bangla news

ভারত না থাকায় বাংলাদেশের সম্ভাবনা বাড়লো

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১৯ ৭:১৩:৩৩ পিএম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আগামী ১-১০ ডিসেম্বর নেপালের কাঠমান্ডু ও পোখারায় অনুষ্ঠিত হবে দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এসএ গেমস। ‘দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিক’ খ্যাত এই ইভেন্টের ফুটবলে অংশ নেবে না ভারত। ভারত অংশ না নেয়ায় ফুটবলে সোনা জয়ের সম্ভাবনা আরো বাড়লো বাংলাদেশের।

এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হতেই অংশ নেবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল। সিনিয়র কোটায় নেয়া যাবে ৩ জন খেলোয়াড়। অনূর্ধ্ব-২৩ দলের সিনিয়র কোটার খেলোয়াড় হিসেবে নেয়া হতে পারে ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান, মিডফিল্ডার ও জাতীয় দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া ও আক্রমণভাগের খেলোয়াড় নাবিব নেওয়াজ জীবনকে।

ভারতের এই আসরে অংশ না নেওয়ার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ। ভারত না খেলায় এবারের গেমসে ফুটবলে অংশ নেবে ৬ দেশ। বাংলাদেশ ছাড়াও থাকছে পাকিস্তান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, ভুটান ও স্বাগতিক নেপাল।

২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত সবশেষ এসএ গেমসের ফুটবলে রুপা জিতেছিল ভারত। এখন পর্যন্ত তিনবার সোনা জিতেছে ভারত। এসএ গেমসের ফুটবলে সবচেয়ে বেশিবার সোনা জিতেছে পাকিস্তান (৪ বার)। ভারত ও নেপাল জিতেছে তিনবার। আর বাংলাদেশ স্বর্ণ জিতেছে দুইবার। ১৯৯৯ সালের পর ২০১০ সালে চ্যাম্পিয়ন হয় লাল-সবুজরা।

১৯৮৫ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় সাফ গেমসে প্রথমবারের মতো ফুটবলে অংশ নিয়েছিল ভারত। সেবার টাইব্রেকারে বাংলাদেশকে হারিয়ে সোনার পদক জেতে তারা। সবর্শেষ এসএ গেমসের সেমিফাইনালে ভারতের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল বাংলাদেশ।

এসএ গেমসের জন্য বাংলাদেশের প্রস্তুতি শুরু হবে দুয়েকদিনের মধ্যে। ফুটবলের গ্রুপিং ও ফিকশ্চার আগামী শুক্রবার কাঠমান্ডুতে হবে বলে জানিয়েছেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০১৯
এমআরপি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-19 19:13:33