ঢাকা, সোমবার, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

বর্ষসেরা ফরোয়ার্ডের দৌড়ে মেসি-রোনালদো-মানে

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-০৯ ৩:৩৪:২১ পিএম
মেসি, রোনালদো ও সাদিও মানে/ছবি: সংগৃহীত

মেসি, রোনালদো ও সাদিও মানে/ছবি: সংগৃহীত

এক মৌসুম আগেই দুজনের পথ আলাদা হয়ে গেছে। রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাসে পাড়ি জমিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। অন্যদিকে নিজের একমাত্র ঠিকানা বার্সেলোনাতেই রয়ে গেছেন লিওনেল মেসি। কিন্তু প্রতিযোগিতা শেষ হয়নি। একই মহাদেশের ক্লাব ফুটবলের অংশ হওয়ায় লড়াইটা এখনও বজায় আছে। তবে সেটা শুধুই উয়েফার প্ল্যাটফর্মে। এদিকে এবার তাদের দুজনকে চ্যালেঞ্জ জানাতে হাজির সাদিও মানে।

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সর্বশেষ আসরের শিরোপা গেছে লিভারপুলের ঘরে। এবার ওই আসরের সেরা খেলোয়াড়দের বাছাইয়ের পালা। এই সেরার তালিকাতেই মুখোমুখি অবস্থানে লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। নিজের পজিশন তথা ফরোয়ার্ড হিসেবেই সেরার মুকুট পরবেন যেকোনো একজন। তবে এবার তিনজনের ছোট তালিকায় তাদের কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা উপহার দিচ্ছেন লিভারপুলের সেনেগালিজ তারকা সাদিও মানে।

সেরা তিন ফরোয়ার্ডের তালিকায় মানে থাকলেও নেই একই দলের মোহামেদ সালাহ। যদিও টটেনহামের বিপক্ষে ফাইনালে তার করা পেনাল্টি গোলেই শুরুতে এগিয়ে গিয়েছিল ‘অলরেডস’রা। তবে সেরা তিনে তাকে পেছনে ফেলে দিয়েছেন সতীর্থ মানে।

গত চ্যাম্পিয়নস লিগ আসরে বার্সার জার্সিতে মোট ১২টি গোল করেছিলেন মেসি। তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভর করেই সেমিফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছেছিল বার্সা। কিন্তু লিভারপুলের কাছে দ্বিতীয় লেগে অবিশ্বাস্যভাবে হেরে যাওয়ায় ফাইনালের স্বপ্ন অপূর্ণ থেকে যায় মেসিদের। তাতে অবশ্য মেসির অবদান খাটো করে দেখার সুযোগ নেই। গত মৌসুমের শীর্ষ গোলদাতা তো এই আর্জেন্টাইন তারকাই।

অন্যদিকে গত আসরে মাত্র ৬ গোল করেছিলেন রোনালদো। দলও আয়াক্সের কাছে হেরে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেয়। তবে মেসির বড় প্রতিদ্বন্দ্বী আসলে সাদিও মানে। কারণ তিনজনের তালিকায় একমাত্র তিনিই শিরোপাজয়ী দলের সদস্য।

মিডফিল্ড পজিশনের জন্য মনোনীত হয়েছেন লিভারপুলের জর্ডান হেন্ডারসন। এছাড়া একই পজিশনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে থাকছেন টটেনহামের ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন ও আয়াক্স থেকে বার্সায় যোগ দেওয়া ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং। 

ডি জংয়ের স্বদেশী ও সাবেক আয়াক্স সতীর্থ ম্যাথিয়াস ডি লাইট সেরা ডিফেন্ডারের তালিকায় মনোনীত হয়েছেন। তবে এই পজিশনে তার শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী লিভারপুলের ভার্জিল ভ্যান ডাইক ও ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আরনল্ড।

সেরা গোলরক্ষকের সংক্ষিপ্ত তালিকাতেও আছেন লিভারপুলের একজন। ব্রাজিলিয়ান অ্যালিসনের থাকা একপ্রকার নিশ্চিতই ছিল। এছাড়া একই তালিকায় মনোনীত হয়েছেন টটেনহামের হুগো লরিস এবং বার্সেলোনার মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেন।

উয়েফার বর্ষসেরা নির্বাচনের জন্য গঠিত জুরি বোর্ডে আছেন গত চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে অংশ নেওয়া ৩২ দলের কোচ ও উয়েফা’র ৫৫টি সদস্য দেশের ৫৫ জন সাংবাদিক। বিভিন্ন পজিশনের সংক্ষিপ্ত তালিকা তারাই বাছাই করেছেন। তবে কোচদের জন্য নিজ দলের খেলোয়াড়দের ভোট দেওয়ার সুযোগ নেই।

নির্বাচনী প্রক্রিয়া শেষে আগামী ২৯ আগস্ট মোনাকোতে আগামী চ্যাম্পিয়নস লিগ আসরের গ্রুপ পর্বের ড্র অনুষ্ঠানে পুরস্কার বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হবে।

বিভিন্ন পজিশনে জায়গা পাওয়াদের তালিকা:

সেরা গোলরক্ষক: অ্যালিসন (লিভারপুল), হুগো লরিস (টটেনহাম), মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগেন (বার্সেলোনা)।

সেরা ডিফেন্ডার: ভার্জিল ভ্যান ডাইক ও ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আরনল্ড (লিভারপুল), ম্যাথিয়াস ডি লিট (আয়াক্স/জুভেন্টাস)।

সেরা মিডফিল্ডার: জর্ডান হেন্ডারসন (লিভারপুল), ফ্রেঙ্কি ডি ইয়ং (আয়াক্স/বার্সেলোনা), ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন (টটেনহাম)।

সেরা ফরোয়ার্ড: ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (জুভেন্টাস), সাদিও মানে (লিভারপুল), লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা)।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৪ ঘণ্টা, আগস্ট ০৯, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফুটবল মেসি রোনালদো
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-09 15:34:21