ঢাকা, রবিবার, ৩ ভাদ্র ১৪২৬, ১৮ আগস্ট ২০১৯
bangla news

অ্যাশেজ দিয়ে শুরু হচ্ছে ‘টেস্টের বিশ্বকাপ’

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-৩১ ৩:৪৯:২৯ পিএম
অ্যাশেজে মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া/ছবি: সংগৃহীত

অ্যাশেজে মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া/ছবি: সংগৃহীত

২০১৯ বিশ্বকাপের শিরোপা জেতার পর এবার অ্যাশেজ জয়ের লড়াইয়ে নামছে ইংল্যান্ড। গুরুত্ব বিচারে ইংলিশদের কাছে এমনকি বিশ্বকাপের চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ অ্যাশেজ। অজিদের বিপক্ষে এই সিরিজটি ইংলিশদের কাছে মর্যাদার লড়াই হিসেবে বিবেচিত। ঐতিহ্যবাহী এই সিরিজ দিয়েই প্রথমবারের মতো মাঠে গড়াচ্ছে ‘বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ’।

বৃহস্পতিবার (০১ আগস্ট) বার্মিংহামের এজবাস্টনে ১ম অ্যাশেজ টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। যেহেতু এই টেস্ট দিয়ে ‘টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ’ শুরু হচ্ছে, ফলে এই সিরিজের গুরুত্ব এখন অনেক বেড়ে গেল। অনেকে ‘টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ’কে ‘টেস্টের বিশ্বকাপ’ বলেও অভিহিত করছেন। অর্থাৎ ইংলিশদের সামনে প্রথম ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর এবার 'টেস্টের বিশ্বকাপ’ জেতার হাতছানিও অপেক্ষা করছে।

আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ হচ্ছে ৯ টেস্ট খেলুড়ে দলের লড়াই। অ্যাশেজ দিয়ে শুরু করে এই আয়োজন শেষ হবে ২০২১ সালের জুনে। এই দুই বছরে অনুষ্ঠিত হবে ২৭টি টেস্ট সিরিজ (৭২টি ম্যাচ)। প্রতিটি দল একাধিক দ্বিপক্ষীয় টেস্ট সিরিজ খেলার পর শীর্ষ দুই দল শিরোপা জেতার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ডের মাটিতে। ফাইনালে বিজয়ী দল হবে টেস্টের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন।

অ্যাশেজকে সামনে রেখে ইংলিশদের প্রস্তুতিটা ভালোই হয়েছে। খর্বশক্তির দল নিয়েও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে। তবে প্রথম ইনিংসে বেশ ঘাবড়ে দিয়েছিল আইরিশরা। তবে শেষটা হয়েছে জয় দিয়েই। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়াও আসছে পুরো শক্তি নিয়ে। নিষেধাজ্ঞার পর ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেললেও এই সিরিজ দিয়েই টেস্ট দলে ফিরছেন স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন বেনক্রফট।

অজিদের সবচেয়ে ব্যাটিং ভরসা স্মিথ। মাত্র ৫ টেস্ট খেলেই ৬৮৭ রান করেছেন এই সাবেক অধিনায়ক। এসময়ে তার ব্যাটিং গড় ১৩৭.৪০, সর্বোচ্চ স্কোর ২৩৯।

ইংল্যান্ডের ব্যাটিংয়ের টপ অর্ডার সামলাতে তিনে নামবেন অধিনায়ক জো রুট। চারে থাকছেন জো ডেনলি। তবে প্রথম টেস্ট খেলতে নামা জোফরা আর্চারের ফিটনেসের ঘাটতি ইংলিশদের কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলতে পারে। 

ইনজুরি চিন্তা আছে অজি শিবিরেও। বিশেষ করে অজি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার নেটে অনুশীলন করতে গিয়ে আঘাত পেয়েছেন। যদিও প্রথম ম্যাচ থেকেই তাকে দলে পাওয়ার আশা করছে অস্ট্রেলিয়া। এছাড়া ইনজুরি আক্রান্ত ছিলেন উসমান খাজা ও জেমস প্যাটিনসন। তবে এ দুজনকেও একাদশে রাখার ইঙ্গিত দিয়েছেন অজি কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার। এছাড়া ইনজুরি শঙ্কা আছে ফাস্ট বোলার মিচেল স্টার্ককে নিয়েও।

অ্যাশেজের সর্বশেষ আসরে ঘরের মাটিতে ইংলিশদের ৪-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ফলে অ্যাশেজের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অজিরাই। কিন্তু ইংল্যান্ডের মাটিতে তাদের সর্বশেষ অ্যাশেজ জয়ের স্মৃতি ২০০১ সালের। সেবার স্টিভ ওয়াহ’র নেতৃত্বে সিরিজ ঘরে তুলেছিল অস্ট্রেলিয়া। এরপর ২০১৫ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতে ৩-২ ব্যবধানে হেরে ফিরেছিল। 

এই দুই দলের সর্বশেষ সাক্ষাৎ গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে, যে ম্যাচে অজিদের ২২৩ রানে অলআউট করে ৮ উইকেটের জয় তুলে নেয় ইংলিশরা। আর ফাইনালে অজিদের প্রতিবেশী কিউইদের হারিয়ে প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপাও জেতা হয়ে গেছে। এখন অ্যাশেজটাও জিতে গেলে এক বছরে দু’বার শিরোপার মহোৎসব করবে ইংল্যান্ড। আর হারানো গৌরব ফিরে পেতে মরিয়া লড়াই করবে অস্ট্রেলিয়া।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৮ ঘণ্টা, জুলাই ৩১, ২০১৯
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-31 15:49:29