bangla news

কোহলির জীবনে ‘সুপার হিরো’ কে?

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২৭ ৫:৪৭:০২ পিএম
বিরাট কোহলি ও তার বাবা প্রেম কোহলি (ডানে)/ছবি: সংগৃহীত

বিরাট কোহলি ও তার বাবা প্রেম কোহলি (ডানে)/ছবি: সংগৃহীত

কোটি কোটি ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীর কাছে বিরাট কোহলি ‘সুপার হিরো’। কিন্তু ভারতীয় অধিনায়কের কাছে বাস্তব জীবনের ‘সুপার হিরো’ তার বাবা প্রেম কোহলি।

বিরাট কোহলির জীবনী নিয়ে তৈরি হলো অ্যানিমেটেড সিরিজ ‘সুপার ভি’, যা ৫ নভেম্বর বেশ কিছু টেলিভিশন চ্যানেলে দেখানো হবে। শনিবার (২৬ অক্টোবর) মুম্বাইয়ে অ্যানিমেটেড সিরিজটি উন্মোচন করার সময় কোহলিকে জিজ্ঞাসা করা হয়, তার বাস্তব জীবনে সুপার হিরো কে? এর জবাবে তিনি বলেন, ‘আমার ক্যারিয়ারের পথ চলা সহজ হয়েছে বাবার দিক-নির্দেশনার জন্য। তিনিই আমার সুপার হিরো।’

কোহলি বলেন, ‘অনেকেই আপনাকে উৎসাহিত বা অনুপ্রাণিত করতে পারে, কিন্তু কেউ যখন আপনার সামনে উদাহরণ স্থাপন করেন, তখন তার প্রভাব ভিন্ন হয়। আমার বাবা ঠিক এমনটাই করেছিলেন। বাবার ব্যক্তিত্ব ও দিক-নির্দেশনা সবসময় আমাকে মনে করিয়ে দিত, সামনের দিকে এগিয়ে যেতে কঠোর পরিশ্রম ব্যতীত অন্য কোনো বিকল্প পথ নেই।’

'এসব কারণে বাবা আমার জীবনের সুপার হিরো। তার দেখানো পথে চলেছি বলে আমি সফল হতে পেরেছি। আমি যদি সফল হই তাহলে তা আমার ভাগ্যে ছিল আর যদি ব্যর্থ হই তাহলে আমার ঘাটতি ছিল। এরপর থেকে আমি অনুযোগ করা বন্ধ করলাম এবং এটা আমার বাবার জন্যই সম্ভব হয়েছে, যা আমি নিজ চোখে দেখেছি এবং তাই তিনি আমার সুপার হিরো,' জানালেন বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যান।

কোহলি শুধু বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যানই নন, তিনি টেস্ট র‍্যাংকিংয়ের ভারতের প্রথম স্থান অধিকারেও বড় ভূমিকা রেখেছেন। ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে তিনি যখন টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্ব নেন, ভারত র‍্যাংকিংয়ের সপ্তম স্থানে ছিল। শুধু ওয়েস্ট ইন্ডিজ, বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়েই ছিল ভারতের নিচে। নিজের অসাধারণ নেতৃত্বগুণ দিয়ে সেই ভারতীয় দলকে আজ তিন ফরম্যাটেই বিশ্বের অন্যতম সেরা দলে পরিণত করেছেন কোহলি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৭, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট বিরাট কোহলি
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-27 17:47:02