ঢাকা, শনিবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ সফর ১৪৪২

ক্রিকেট

আবাহনীর বিশাল জয়ে ব্যাটে-বলে অনবদ্য সাব্বির

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৩ ঘণ্টা, মার্চ ১১, ২০১৯
আবাহনীর বিশাল জয়ে ব্যাটে-বলে অনবদ্য সাব্বির সাব্বির রহমান- ছবি: শোয়েব মিথুন

নাজমুল হোসেন শান্ত, মোসাদ্দেক হোসেন ও সাব্বির রহমানের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে ৬ উইকেটে ২৮৫ রানের সংগ্রহ পেয়েছিল আবাহনী লিমিটেড। জবাবে মাত্র ৯৬ রানেই গুটিয়ে গেছে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব। ফলে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ১৮৯ রানের বিশাল জয় তুলে নিয়েছে আবাহনী। ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন ব্যাট হাতে অসাধারণ ফিফটির পর বল হাতে ২ উইকেট তুলে নেওয়া সাব্বির রহমান।

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ৭ম ম্যাচে সোমবার (১১ মার্চ) ফলুল্লায় আবাহনীর ছুড়ে দেওয়া ২৮৬ রানের জবাবে শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকে উত্তরা। ২৯ রানেই ৪ উইকেট হারানো দলটি ম্যাচে ফিরতেই পারেনি।

একের পর এক উইকেট পতনের মিছিলে সর্বোচ্চ ২৪ রানের ইনিংস আসে শাখির হোসেনের ব্যাট থেকে। বাকিদের আর কেউই ২০ রানের কোটা ছাড়াতে পারেননি। ফলে ৩৩ ওভারে মাত্র ৯৬ রানেই গুটিয়ে যায় উত্তরার ইনিংস।

বল হাতে এদিন আবাহনীর সব বোলারই অসাধারণ বোলিং করেছেন। বিশেষ করে রুবেল হোসেন। উত্তরার ২ ওপেনারকেই নিজের শিকার বানানো এই ডানহাতি পেসার শেষ পর্যন্ত নিজের উইকেটের ভাণ্ডারে যোগ করেছেন আরও এক উইকেট। সবমিলিয়ে ৫ ওভার বল করে মাত্র ১৬ রান খরচে ৩ উইকেট নিয়েছেন তিনি।  

সাব্বির রহমান- ছবি: শোয়েব মিথুনবল হাতে জাদু দেখিয়েছেন সাব্বির রহমানও। মাত্র ২ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৪ রান খরচ করে ২ উইকেট তুলে নিয়েছেন এই পার্ট-টাইম বোলার। ৫ ওভারে ১৪ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন আরিফুল হক। ১টি করে উইকেট ঝুলিতে পুরেছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাজমুল ইসলাম ও সানজামুল ইসলাম। প্রত্যেকেই ওভার পিছু ৪-এর চেয়ে কম রান খরচ করেছেন।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ২২ রানেই ওপেনার কৌশল সিলভার উইকেট হারায় আবাহনী। তবে এরপর ৮৯ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের পথে নিয়ে যান ওপেনার জহুরুল ইসলাম ও নাজমুল হোসেন শান্ত। জহুরুল ৪৫ রান করে আউট হলেও শান্ত দলকে ২০০ পার করে বিদায় নেন। আউট হওয়ার আগে ম্যাচের সর্বোচ্চ ৮৩ রান আসে তার ব্যাট থেকে। ৮৪ বলের ইনিংসটি ৭টি বাউন্ডারি ও ২টি ছক্কায় সাজানো।  

ছবি: শোয়েব মিথুনআবাহনীর হয়ে ব্যাট হাতে রান পেয়েছেন অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন ও সাব্বির রহমানও। দুজনেই করেছেন ষাটোর্ধ্ব রান। ৬৫ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ৫৪ রান করেছেন মোসাদ্দেক। অন্যদিকে মাত্র ৩৫ বল খেলে অপরাজিত ৬১ রানের বিধ্বংসী এক ইনিংস উপহার দেন সাব্বির। তার এই ইনিংসটি ৪ ছক্কা ও ৪ বাউন্ডারিতে সাজানো।  

বল হাতে উত্তরার নাহিদ হাসান ৩ উইকেট নেন। তবে তার খরুচে বোলিং উইকেট নেওয়ার কীর্তিকে ম্লান করে দেয়। ১০ ওভারে ৭০ রান খরচ করেন এই পেসার। ১টি করে উইকেট পেয়েছেন আব্দুর রশিদ ও মোহাইমিনুল খান।

সাব্বির রহমান- ছবি: শোয়েব মিথুনএই জয়ে ২ ম্যাচ থেকে পুরো ৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষস্থান আরও সংহত হলো আবাহনীর।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৩ ঘণ্টা, মার্চ ১১, ২০১৯
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa