ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ১৯ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

আড়াই বছরের মধ্যে প্রস্তুত হবে পূর্বাচল স্টেডিয়াম

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৩ ৬:৪৫:৫৩ পিএম
শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ডিজাইন-ছবি: সংগৃহীত

শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ডিজাইন-ছবি: সংগৃহীত

চলতি মাসেই পূর্বাচলে শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের জন্য বরাদ্দকৃত জমি বুঝে পাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আর আগামী শীত মৌসুমের সময় শুরু হবে স্টেডিয়ামের নির্মাণ কাজ। ২০২২ সালের মধ্যে স্টেডিয়ামটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে বিসিবি’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে স্টেডিয়ামের প্রজেক্ট ইমপ্লিমেন্টের প্রথম সভা শেষে তথ্যগুলো দেন বিসিবি’র গ্রাউন্ডস কমিটির চেয়ারম্যান মাহবুব আনাম।

সংবাদ মাধ্যমকে মাহবুব আনাম জানান, ‘আপনারা জানেন যে পূর্বাচলের এ জমিটি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষে রেজিস্ট্রি হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই জমিটি বরাদ্দ করেছেন। এ মাসের মধ্যেই আমরা মাঠের পজেশনে কাজ করব। পজেশন পেলেই কাজ গতিসম্পন্ন হবে। মাঠটি প্রটেক্ট করা, একটা সাইট অফিস করা, অন্যান্য যে পরিকল্পনা রয়েছে সেগুলো সামনের দিকে আগাবো।’

তিনি আরো বলেন, ‘ আমাদের ইচ্ছে এই স্টেডিয়ামটা এমন একটা স্টেডিয়াম হবে যেটা শুধু এই রিজন কেন, পুরো বিশ্বের মধ্যে সুন্দর স্টেডিয়াম হবে। যেহেতু এটা গ্রিন ফিল্ড স্টেডিয়াম, সেহেতু এখানে আমাদের অনেক কিছু করার সুযোগ রয়েছে। আপনারা জানেন যে মিরপুর স্টেডিয়ামকে আমরা কনভার্ট করেছি। সেজন্য আমরা আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম নির্মাণে যারা কাজ করেছে, তাদের কনসালটিং ফার্মকে নিয়োগ দেয়ার ব্যাপারে একটা আন্তর্জাতিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে এবং আমরা স্বচ্ছ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে টেন্ডার পদ্ধতিতে কাজ করবো।’

কবে নাগাদ স্টেডিয়ামের নির্মাণ কাজ শুরু করা হবে সেই প্রসঙ্গে মাহবুব আনাম বলেন, ‘স্টেডিয়ামের ফিজিক্যাল কাজ আগামী শীত মৌসুমের আগে করা হবে না। বিসিবি অলরেডি একটা কনসেপ্ট ড্রয়িং তৈরি করেছে। ওই কনসেপ্ট ড্রইংটাকে এনলার্জ করা এবং এর মধ্যে আমাদের অন্য যে জিনিসগুলো থাকবে, ড্রেসিংরুম বলেন বা যাই বলেন, সেগুলোকে আরও ডিটেইল করা। বিসিবি বোর্ড ইতিমধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখানে একটা স্টেডিয়াম থাকবে। আর একটা একাডেমি গ্রাউন্ডের মতন থাকবে। তার মানে আমরা দুটো মাঠ পাব। ওই জিনিসগুলো অলরেডি বিসিবি ডিসাইড করেছে।’
 
মাঠের নির্মাণ কাজ শেষ হতে কত সময় লাগবে এ নিয়ে মাহবুব আনাম বলেন, ‘আমরা আশা করছি কাজ শুরুর দুই বছরের মধ্যেই শেষ করব। তবে আড়াই বছরের মধ্যেই আশা করছি হয়ে যাবে।’

সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২২ সালের মধ্যে বিশ্বের অন্যতম সুন্দর ক্রিকেট স্টেডিয়ামটি দৃশ্যমান হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৪ ঘন্টা, এপ্রিল ১৩, ২০১৯
আরএআর/এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14