bangla news

মুমিনুলের পর শান্তুর সেঞ্চুরি, বিসিবির বড় সংগ্রহ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১১ ৯:৫৪:৩২ পিএম
ছবি-সংগৃহীত

ছবি-সংগৃহীত

প্রথমদিন মুমিনুল হকের সেঞ্চুরিতে রান পাহাড়ের চূড়ায় ওঠার আভাস দিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) একাদশ। সেই ধারা বজায় রাখল তারা। দ্বিতীয় দিন শেষে নাজমুল হাসান শান্তু’র সেঞ্চুরিতে ভারতের বিদর্ভ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের বিপক্ষে ৭ উইকেটে ৫০০ রান সংগ্রহ করে ইনিংস ঘোষণা করেছে বিসিবি। 

‘মিনি রঞ্জি’ খ্যাত ভারতের কর্নাটক রাজ্য ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের আমন্ত্রণে খেলতে গেছেন মুমিনুল-তাসকিনরা। বুধবার (১০ জুলাই) সফরের প্রথম ম্যাচের প্রথম দিন শুরু করে বিসিবি একাদশ। আলুর-২ গোল্ডেন ওভাল স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ২ উইকেটে ৩০৩ রান করে প্রথম দিন শেষ করে মুমিনুলরা। মুমিনুল অপরাজিত ছিলেন ১৫৭ রানে। ২৪ রানে অপরাজিত ছিলেন শান্তু। দ্বিতীয় দিন ব্যক্তিগত খাতায় আর ১২ রান যোগ করতেই দর্শন নালখান্দের বলে অক্ষয় ওয়াদকারকে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরের পথ ধরেন মুমিনুল। 

মুমিনুল ফিরলেও বিদর্ভের বোলারদের ধৈর্যের পরীক্ষা নিয়ে সেঞ্চুরি তুলে নেন শান্তু। ইয়াসির আলি চৌধুরি (৮) ও কাজী নুরুল হোসাইনকে (২) হারালে কিছুটা চাপে পড়ে বিসিবি। তবে তা বিপর্যয়ে রূপ নিতে দেয়নি শান্তু ও আরিফুল হকের ব্যাট। দু’জনে মিলে গড়েন ১৫১ রানের জুটি।

নালখান্দের চতুর্থ শিকার হিসেবে শান্তু সাজঘরে ফেরেন। তার ২১৯ বলে ১১৮ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ১৩ চার ও ২ ছক্কায়। এর পরপরই দলীয ৪৯৮ রানে আউট হন আরিফুল (৭৭)। দলীয় স্কোরবোর্ডে আর ২ রান যোগ হতেই ইনিংস ঘোষণা করে বিসিবি। নাঈম হাসান (১) ও তাইজুল ইসলাম (২) অপরাজিত ছিলেন। 

৭৯ রান দিয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট শিকার করেছেন নালখান্দে। রজনিশ গুরবানি ও আদিত্য সারভাতের নিয়েছেন একটি করে উইকেট। 

বিদর্ভও নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে দুর্দান্ত শুরু করেছে। ওপেনিং জুটিতে ১১৪ রান করে দিন শেষ করেছে তারা। এক রান দূরে থাকতে সঞ্জয়ের ফিফটি কেড়ে নেন তাইজুল ইসলাম। তবে হাফসেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন অক্ষয় কোলহার। ৬২ রানে অপরাজিত আছেন বিদর্ভের এই ওপেনার। সঞ্জয়ের আউটের পরপরই দিন শেষ করে বিদর্ভ। 

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৭ ঘণ্টা, জুলাই ১১, ২০১৯
ইউবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-11 21:54:32