bangla news

হাথুরুকে সময় বেঁধে দিলো লঙ্কান সরকার

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-০১ ৩:৫৮:৫৭ পিএম
চন্ডিকা হাথুরুসিংহে-ছবি:সংগৃহীত

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে-ছবি:সংগৃহীত

বেশ কিছু দিন থেকেই চন্ডিকা হাথুরুসিংহেকে নিয়ে চলছে নানান আলোচনা। একদিকে শ্রীলঙ্কা দল নিয়ে তার ব্যর্থতা, অপরদিকে তার কোচের পদ ছাড়তে নারাজি। এরই মধ্যে লঙ্কান ক্রীড়ামন্ত্রী হারিন ফার্নান্দো একাধিকবার তাকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য বোর্ডকে বলেও লাভ হয়নি। এবার হাথুরুকে তার পদ ছাড়ার জন্য আলটিমেটামই দিয়ে দিলেন।

একদিকে হাথুরুসিংহের কোচ হিসেবে স্বাধীনচেতা ভাব, অপরদিকে একজন বিদেশি কোচের থেকেও দ্বিগুণ বেতন নিয়েও দলের উন্নতি না করতে পারা। ব্যর্থতা নিয়েও এত বেতনের পক্ষপাতি নন ক্রীড়ামন্ত্রী। তিনি পরিস্কার বলেছেন, হাথুরুকে সরিয়ে বিদেশি কোনো কোচকে দলের দায়িত্ব দিতে চান।

অনেকটাই নিশ্চিত বাংলাদেশ সিরিজের পর আর কোচ হিসেবে রাখা হচ্ছে না হাথুরুকে। তাই ১৪ আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হোম সিরিজের আগেই হাথুরুকে সিদ্ধান্ত নিতে বলছেন ফার্নান্দো। স্থানীয় গণমাধ্যমকে তিনি বলেছেন, ‘নিউজিল্যান্ড সিরিজের আগেই আমরা নতুন কোচ পাব। হাথুরু যদি দায়িত্ব ছাড়তে না চান, আমরা হয়তো তার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেবো। অথবা বোর্ডে আমরা তাকে অন্য কোনো দায়িত্ব নেওয়ার প্রস্তাব দেবো।’

যদিও শ্রীলঙ্কার দায়িত্বে আরও ১৬ মাস মেয়াদ আছে তার। তাই শ্রীলঙ্কার হয়ে পুরো মেয়াদ শেষ করতে চান হাথুরু। কিন্তু তা মানতে নারাজ ফার্নান্দো। হাথুরুর বেতনের অঙ্ক নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। প্রতি মাসে বাংলাদেশের সাবেক কোচ ৪০ হাজার ডলার করে নেন। শ্রীলঙ্কান রুপিতে মাসে তা ৭০ লাখ ৫১ হাজার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৩৩ লাখ ৭৮ হাজার টাকা।)!

ফার্নান্দো বলেন, ‘তার (হাথুরুসিংহে) অধীনে আমরা যদি মাত্র ৩৫ শতাংশ ম্যাচ জিতি, তাহলে সেই কোচকে এত বড় অঙ্কের বেতন দেওয়ার মানে হয় না। যে টাকা আমরা এখন দিচ্ছি, একই অর্থে দু’জন বিদেশি কোচ আনা সম্ভব। যে টাকা আমরা দিচ্ছি, এটা নিয়ে আমাদের অবশ্যই আলাপ-আলোচনা করতে হবে। রাজি না থাকে তো তারা চাকরি ছেড়ে চলে যেতে পারে।'

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৫ ঘণ্টা, আগস্ট ০১, ২০১৯
এমকেএম/এমএমএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট (এসএলসি)
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-01 15:58:57