ঢাকা, শনিবার, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জুলাই ২০১৯
bangla news

৩৮ বছরে পা রাখলেন ধোনি 

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-০৭ ১:৩৪:০০ পিএম
মহেন্দ্র সিং ধোনি: ছবি-সংগৃহীত

মহেন্দ্র সিং ধোনি: ছবি-সংগৃহীত

৩৮ বছরে পা দিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিং। ১৯৮১ সালের ৭ জুলাই উত্তর ভারতের ঝাড়খন্দ রাজ্যের রাজধানী রাঁচিতে জন্মগ্রহণ করেন মাহি।

ধোনির আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় ২৩ বছর বয়সে, ২০০৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর। প্রতিপক্ষ ছিল বাংলাদেশ। শুরুটা অবশ্য ভাল হয়নি তার। অভিষেক ম্যাচেই তাকে ডাক উপহার দেয় টাইগাররা। ২০০৪ সালে বাংলাদেশের বিপক্ষে সেই সিরিজে জ্বলে উঠতে পারেনি তার ব্যাট। 

পরের বছর এপ্রিলে, ভারতের চিরশত্রু পাকিস্তানের বিপক্ষে সুযোগ পেয়েই সেঞ্চুরি করেন ধোনি। এরপর আর পিছু ফিরে তাকাতে হয়নি এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যানকে। 

ভারতের সবচেয়ে সফল অধিনায়কদের একজন ধোনি। তার নেতৃর্ত্বে ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। এরপরই ওয়ানডেতে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পান ‘এমএসডি’। 

২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ভারতের ২৮ বছরের শিরোপা খরা কাটে ধোনির নেতৃ্র্ত্বগুণে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের সেই ফাইনালে নুয়ান কুলাসেকারার বলে ছক্কা মেরে ভারতকে জয় এনে দেন বিশ্বের অন্যতম সেরা ফিনিশার ধোনি। এটি অন্যতম মুহূর্ত হয়ে আছে ভারতীয় ক্রিকেটে। 

ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ফিনিশিং, গ্লাভস হাতে অনবদ্য কিপিং এবং কঠিন মুহুর্তে তার ঠাণ্ডা মাথার নেতৃর্ত্বগুণের জন্য ধোনির নামই হয়ে গেছে ‘মিস্টার কুল’। 

ভারতকে ২০০ ওয়ানডেতে নেতৃর্ত্ব দিয়েছেন ধোনি। তার অধিনায়ত্বে টিম ইন্ডিয়া জিতেছে ৫৯.৫২ শতাংশ। যার মধ্যে আছে ১১০ জয়, ৭৪ হার। ১১ ম্যাচে কোনো ফল হয়নি। টেস্টে ধোনি অধিনায়কত্ব করেছেন ৬০ ম্যাচে। তাতে ভারত ২৭ জয়ের পাশাপাশি পরাজিত হয়েছে ১৮ টেস্টে। ড্র হয়েছে ১৫ ম্যাচ। 

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (আইপিএল) সফল ধোনি। অধিনায়ক হিসেবে চেন্নাই সুপার কিংসকে (সিএসকে) তিনবার শিরোপা এনে দিয়েছেন তিনি। আইপিএলে সবচেয়ে সফল দলও সিএসকে। টুর্নামেন্টের ইতিহাসে আটবার ফাইনাল খেলেছে তারা। 

আর্ন্তজাতিক ক্রিকেটে ধোনির ১৬ সেঞ্চুরির পাশাপাশি আছে ১০৫ ফিফটি। নামের পাশে আছে মোট ১৭ হাজার রান। ভারতের সবচেয়ে সফল উইকেটরক্ষকও তিনি। আর্ন্তজাতিক অঙ্গনে ৮০০ ডিসমিসাল করেছেন ৩৮ বছরে পা দেওয়া এই ক্রিকেটার। ডিসমিসালের তালিকায় তার উপরে আছে কেবল দক্ষিণ অাফ্রিকার উইকেটরক্ষক মার্ক বাউচার এবং শ্রীলঙ্কার কুমার সাঙ্গাকারা। 

২০১৪ সালে মের্লবোন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) অষ্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টেস্ট থেকে অবসর নেন ধোনি। ড্র হয়েছিল তার বিদায়ী ম্যাচটি। ২০১৯ বিশ্বকাপের পরপরই হয়তো ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় জানাতে পারেন তিনি। এমন গুঞ্জনই শোনা যাচ্ছে ক্রিকেট বিশ্বে। 

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩০ ঘণ্টা, জুলাই ০৭, ২০১৯ 
ইউবি  

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-07 13:34:00