ঢাকা, রবিবার, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬, ২১ জুলাই ২০১৯
bangla news

শচীন-গাঙ্গুলীদের পায়ে শেকল পরাল বিসিসিআই

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২২ ১২:৪১:৪৫ পিএম
শচীন-গাঙ্গুলীদের পায়ে শেকল পরাল বিসিসিআই। ছবি: সংগৃহীত

শচীন-গাঙ্গুলীদের পায়ে শেকল পরাল বিসিসিআই। ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) ক্রিকেট অ্যাডভাইজরি কমিটির (সিএসি) দায়িত্বে আছেন শচীন টেন্ডুলকার, সৌরভ গাঙ্গুলী ও ভিভিএস লক্ষণ। কিন্তু এই দ্বায়িত্বের বাইরেও সারা বছরই তাদের ভারতীয় ক্রিকেট সম্পর্কিত বিভিন্ন কাজে দেখা যায়। তবে এখন থেকে আর এমন দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। সে পথ বন্ধ করে তাদের পায়ে শেকল পরিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজির মেন্টর অথবা কোচের দায়িত্বে থাকেন অনেক সাবেক ভারতীয়। আবার একই ব্যক্তিকে বুম হাতেও দেখা যায় খেলার মাঠে। কাউকে কাউকে ধারাভাষ্যকারের চেয়ারেও দেখা যায়। কিন্তু এখন থেকে তা আর সম্ভব হচ্ছে না।

বিসিসিআইয়ের নৈতিকতা সংক্রান্ত বিভাগের পক্ষ থেকে এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক অনুমোদিত বিসিসিআইয়ের নতুন নীতিমালায় স্পষ্ট বলা হয়েছে, এখন থেকে একজন ব্যক্তি একই সময়ে একটির বেশি পদে আসীন থাকতে পারবেন না। 

বিচারপতি ডিকে জৈনের আদেশ অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত কার্যকরী করা হবে। ফলে গাঙ্গুলী, টেন্ডুলকার, লক্ষণদের মতো সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটারদের একাধিক পদে কাজ করার সুযোগ বন্ধ হয়ে গেল।

বিসিসিআইয়ের এই নতুন সিদ্ধান্ত কার্যকর হওয়ার পর থেকে তাদের যেকোনো একটি পদ বেছে নিতে হবে। বিসিসিআইয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া নতুন নীতিমালার ৩৮(৪) ধারার ‘স্বার্থের সংঘাত’ উপধারায় বলা হয়েছে, ‘কোনো ব্যক্তি একই সঙ্গে এই পদগুলোর মধ্যে একাধিক পদে আসীন থাকতে পারবেন না—(১) বর্তমান খেলোয়াড়, (২) নির্বাচক/ক্রিকেট কমিটির সদস্য, (৩) টিম ম্যানেজমেন্ট, (৪) ধারাভাষ্যকার, (৫) ম্যাচ পরিচালন কর্মকর্তা, (৬) প্রশাসক........ (১৬) কোনো ক্রিকেট একাডেমির মালিক।’

কিছুদিন আগে বোর্ডের সঙ্গে টেন্ডুলকারের স্বার্থের সংঘাত নিয়ে বেশ জল ঘোলা হয়। তারই রেশে যে এই নীতিমালা আনা হলো তা বেশ স্পষ্ট।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪১ ঘণ্টা, জুন ২২, ২০১৯
এমকেএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-22 12:41:45