ঢাকা, শনিবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০, ২৪ জিলহজ ১৪৪১

ফুটবল

আনসু ফাতি: বার্সার ১০০ মিলিয়ন ইউরোর ‘শিশু’!

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৮ ঘণ্টা, আগস্ট ২৭, ২০১৯
আনসু ফাতি: বার্সার ১০০ মিলিয়ন ইউরোর ‘শিশু’! 'শিশু' ফাতি এখন রীতিমত তারকা-ছবি: সংগৃহীত

বয়স মাত্র ১৬ বছর ২৯৯ দিন। এই বয়সেই বার্সেলোনার জার্সিতে মাঠে নেমে ইতিহাস গড়েছেন আনসুমান ফাতি। রোববার (২৫ আগস্ট) রিয়াল বেতিসের বিপক্ষে ১৫ মিনিটের জন্য মাঠে নেমেছিলেন এই ফরোয়ার্ড। ১৯৪১ সালের পর লা লিগায় সবচেয়ে কম বয়সী ফুটবলার হিসেবে অভিষেক হওয়ার কীর্তি এখন ‘লা মেসিয়া’ থেকে উঠে আসা এই টিনএজ তারকার দখলে।

এর আগে লা লিগায় সবচেয়ে কম বয়সী ফুটবলার ছিলেন কাতালানদেরই সাবেক তারকা ভিসেন্স মার্তিনেজ। ১৯৪১ সালে অভিষেকের সময় সাবেক স্প্যানিশ ফুটবলারের বয়স ছিল ১৬ বছর ২৮০ দিন।

আফ্রিকার দেশ গিনি-বিসাউয়ে জন্মগ্রহণকারী ফাতি বার্সেলোনার ৫-২ ব্যবধানে জয়ের ম্যাচ শেষ হওয়ার ১৫ মিনিট আগে কার্লেস পেরেসের পরিবর্তে মাঠে নামেন। জুটি গড়েন ফরাসি ফরোয়ার্ড আঁতোয়া গ্রিজম্যানের সঙ্গে।  

তবে সবচেয়ে বড় কথা হলো, ফাতিকে নেওয়া হয়েছিল লিওনেল মেসির জায়গায়! পরে সবচেয়ে স্মরণীয় অভিনন্দনটা ফাতি পেয়েছেন ইনজুরি আক্রান্ত বার্সা অধিনায়কের কাছ থেকেই। ম্যাচ শেষে ফাতিকে জড়িয়ে ধরে মেসি বলেন, ‘লা মাসিয়ার সন্তানদের স্বপ্ন পূরণ হতে দেখে আমি আনন্দিত। ’

এমন অবিশ্বাস্য অর্জন ঠিক বিশ্বাস করতে পারছিলেন না ফাতি। ম্যাচ শেষে তাই অকপটে বললেন, ‘ম্যাচ শেষে আমি কিছুক্ষণ মাঠেই দাঁড়িয়ে ছিলাম কারণ আমি এটা বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। ’

বোরি ফাতি, আনসুর বাবা পরে সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘এটা আমার জীবনের সবচেয়ে আনন্দের দিন। আনসু যখন বলল যে, আর্নেস্তো ভালভার্দে তাকে ডেকেছে, এটা শুনে আমি ও আমার স্ত্রী দুজনেই কেঁদে ফেলেছিলাম। এমনকি আমরা মাঠে গিয়েও বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। মনে হচ্ছিল, আমরা স্বপ্ন দেখছি। ’

মাত্র ১০ বছর বয়সে বার্সেলোনার খেলোয়াড় গড়ার প্রতিষ্ঠান ‘লা মেসিয়া’য় পা রাখেন ফাতি। এর আগে তাকে নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে একচোট লড়াইয়েও মেতেছিল বার্সা।

বোরি ফাতি বলেন, ‘আমরা সেভিয়ায় ছিলাম। আমার ছেলের জন্য বার্সার চেয়ে বড় আর্থিক প্রস্তাব দিয়েছিল রিয়াল। কিন্তু আমরা বার্সাকেই বেছে নিয়েছিলাম, কারণ তারা আমার বাড়িতে হাজির হয়ে আমাকে রাজি করিয়েছিল। তারা জানিয়েছিল, তাদের একটি বড় পরিকল্পনায় তারা ফাতিকে রাখতে চায়। ’

বার্সার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পর থেকেই ফাতির প্রতিভার বিচ্ছুরণ ঘটতে থাকে। বিভিন্ন বয়সভিত্তিক দলে তার পারফরম্যান্স ছিল নজরকাড়া। উয়েফা’র ইয়ুথ লিগেও দুর্দান্ত ফর্ম দেখিয়েছেন। গত আসরে ৯ ম্যাচ খেলে ৪ গোল আর ৩ অ্যাসিস্ট করেছিলেন, যার মধ্যে সেমিফাইনালে করেছিলেন ২ গোল। যদিও ম্যাচটি টাইব্রেকারে চেলসির কাছে হেরে যায় বার্সা।

এই বছর বার্সার সঙ্গে নতুন চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন ফাতি, যেখানে তার রিলিজ ক্লজ রাখা হয়েছে ১০০ মিলিয়ন ইউরো।

মাত্র এক ম্যাচ খেলেই ফাতির ক্যারিয়ার ঘুরে গেছে এমনটা হয়তো বলা যাবে না। এখনও অনেক দূর যাওয়া বাকি। তবে ফুটবলপ্রেমিদের মাঝে তার জনপ্রিয়তা বেড়েছে কয়েকগুণ। অভিষেক ম্যাচের আগে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে তার ফলোয়ার ছিল ৬৪ হাজার, ম্যাচ শেষে তার ফলোয়ার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখে!

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৭ ঘণ্টা, আগস্ট ২৭, ২০১৯
এমএইচএম/এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa