bangla news

খালি হয়ে যাচ্ছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ঘর!

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-২৯ ৬:২৩:৫৪ পিএম
লুকাকু ও সানচেজ: ছবি-সংগৃহীত

লুকাকু ও সানচেজ: ছবি-সংগৃহীত

চলতি মৌসুমের শুরুতে বেশ ফাঁপরে পড়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এমনিতে গত দুই ম্যাচে পয়েন্ট খুইয়ে প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার পঞ্চম স্থানে নেমে গেছে তারা। তার মধ্যে ওল্ড ট্রাফোর্ড ছাড়ার মিছিলে সামিল হচ্ছেন একের পর এক তারকা। 

রোমেলু লুকাকো আগেই চলে গেছেন। ইতোমধ্যে ইতালিয়ান সিরি আ’তে খেলার স্বপ্ন পূরণ করেছেন বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড। ইন্টার মিলানের হয়ে অভিষেকে গোল করে আভাস দিয়েছেন নতুন কিছু করার। নিজেদের ইতিহাসে ট্রান্সফার ফি’র রেকর্ড গড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে নেরাজ্জুরিরা লুকাকুকে দলে ভিড়িয়েছে। 

ইতালিয়ান ক্লাবগুলোর থাবা পড়েছে আলেক্সিস সানচেজের উপরও। ওল্ড ট্রাফোর্ডের নরওয়েজিয়ান কোচ ওলে গানার সুলশার চিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে বিভিন্ন প্রলোভনে ধরে রাখতে চেয়েছিলেন। এমনকি নিয়মিত একাদশে খেলানোর আশ্বাসও দিয়েছিলেন। কিন্তু তাতেও চিড়ে ভিজেনি। 

লুকাকুর পর সানচেজকেও সান সিরোতে নিয়ে আসছে ইন্টার মিলান। অবশ্য ৩০ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড ওল্ড ট্রাফোর্ড ছেড়ে ইতালিতে যাচ্ছেন ধারে। ইতোমধ্যে সান সিরোতে এসে পৌঁছেছেন সানচেজ। ইউনাইটেডের চিলিয়ান তারকাকে উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছেন নেরাজ্জুরি সমর্থকরা। 

প্রিয় দুই তারকাকে হারানোর কষ্ট সামলে ওঠার আগে আরেকটি দুঃসংবাদ শুনতে হচ্ছে রেড ডেভিল সমর্থকদের। লুকাকু-সানচেজের পথে হাঁটছেন ঘরের ছেলে ক্রিস স্মলিং-ও। অবশ্য অ্যান্তোনিও কন্তের শিবিরে যোগ দিচ্ছেন না ইংলিশ সেন্টার-ব্যাক। ওল্ড ট্রাফোর্ডের পুরনো মুখকে ৩ মিলিয়ন ইউরো ট্রান্সফার ফি’তে ধারে নিয়ে যাচ্ছে ইতালির আরেক ক্লাব এএস রোমা। দু’পক্ষ রাজি থাকলে রোমান গ্ল্যাডিয়েটররা হয়তো ২৯ বছর বয়সী ডিফেন্ডারকে স্থায়ীভাবে রেখেও দিতে পারে। 

সানচেজ-স্মলিংয়ের ওল্ড ট্রাফোর্ড ছাড়ার মধ্যেও থেমে নেই পল পগবাকে নিয়ে গুঞ্জন। জিনেদিন জিদান দ্বিতীয় মেয়াদে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আসার পর সে গুঞ্জনের ডালপালা আরো মেলেছে। রিয়াল মাদ্রিদ এখনও বিশ্বকাপজয়ী ফরাসি মিডফিল্ডারকে দলে নেওয়ার জন্য ভেতরে ভেতরে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আর তা হলে সৈনিকহীন হয়ে পড়বে ওল্ড ট্রাফোর্ড। 

নিজেদের ছেলেদের একের পর এক বিদায় জানালেও রেড ডেভিলরা নতুন মৌসুমে তেমন কোনো বড় তারকাকে নিয়ে আসেনি। জুভেন্টাস থেকে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালাকে আনার কথা থাকলেও শেষ পযর্ন্ত তা ভেস্তে গেছে। এমনকি টটেনহাম থেকে ফার্নান্দো লরেন্তেকে নেওয়ার ব্যাপারেও ভাবছিল ম্যানইউ। কিন্তু কোচ সুলশার সেই পথে হাঁটেননি। 

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৩ ঘণ্টা, আগস্ট ২৯, ২০১৯
ইউবি 

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফুটবল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-29 18:23:54