ঢাকা, সোমবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২০ মে ২০১৯
bangla news

‘যা দেখেছি তা যেন একেবারেই সিনেমার দৃশ্য’

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-১৫ ৩:৫২:১২ পিএম
খালেদ মাসুদ পাইলট-ছবি: সংগৃহীত

খালেদ মাসুদ পাইলট-ছবি: সংগৃহীত

ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালের মসজিদে বন্দুকধারীর হামলার মুহূর্তে মসজিদের কাছেই মাঠে অনুশীলন করছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। অনুশীলন শেষে তারা মসজিদটিতে জুমার নামাজ পড়তে যাচ্ছিলেন। খেলোয়াড়রা সেখানে গিয়ে শুনতে পান মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। এরপর তারা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে মাঠের দিকে চলে যান। 

রোমহর্ষক ওই মুহূর্তের অভিজ্ঞতা নিয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশ দলের টিম ম্যানেজার খালেদ মাসুদ পাইলট। তার কাছে ওই মুহূর্তটা ছিল সিনেমার দৃশ্য’র মতো। চোখের সামনে বন্দুকধারীর হামলা, চারপাশে লাশের সারি, রক্তাক্ত অবস্থায় আহতদের আহাজারি এমন সব মুহূর্ত যে শুধু সিনেমাতেই দেখা যায়। তবে এমন পরিস্থিতিতেও জীবিত অবস্থায় ফিরতে পেরে নিজেদের ‘সৌভাগ্যবান’ বলছেন খালেদ মাসুদ।

মাসুদ বলেন, ‘এটা এমন এক দুর্ঘটনা, যা আমরা কখনো পৃথিবীর কোথাও ঘটুক চাইব না। আমরা সৌভাগ্যবান যে, আমাদের বাসে ১৭ জনের মতো ছিলাম। আমরা সবাই নামাজ আদায় করতে মসজিদের দিকে যাচ্ছিলাম।'

‘শুধু মাত্র ২জন খেলোয়াড় হোটেলে রয়ে গিয়েছিল আর স্কোয়াডের বাকি সবাই সেখানে গিয়েছিল। আমরা মসজিদের খুব কাছে ছিলাম, হয়তো ৫০ গজ দূরে। আমাদের বাস থেকে মসজিদ দেখা যাচ্ছিল।'

এরপর মাসুদ বর্ণনা করেন মসজিদের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় কীভাবে তারা ‘ক্রস ফায়ার’ থেকে বেঁচে যান।

‘আমি বলব আমরা খুবই ভাগ্যবান ছিলাম। মাত্র ৩ কিংবা ৪ মিনিট আগে পৌঁছুলেই আমরা হয়তো মসজিদেই থাকতাম। আর তা হলে বড় দুর্যোগ হয়ে যেত। আমরা কৃতজ্ঞ যে, আমরা হামলার শিকার হইনি, কিন্তু আমরা যা দেখেছি তা একেবারেই সিনেমার দৃশ্য।'

‘আমরা দেখতে পাচ্ছিলাম রক্তাক্ত অবস্থায় টলতে টলতে মসজিদ থেকে মানুষ বের হচ্ছে। যদি আমাদের বন্দুকের নিশানা বানানো হয়, তাই প্রায় ১০ মিনিটের মতো আমরা বাসের ভেতরে মাথা নিচু করে ছিলাম।'

এরপর দলের সদস্যরা বাসের পেছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে মাঠ দিয়ে দৌড়ে টিম হোটেলে পৌঁছে যায়। মাসুদ এটাও নিশ্চিত করেছেন যে, দলের সবাই সুস্থ আছে এবং ঘরে ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদসহ কয়েকটি স্থানে অন্তত দুই সন্ত্রাসীর বর্বরোচিত হামলায় অন্তত ৪৯ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুই বাংলাদেশিও রয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৪৯ জন। এদের মধ্যেও একাধিক বাংলাদেশি রয়েছেন বলে খবর মিলেছে।

হ্যাগলি ওভাল মাঠে শনিবার (১৬ মার্চ ) বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় টেস্ট শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে হামলার কারণে সে ম্যাচ বাতিল করা হয়েছে।

হামলার পর টুইটার বার্তায় নিজেদের নিরাপদ থাকার ব্যাপারটি নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫১ ঘণ্টা, মার্চ ১৫, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14