ঢাকা, মঙ্গলবার, ৪ আষাঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯
bangla news

দাপুটে বোলিংয়ে লঙ্কানদের উড়িয়ে দিল দ. আফ্রিকা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-০৭ ১:১০:৫৮ এএম
লঙ্কান উইকেট শিকারের পর প্রোটিয়াদের উল্লাস

লঙ্কান উইকেট শিকারের পর প্রোটিয়াদের উল্লাস

শুরুতে ব্যাটিং করে ২৫১ রানের মাঝারি সংগ্রহ পেয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু এই রানই যেন পর্বতসম বোঝা হয়ে দাঁড়ায় লঙ্কান ব্যাটসম্যানদের সামনে। মূল কাজটা অবশ্য করেন প্রোটিয়া বোলাররা। বল হাতে লঙ্কান ব্যাটিং লাইনআপকে একদম বিধ্বস্ত করে ছাড়েন কাগিসো রাবাদা, ইমরান তাহিররা। তাদের দাপুটে বোলিংয়েই সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে লঙ্কানদের ১১৩ রানের বিশাল হারের লজ্জায় ডুবিয়ে চলতি পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা।

বুধবার (০৬ মার্চ) সেঞ্চুরিয়নে দিবা-রাত্রির ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার ছুড়ে দেওয়া ২৫২ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৫২ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে শ্রীলঙ্কা। সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানো দূরে থাক, ক্রিজে থিতুই হতে পারেননি কোনো সফরকারী ব্যাটসম্যান। ৫ ব্যাটসম্যান দুই অংক ছুঁতে সক্ষম হলেও বিশোর্ধ্ব রান এসেছে তিনজনের ব্যাট থেকে। সর্বোচ্চ ৩১ রান করেছেন এই সফরেই অভিষিক্ত ওশাদা ফার্নান্দো। বাকিদের ব্যর্থতা মিলিয়ে ১৩৮ রান তুলতেই অলআউট শ্রীলঙ্কা। তাদের ইনিংসের স্থায়িত্ব মাত্র ৩২.২ ওভার।

বল হাতে এদিন লঙ্কান ব্যাটিং লাইনআপকে দাঁড়াতেই দেননি ফাস্ট বোলার কাগিসো রাবাদা-এনগিডিরা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট তুলে নিতে রাবাদা ৯ ওভারে খরচ করছেন মাত্র ৪৩। আরেক ডানহাতি ফাস্ট বোলার লুঙ্গি ইনগিডি তো আরও কৃপণ। ৫.২ ওভার বল করে ২ উইকেট তুলে নিতে খরচ করেছেন মাত্র ১৪ রান। ২ উইকেট করে ঝুলিতে পুরেছেন স্পিনার ইমরান তাহির ও এনরিচ নোর্তজে।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিং করতে নেমে ওপেনার কুইন্টন ডি ককের অনবদ্য ৯৪ আর অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসের ফিফটির ইনিংসের ভর করে সব উইকেট হারিয়ে ২৫১ রান সংগ্রহ করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

ওপেনিং জুটিতেই ৯১ রান তুলে ফেলেছিলেন ডি কক ও রিজা হেনড্রিকস। ২৯ রান করে হেনড্রিকস লঙ্কান ফাস্ট বোলার মালিঙ্গার বলে আউট হয়ে ফিরলেও রানের চাকা সচল রাখেন ডি কক ও ডু প্লেসিস। ঝড়ের গতিতে ব্যাট চালিয়ে ফিফটি তুলে নিয়ে সেঞ্চুরির দিকেও এগোচ্ছিলেন ডি কক। কিন্তু সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৬ রান দূরত্বে থাকতে থিসারা পেরেরার বলে উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকভেলার হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন এই বাঁহাতি ওপেনার। ৭০ বলের এই ইনিংসটি ১৭টি বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় সাজানো।

সঙ্গী হারানো ডু প্লেসিস ক্রমেই আগ্রাসী ব্যাটিং শুরু করেন। তিনিও ফিফটি তুলে নেন। কিন্তু এর মাঝে অপরপ্রান্তে হারান আরও ৩ সঙ্গী। ৬৬ বলে তার ৫৭ রানের ইনিংসটি ছাড়া আর বলার মতো রান আসে শুধু ডেভিড মিলারের (২৫) ব্যাট থেকে। দলকে ২২০ রানে রেখে অধিনায়ক বিদায় নিলে হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ে প্রোটিয়া ইনিংস। ২৫২ রানের লক্ষ্য দাঁড়ায় লঙ্কানদের সামনে।

বল হাতে ৭ ওভারে ২৬ রান খরচে ৩ উইকেট নেন লঙ্কান পেস-অলরাউন্ডার পেরেরা। ২টি করে উইকেট ঝুলিতে পুরেন মালিঙ্গা ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা।

দুর্দান্ত ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন কুইন্টন ডি কক।

বাংলাদেশ সময়: ০১১০ ঘণ্টা, মার্চ ০৭, ২০১৯
এমএইচএম/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-07 01:10:58