bangla news

‘জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দিলে মোটিভেশনের দরকার হয় না’

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-২১ ৮:৩৯:৪৩ পিএম
সবার বামে ইব্রাহিম

সবার বামে ইব্রাহিম

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপে প্রথমবারের মতো মাঠে নামতে যাচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) ‘বি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে তারা মুখোমুখি হবে ভারতের গোকুলাম কেরালা এফসি’র বিপক্ষে। তার আগে বন্দর মাঠে অনুশীলন সেরেছে অস্কার ব্রুজনের শিষ্যরা।

অবশ্য নতুন এই চ্যালেঞ্জের আগে বেশ আত্মবিশ্বাসী দেখা গেলো কিংসের মিডফিল্ডার মোহাম্মদ ইব্রাহিমকে। ২২ বছর বয়সী এই মাঝমাঠের তারকা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই বলেন, ‘আসলে, শেখ কামাল টুর্নামেন্ট মানে প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক টুর্নামেন্ট। বসুন্ধরা কিংস গতবারের বিপিএল চ্যাম্পিয়ন। সেই হিসেবে আমরা শেখ কামাল টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ পেয়েছি। এখানে তো সব লিগের চ্যাম্পিয়ন দলরাই আসছে। ইনশাল্লাহ, ভালো রেজাল্ট করবো আমরা।’

সামনে এএফসি কাপ। তার আগেই শেখ কামাল ক্লাব কাপে খেলে আন্তর্জাতিক চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করছে বসুন্ধরা কিংস। অবশ্য ইতোমধ্যে আগামী মৌসুমের বিপিএলের জন্য দল গুছিয়েছে বসুন্ধরা কিংস। সেই ব্যাপারে ইব্রাহিম বলেন, ‘আমাদের দলের কর্মকর্তারা চেয়েছেন আগের চেয়ে ভালো দল করতে। সেই লক্ষ্যে জাতীয় দলের ম্যাক্সিমাম খেলোয়াড় আছে আমাদের। আশা করছি, অন্যান্য দলের চেয়ে আমাদের দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দিকে এগিয়ে থাকবে।’

সতীর্থদের কাছে উৎসাহ পাওয়ায় আনন্দিত ইব্রাহিম। কেবল তাই নয়, জাতীয় দলের জার্সিতে একে অপরের সঙ্গে বোঝাপড়াটা সাহায্য করবে বলে মনে করেন তিনি, ‘সবচেয়ে অনুপ্রেরণার বিষয় হলো, এখানে আমাদের বোঝাপড়াটা ভালো হচ্ছে দিনদিন। জাতীয় দলের অনেককে পাচ্ছি। আপনি দেখবেন, জাতীয় দলের ম্যাক্সিমাম খেলোয়াড় এখন বসুন্ধরা দলে। এটা যেমন জাতীয় দলের জন্য ভালো তেমনি আমাদের ক্লাবের জন্যও ভাল। আমাদের বোঝাপড়া ভাল হচ্ছে দিনদিন।’

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে সল্টলেকে ভারতের বিপক্ষে জয়টা প্রায় হাতের মুঠোয় নিয়ে এসেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু শেষ মুহূর্তে গোল হজম করায় ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় জেমি ডে’র শিষ্যদের। সেই ম্যাচে শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলেছিলেন ইব্রাহিম। ফরোয়ার্ডদের বল এগিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি রক্ষণও সামলেছেন তিনি। সেই ম্যাচের অভিজ্ঞতার দুয়ারও খুলে দেন তিনি, ‘জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দিলে কোনো মোটিভেশনের দরকার হয় না। জার্সি যখন গায়ে থাকে আমার মনে হয় না কোনো মোটিভেশনের দরকার আছে তখন। কারণ আপনি দেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘এতগুলো দর্শকের মাঝে আমরা আগে কখনো খেলিনি। যেহেতু এতগুলো দর্শকের সামনে এটা আমাদের প্রথম ম্যাচ তাই আমরা ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখতে চেয়েছিলাম। ইনশাল্লাহ, আমরা সেটা করছিও। আমরা উপভোগ করেছি অনেক। আসলে ম্যাচে একটি পেনাল্টি পাওয়া উচিৎ ছিল আমাদের। আসলে রেফারি কি কারণে দেয়নি তা বুঝতে পারিনি।’

সেইসঙ্গে ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশ যে ভালো খেলছে এবং সামনেও যেন লেভেলটা ধরে রাখতে পারে সেই ব্যাপারে ইব্রাহিম বলেন, ‘আসলে, এরকম একটা ম্যাচ, একটা ম্যাচ নয়, দুইটা ম্যাচ। এরকম ম্যাচ খেলার পরে কনফিডেন্স লেভেল অনেক উচ্চে চলে যায়। এখন আমাদের উচিৎ এই লেভেলটা ধরে রাখা। এটা যদি আমরা ড্র করি তাহলে এটার কোনো মূল্য থাকবে না। চেষ্টা করবো এই লেভেল ধরে রাখার জন্য।’

জাতীয় দলের হয়ে টানা খেলে যাওয়া শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের ম্যাচে কোনো প্রকার ক্লান্তি অনুভব করবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে ‘না’ উত্তর দিয়েছেন ইব্রাহিম। বলেন, ‘না, করবো না আশা করি।’

ইব্রাহিমের জন্ম চট্টগ্রাম বিভাগের কক্সবাজার জেলায়। ঘরের দর্শকদের তিনি আহ্বান করেছেন এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে এসে শেখ কামাল ক্লাব কাপ উপভোগ করার জন্য, ‘আঁই চিটাইঙ্গে পোয়া, আশা গরি অনরা খেলা চাইতো আইবেন, বসুন্ধরা কিংসরে উৎসাহ দিবল্লাই। আঁরারে উৎসাহ দিবল্লাই।’

বাংলাদেশ সময়: ২০২৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০১৯
ইউবি/এমএমএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-21 20:39:43