bangla news

রিমা জুফফালি: সৌদি আরবের প্রথম নারী রেসার

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-১৪ ১:২৬:২৯ পিএম
রিমা জুফফালি/ছবি: সংগৃহীত

রিমা জুফফালি/ছবি: সংগৃহীত

ক্রীড়াক্ষেত্রে নতুন নতুন মাইলফলক গড়ে চলেছে সৌদি আরব। রক্ষণশীল এই দেশে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে ঘোড়দৌড়, রেসলিংয়ের মতো ইভেন্ট। দেশটির নারীদেরও ক্রীড়াক্ষেত্রে অংশগ্রহণ বাড়ছে। সম্প্রতি সৌদি নারীদের গাড়ি চালানোর অনুমতি মিলেছে। আর এবার প্রথম সৌদি নারী হিসেবে নিজ দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক কার রেসিং সিরিজে অংশ নিয়ে ইতিহাস গড়তে চলেছেন রিমা জুফফালি নামের এক রেসার।

জুফফালি ২০১৮ সালের অক্টোবরে প্রতিযোগিতামূলক রেসিংয়ে ক্যারিয়ার শুরু করেন। এর কয়েক মাস আগে নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সৌদি সরকার। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই দারুণ পারফর্ম করার ফলশ্রুতিতে রিয়াদে অনুষ্ঠেয় দিরিইয়াহ ই প্রিক্স’র সাপোর্ট রেস ‘দ্য জাগুয়ার আই-পিএসিই ইট্রফি সিরিজ’-এ ভিআইপি ড্রাইভার হিসেবে অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন তিনি।

চলতি মাসের শেষদিকে সৌদি আরবের দিরিইয়াহ সার্কিটে বসতে চলেছে আন্তর্জাতিক রেসিং সিরিজের আসর। তবে এই সিরিজে অংশ নেওয়ার কারণে সৌদি রক্ষণশীলদের রোষানলে পড়েছেন জুফফালি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তাকে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের ঝড় বয়ে যাচ্ছে। 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ‘সানস্পোর্ট’কে জুফফালি বলেন, “অনেক পুরুষ আমাকে কটাক্ষ করে বলেছেন ‘এটা (রেসিং) নারীদের জায়গা নয়’। অনেক পুরুষ আবার আমার পক্ষেও বলেছেন। এসব তাদের দৃষ্টিতে হয়ত ঠিক আছে। তারা হয়ত এভাবেই ভাবে এবং তারা এভাবেই বেড়ে ওঠেছে। অনেকে বলেন আমার এটা করা উচিত না। তবে এসব আমাকে প্রভাবিত করতে পারেনি।”

সমালোচনায় বিরক্ত হলেও অবশ্য মাথা ঠাণ্ডা রাখছেন তিনি, “অনেকেই হয়ত সমালোচনার জবাবে বলবে ‘আপনি অশিক্ষিত’। কিন্তু আমি অন্যদের সঙ্গে এভাবে কথা বলব না। আমি এটা করছি কারণ এটা চ্যালেঞ্জিং আর এটা আমাকে আনন্দ দেয়। একইসঙ্গে আমি অনেককে প্রভাবিত করতে পারছি এটাও দারুণ এবং এটা যদি নেতিবাচক হয় তবে সেটা তাদের ক্ষতি- আমি যা ভালোবাসি তা আমি করে যাব।”

গত বছরের অক্টোবরে আবুধাবির ইয়াস ম্যারিনা সার্কিটে অনুষ্ঠিত ‘টিআরডি ৮৬ কাপ’-এ প্রথম সৌদি নারী হিসেবে অংশ নিয়ে ইতিহাস গড়েছিলেন জুফফালি। সেবার সিলভার ক্যাটাগরিতে দ্বিতীয় আর সবমিলিয়ে চতুর্থ স্থান অর্জন করেছিলেন ২৭ বছর বয়সী এই নারী। সর্বশেষ তিনি ভারতে অনুষ্ঠিত ‘এমআরএফ চ্যালেঞ্জ’-এ অংশ নিয়েছিলেন।

ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক রেসে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাওয়ায় উচ্ছ্বসিত জুফফালি বলেন, ‘আমি এই রেসের দ্বিতীয় আসরে জাগুয়ার আই-পিএসিই ইট্রফি’র ভিআইপি ড্রাইভার হতে পারায় শিহরিত। ঘরের মাটিতে প্রথমবারের মতো ট্র্যাক রেসিংয়ে নামার জন্য আমার তর সইছে না। এই সিরিজ মোটরস্পোর্টে নতুনত্ব আনতে চলেছে, যেখানে দুর্দান্ত কিছু ইলেক্ট্রিক কার নিয়ে পুরুষ ও নারীরা লড়াই করার সমান সুযোগ পাবে।’

সৌদি নারীদের জন্য সম্ভাবনার নতুন পথ দেখানো জুফফালিকে অনেকে পরবর্তী ‘লুইস হ্যামিল্টন’ বলে ডাকেন। এই বয়সেই কিংবদন্তিদের সঙ্গে নাম জুড়ে যাওয়া তো চাট্টিখানি কথা নয়! জুফফালি মনে করেন, তার দেখানো পথে হাঁটবে অনেক সৌদি নারী আর রক্ষণশীলতার বাধা পেরিয়ে ক্রীড়াক্ষেত্রে রাখবে উজ্জ্বল ভূমিকা।

বাংলাদেশ সময়: ১৩২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-14 13:26:29