bangla news

সুবিধাজনক অবস্থানে রাজশাহী-খুলনা 

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১৭ ৬:০৯:৫১ পিএম
ঢাকার বিপক্ষে ব্যাট করছে খুলনা বিভাগ: ফাইল ফটো

ঢাকার বিপক্ষে ব্যাট করছে খুলনা বিভাগ: ফাইল ফটো

জাতীয় ক্রিকেট লিগে (এনসিএল) টায়ার-ওয়ানে দ্বিতীয় দিনটা নিজেদের করে নিয়েছে রাজশাহী ও খুলনা বিভাগ। দুই বিভাগই আভাস দিচ্ছে বড় সংগ্রহের। 

রোববার (১৭ নভেম্বর) শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে এনসিএলের ষষ্ঠ রাউন্ডে রংপুর বিভাগের বিপক্ষে দ্বিতীয় দিন প্রথম ইনিংস শুরু করে অভিষেক মিত্র ও অধিনায়ক ফরহাদ হোসেনের ফিফটিতে ৫ উইকেটে ২২৪ রান করেছে স্বাগতিক রাজশাহী। আগামীকাল ৫০ রানে পিছিয়ে থেকে তৃতীয় দিন শুরু করবে তারা। 

এর আগে দিনের ২৭৪ রানে শেষ হয়ে যায় রংপুরের প্রথম ইনিংস। আগেরদিনের ৮ উইকেটে ২৬৩ রানের সংগ্রহ নিয়ে খেলতে নেমেছিল তারা। কিন্তু শুরুতেই তানভীর হায়দার (২৬) ও সাজেদুল ইসলামকে (০) সাজঘরে ফেরত পাঠান মোক্তার আলী। রিশাদ হোসেন অপরাজিত ছিলেন ৮ রানে। 

প্রথম ইনিংস শুরু করে ওপেনার মিজানুর রহমানকে (২) হারালেও দলের ওপর চাপ পড়তে দেননি অভিষেক। জুনাঈদ সিদ্দীকি (৩৭) ও ফরহাদের সঙ্গে জুটি গড়ে দলকে শক্ত অবস্থানে নিয়ে বিদায় হোন তিনি। আরিফুল হকের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৬৭ রান করেছেন অভিষেক।

এরপর দায়িত্বটা বুঝে নেন ফরহাদ। আরিফুলের দ্বিতীয় ‍শিকার হওয়ার আগে ১২৯ বলে ১০ চারে ৭৫ রানের ইনিংস খেলেন তিনি। এর পরপরই আরিফুল তৃতীয় শিকার বানান শাকির হোসেনকে (২)। আগামীকাল তৃতীয় দিন শুরু করবেন রাজশাহীর দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান (২২) ও মোক্তার (০)। 

টায়ার-ওয়ানের আরেক ম্যাচে ঢাকা বিভাগের বিপক্ষে লিড নেওয়ার পথে খুলনা বিভাগ। স্বাগতিকরা প্রথম ইনিংসে ৩ উইকেটে ২৫২ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে। ঢাকার চেয়ে তারা পিছিয়ে আছে ২৭ রানে। তাইবুর রহমানের সেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংসে ২৭৯ রান সংগ্রহ করে ঢাকা। 

খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় দিন শুরু করেছিলেন শুভাগত হোম ও নাজমুল ইসলাম। কিন্তু আগের দিনের ৭ উইকেটে ২৭৩ রানের সঙ্গে আর মাত্র ৬ রান যোগ হতেই শেষ হয়ে যায় তাদের ইনিংস। শুভাগতকে ৬০ রানে বোল্ড করেন মঈনুল ইসলাম। এরপরেই নাজমুল (৫) ও মোহাম্মদ শহীদকে (১) সাজঘরে ফেরান জিয়াউর রহমান। শাহাদাত হোসেন (০) অপরাজিত ছিলেন। 

প্রথম ইনিংস শুরু করে ওপেনিং জুটিতেই ৮২ রান তুলে ফেলে খুলনা। অবশেষে রবিউল ইসলাম রবি ও এনামুল হক বিজয়ের সেই ভয়ঙ্কর জুটি ভাঙেন শুভাগত। ৫০ রানে সাজঘরে ফেরেন বিজয়। এরপর অমিত মজুমদারকে (২১) দ্বিতীয় শিকার বানান শুভাগত। ধীর-স্থির ব্যাটিং করে ৪৫ রানে আউট হোন রবি। 

তবে এরপর আর কোনো উইকেট পড়তে দেননি তুষার ইমরান ও অধিনায়ক-উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান। দুজনই তুলে নেন ফিফটি। আগামীকাল তৃতীয় দিনও শুরু করবেন তুষার (৭৫) ও নুরুল (৫৬)।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
ইউবি 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-17 18:09:51