ঢাকা, সোমবার, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

কাঁদলেন নাফিসা কামাল, থাকতে চান বিপিএলে

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-১৩ ৫:৩৮:১৮ পিএম
সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন নাফিসা কামাল/ছবি: সংগৃহীত

সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন নাফিসা কামাল/ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএলের সপ্তম আসরে কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকছে না। বিসিবির নিজস্ব আয়োজনে আসরটির নাম দেওয়া হবে বঙ্গবন্ধু বিপিএল ২০১৯। বিসিবি’র এমন আকস্মিক সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে আবেগ সংবরণ করতে না পেরে কেঁদেই ফেলেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের চেয়ারপারসন নাফিসা কামাল। সেই সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর নামে বিপিএল আয়োজনের অংশ হওয়ার আগ্রহও প্রকাশ করেন তিনি।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সংবাদ মাধ্যমে নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন নাফিসা কামাল। এরপর কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে ‘চেয়ারপারসন নাফিসা কামালের বার্তা’ ক্যাপশনে একটি ভিডিও আপলোড করা হয়। সেই ভিডিওতে নাফিসা কামালকে বলতে শোনা যায়, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এবার বিপিএল তার নামে আয়োজিত হতে যাচ্ছে। এজন্য আমি বোর্ড প্রেসিডেন্টকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, দেশ মানেই বঙ্গবন্ধু, পতাকা মানেই বঙ্গবন্ধু। তার নামে এবার বিপিএল হচ্ছে। আমরাও চাই আমাদের টিম নিয়ে যেন পতাকাটা ওড়াতে পারি। আমি চাই ক্রিকেট বোর্ড এই টুর্নামেন্টটা আরও সুন্দরভাবে আয়োজন করুক। আমরা অবশ্যই পরিপূর্ণ সহোযোগিতার প্রস্তাব দেবো ক্রিকেট বোর্ডকে।’

বিসিবি’র সিদ্ধান্তে হতাশা প্রকাশ করে আবেগতাড়িত কণ্ঠে নাফিসা বলেন, ‘অনেক বছর ধরে বিপিএল করে আসছি, মালিকদের মধ্যে আমি সবচেয়ে পুরোনো। অনেক বাধা অতিক্রম করে বিপিএলটা আমাকে করতে হয়েছে। যখন জানতে পারলাম, আমাদের টিম এ বছর মাঠে যাবে কিন্তু এটা আমাদের হাতে হবে না বা আমি এটার সাথে জড়িত থাকব না কিংবা এতগুলো মানুষ যারা আমাকে এতদিন সার্পোট দিয়ে আসছে তারা কেউ মাঠে নামবে না, এটা শোনার পর আমার জন্য বিষয়টি মেনে নেওয়া কষ্টকর ছিল।’

কথা বলার সময় বেশ কয়েকবার চোখ মুছতে দেখা যায় নাফিসা কামালকে।

আগামী বছর পালন করা হবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী। এজন্য বিসিবি বিভিন্ন পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রথম পদক্ষেপ হলো বিপিএল। বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) মিরপুরে বিসিবি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন।

আসছে ডিসেম্বরে বিপিএল মাঠে গড়াবে। তবে একই বছর দুটি আসর করা হলে তা ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর জন্য কষ্টসাধ্য হবে বলে জানান মালিকরা। এছাড়া আরও বেশ কয়েকটি ব্যাপারে ফ্রাঞ্চাইজি দাবি জানিয়েছে যাতে বিসিবি’র আপত্তি রয়েছে। ফলে বিসিবি এবারের আসরটি সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে আয়োজন করবে বলে জানায়। তবে স্পন্সররা কোনো দলের প্রতি আগ্রহ দেখালে সেটিতে বাধা দেবে না বাংলাদেশ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এই সংস্থা।

এ প্রসঙ্গে পাপন বলেন, ‘বিপিএলের প্রথম পর্ব শেষ হয়ে গেছে, এখন ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে নতুন চুক্তি করার কথা। সেজন্য তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলাম। কিছু কিছু ফ্র্যাঞ্চাইজি বেশ কিছু দাবি জানিয়েছে, যেটা বিপিএলের নিয়মের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। আবার কিছু কিছু ফ্র্যাঞ্চাইজি চায় না যে এক বছরে দুই বিপিএল হোক, এটা তাদের জন্য চাপ হয়ে যায়। সবকিছু চিন্তা করে আমরা ঠিক করেছি এবারের বিপিএল আমরা নিজেরাই চালাবো। আমরা কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিতে যাচ্ছি না। বিপিএলের সকল খরচ বহন করবো এবারের আসরে। বিপিএলের সবকিছুই ঠিক থাকবে শুধু সকল ব্যবস্থাপনা করবে বিসিবি।’

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বিপিএল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-09-13 17:38:18