-05 14:57:44