bangla news

নিজেকে আরও পরিণত করতে চান মিরাজ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১১-০৭ ৬:১৮:১১ পিএম
ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

সাকিব-তামিম ছাড়াই ভারতের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। তবে সংক্ষিপ্ত এই ফরম্যাটের পর টাইগারদের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ হবে টেস্ট সিরিজ। সেজন্য টাইগারদের মানসিকভাবে প্রস্তুত থাকার কথা জানিয়েছেন টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক।

সাকিব ছাড়া বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিংটা বেশ খাপছাড়া মনে হয়। বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মাদের আটকাতে হলে স্পিন দিয়েই কাবু করতে হবে। সাকিবের অনুপস্থিতিতে সেই চাপ নিতে হবে মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলামকেই।

টেস্ট সিরিজের জন্য মিরাজ নিজেকে ভালোভাবেই প্রস্তুত করেছেন। বৃহস্পতিবার (০৭ নভেম্বর) মিরপুরে একাডেমি মাঠে অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন নিজেকে আরও বেশি পরিণত করে দীর্ঘ দিন ক্রিকেট খেলতে চান তিনি। আলাদা করে নিজের দুর্বলতা নিয়ে কাজও করেছেন তিনি।

মিরাজ জানালেন, ‘আমি শেষ এক সপ্তাহ খুব ভালো একটা ট্রেনিং করেছি। আমি ফিজিক্যাল ও ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি, জিম-রানিং এবং বোলিং-ব্যাটিং দুটোই করেছি। বিশেষ করে আমার কোন জায়গায় ঘাটতি আছে সেই জায়গা গুলো নিয়ে কাজ করেছি। বোলিং-ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ফিটনেস নিয়েও কাজ করেছি। ভারতে যাওয়ার আগে আমার এরকম একটা প্রস্তুতি দরকার ছিল, আর অবশ্যই আমার নিজের জন্য ভালো হবে যদি এটা মাঠে প্রয়োগ করতে পারি। শতভাগ দিতে পারলে আমার জন্য ভালো হবে।’

মিরাজ আরও জানান, ‘আমি গত দুই-আড়াই বছর তিন ফরম্যাটেই খেলছি। এখন হয়তো টেস্ট দলে আছি, তবে আমার কাছে মনে হয় যে সময়টা পেয়েছি আমি নিজেকে আরও পরিপূর্ণ ক্রিকেটার হিসেবে তৈরি করতে পারছি। কারণ গত ১০-১২ দিন যে কাজটা করেছি এমন সুযোগ আগে থেকেই চাচ্ছিলাম। একটা সময় নিয়ে ব্যাটিং-বোলিং-ফিজিক্যাল যে ঘাটতি রয়েছে সেগুলো ইনপ্রুভ করার জন্য লম্বা সময় দরকার। আমি তো চাই লম্বা সময় ক্রিকেট খেলতে।’

ক্যারিয়ার দীর্ঘ করতে এই অনুশীলনগুলো কাজে লাগবে বলে মনে করেন মিরাজ, ‘লং টাইম খেলার জন্য শারীরিক ফিটনেস স্কিল অনেক ডেভেলপ করতে হয়। কারণ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট যখন খেলি তখন এক জায়গায় পড়ে থাকলে টিকে থাকতে পারবো না। দিনে দিনে অনেক উন্নতি করতে হবে এবং অনেক ওপরে যেতে হবে। এই সময়টা আমার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ, এটা আমি হয়তো কাজে লাগাতে পারবো সামনের দিনগুলোতে। এসব ছোট ছোট জিনিস নিয়ে আমি যে কাজ করেছি, এগুলো এক সময় কাজে লাগবে বলে আমি মনে করি।’

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৭, ২০১৯
আরএআর/এমআরপি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-11-07 18:18:11