ঢাকা, বুধবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২২ মে ২০১৯
bangla news

তামিম-মুশফিকরা নিরাপদে দেশে ফেরায় দোয়া মাহফিল

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-১৮ ৭:৪২:৩৪ পিএম
জাতীয় ক্রিকেট দল নিরাপদে দেশে ফেরায় দোয়া ও শোকরানা-ছবি: শোয়েব মিথুন

জাতীয় ক্রিকেট দল নিরাপদে দেশে ফেরায় দোয়া ও শোকরানা-ছবি: শোয়েব মিথুন

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে হামলার ঘটনায় অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা। এর ঠিক পরদিন তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। এখনো ওই বিভীষিকা থেকে পুরোপুরি বের হতে না পারা তামিম-মুশফিকদের নিরাপদে দেশে ফেরা উপলক্ষে বিশেষ দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। 

সোমবার (১৮ মার্চ) বাদ যোহর মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে এই দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। সেখানে ক্রাইস্টচার্চে নিহতদের স্মরণে দোয়া করে তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিসিবি’র সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন, বোর্ডের পরিচালকবৃন্দ এবং জাতীয় দলের ক্রিকেটার তামিম ইকবাল, ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা, মাহমুদুউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম, তাইজুল ইসলামসহ অন্যান্যরা।

ছবি: শোয়েব মিথুনক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভাল মাঠে শনিবার (১৬ মার্চ) বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার তৃতীয় টেস্ট মাঠে গড়ানোর কথা ছিল। কিন্তু শুক্রবার (১৫ মার্চ) হ্যাগলি ওভালের আল নুর মসজিদে জুমার নামাজ আদায়রত মুসল্লিদের ওপর প্রথমে সন্ত্রাসী হামলা হয়। কিছু পরে লিনউড মসজিদে দ্বিতীয় হামলা হয়। হামলায় ৫০ জন নিহত হন। আহত হন প্রায় ৫০ জন। হামলার পরিপ্রেক্ষিতে ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট বাতিল করা হয়। 

ছবি: শোয়েব মিথুনহামলার ঘটনায় অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন সফররত বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। ওই সময় নামাজ আদায়ের উদ্দেশ্যে মদজিদের দিকেই যাচ্ছিলেন তামিম-মুশফিক-রিয়াদরা। হামলার কথা জানতে পেরে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। আর মিনিট কয়েক আগে গেলেই ভয়াবহ এই হামলার শিকার হতে হতো তাদের।

ছবি: শোয়েব মিথুননিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের ভয়াবহ স্মৃতি পেছনে ফেলে নিরাপদে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। শনিবার (১৬) মার্চ রাত  ১০টা ৪০ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে করে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছান তারা।

ছবি: শোয়েব মিথুনবাংলাদেশ সময়: ১৯৪০ ঘন্টা, মার্চ ১৮, ২০১৯
আরএআর/এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-18 19:42:34