ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
bangla news

ক্রিস্টালকে উড়িয়ে শিরোপার দৌড়ে টিকে রইলো ম্যানসিটি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৫ ১২:৪০:১৮ এএম
ম্যাচ জয়ের পর শিষ্যদের অভিবাদন জানাচ্ছেন পেপ গার্দিওলা। ছবি: সংগৃহীত

ম্যাচ জয়ের পর শিষ্যদের অভিবাদন জানাচ্ছেন পেপ গার্দিওলা। ছবি: সংগৃহীত

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের চলতি আসরের পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষস্থান নিয়ে ইঁদুর দৌড় চলছেই। সর্বশেষ ক্রিস্টাল প্যালেসকে ৩-১ গোলে হারিয়ে সেই দৌড়ে শক্তভাবেই টিকে রইলো ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচ জিতে শীর্ষেও চলে এসেছিল সিটিজেনরা। কিন্তু দু’ঘণ্টা বাদেই চেলসিকে হারিয়ে ফের শীর্ষস্থান দখলে নিয়েছে লিভারপুল।

রোববার (১৪ এপ্রিল) ছিল ইংলিশ লিগের ‘সুপার সানডে’। এমন বিশেষ দিনে শিরোপা লড়াইয়ের মূল দুই দাবিদার ম্যানচেস্টার সিটি ও লিভারপুল ভিন্ন ভিন্ন  ম্যাচে মাঠে নামে। দুই দলই একে অন্যের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে বলেই এবার লিগ এমন জমে উঠেছে। মৌসুমের মাঝামাঝি থেকেই শুরু হয়েছে এই দু’দলের শীর্ষে থাকার লড়াই। চলছে এখনও।

এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ন হবে কে, এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে চোখ রাখতে হচ্ছে সিটি ও লিভারপুলের প্রতিটি ম্যাচের দিকেই। লিভারপুল শীর্ষে চলে গেলেও এক ম্যাচ কম খেলে এখনো শিরোপার একদম কাছেই আছে সিটি। ক্রিস্টাল প্যালেসকে হারানোর ম্যাচে যেভাবে খেলেছেন পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা, তাতে শিরোপার দাবিটা তারা করতেই পারে।

ক্রিস্টাল প্যালেসের ঘরের মাঠ সেলহারস্ট পার্ক সাম্প্রতিক সময়ে শিরোপার দাবিদারদের জন্য কঠিন পরীক্ষার কারণ হয়েছে। ২০১৪ সালে লিভারপুলের অদম্য যাত্রা এখানে এসেই থেমেছিল, পরেরবার একই ঘটনা ঘটে সিটির ক্ষেত্রে। তবে এবার তা হয়নি। এবার স্বাগতিকদের রীতিমত উড়িয়ে দিয়েছে সিটি। আর তাতে জোড়া গোল করেছেন ইংলিশ ফরোয়ার্ড রহিম স্টার্লিং, এক গোল এসেছে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার গাব্রিয়েল জেসুসের পা থেকে। প্যালেসের হয়ে ফ্রি-কিক থেকে একমাত্র গোলটি করেন লুকা মিলিভোজেভিচ।

ম্যাচের ১৫তম মিনিটেই এগিয়ে যায় সিটি। কেভিন দে ব্রুইনির থ্রো-বল ডিফেন্সে পেয়ে প্যালেসের দুই ডিফেন্ডার প্যাট্রিক ভ্যান আনহোল্ট এবং স্কট ড্যানকে পাশ কাটিয়ে গোলরক্ষক ভিনসেন্টে গুয়াইতাকে পরাস্ত করেন স্টার্লিং। গোল দেওয়ার পর উজ্জীবিত সিটি প্রতিপক্ষের রক্ষণে বারবার ঝাঁপিয়ে পড়ে। কিন্তু এরপর প্রথমার্ধে ব্যবধান বাড়াতে পারেনি সফরকারীরা।।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে লেরয় সানে এবং ইকাই গুন্দোগানের দারুণ দু’টি প্রচেষ্টা ঠেকিয়ে দেন গুয়াইতা। কিন্তু স্টার্লিংকে ঠেকাতে পারেননি প্যালেস গোলরক্ষক। সার্জিও আগুয়েরো ও সিলভার বানিয়ে দেওয়া বল জমিয়ে ডি-বক্সের কেন্দ্রে থাকা স্টার্লিংয়ের পায়ে পৌঁছে দেন সানে। আর নিখুঁত ফিনিশিংয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ইংলিশ তারকা।

শেষ বাঁশি বাজার ৯ মিনিট আগে সিটির ডি-বক্সের একদম সামনে ফাউলের শিকার হন প্যালেসের জেমস ম্যাকআর্থার। ফ্রি-কিক থেকে দারুণ এক গোল করে ব্যবধান কমান মিলিভোজেভিচ। শেষ মুহূর্তে সমতায় ফিরতে মরিয়া প্যালেসের আশাভঙ্গ করে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে দেন জেসুস।

এই জয়ে ৩৩ ম্যাচে ৮৩ পয়েন্ট নিয়ে লিভারপুলের ঘাড়ে নিঃশ্বাস নিচ্ছে সিটি। আর এক ম্যাচ বেশি খেলে ২ পয়েন্ট বেশি নিয়ে শীর্ষে আছে লিভারপুল। ৩৪ ম্যাচে ৪১ পয়েন্ট নিয়ে ১৩তম স্থানে ক্রিস্টাল প্যালেস।

বাংলাদেশ সময়: ০০৩৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০১৯
এমএইচএম/এইচএ/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ফুটবল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-04-15 00:40:18