ঢাকা, মঙ্গলবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
bangla news

কঠিন একটা দিন গেল: মাশরাফি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-১৬ ১২:২৯:৩১ পিএম
সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলছেন মাশরাফি/ফাইল ছবি

সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলছেন মাশরাফি/ফাইল ছবি

আবারও মামুলি সংগ্রহ (২২৬), আবারও ৮ উইকেটের বড় পরাজয়। এবারের পরাজয়ে তো সিরিজই খুইয়ে বসেছে টাইগাররা। এমন বাজে হারের কারণ হিসেবে ব্যাটিং ব্যর্থতাকেই দুষলেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। তার মতে, টপ অর্ডারের রান না পাওয়া আর জুটি না গড়তে পারাই হারের কারণ। সবমিলিয়ে কঠিন একটা দিন পার করলেন বলে জানালেন হতাশ মাশরাফি।

শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায় মাঠে গড়ানো ম্যাচে আগের ম্যাচের মতোই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। দুই ওপেনার তামিম ইকবাল আর লিটন দাসের ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে ৫ ও ১ রান। টপ অর্ডারের বাকি দুই ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিমের ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে ২২ ও ২৪ রান।

ম্যাচ শেষে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় হতাশা ঝরে পড়লো মাশরাফির কণ্ঠে, 'আমরা শুরুতেই উইকেট হারিয়েছি। আমাদের গড় জুটি হয়েছে ৩০ রানের, যেখানে ৬০ হতে পারতো আর তাহলে ম্যাচের ফলাফলও ভিন্ন হতে পারতো। আমাদের টপ অর্ডারকে আরও এগিয়ে আসতে হবে।'

টপ অর্ডার ব্যর্থ হলেও ফের একবার ব্যাট হাতে দাঁড়িয়ে যান মোহাম্মদ মিঠুন। আগের ম্যাচেও তার ব্যাট থেকে ৬২ রানের ইনিংস এসেছিল। এই ম্যাচেও তার ব্যাট থেকেই দলীয় সর্বোচ্চ (৫৭) রান এসেছে। এই ইনিংসটি চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে ক্রাইস্টচার্চের পিচ স্পোর্টিং ছিল। শুধু প্রয়োজন ছিল মনোযোগের। দলপতি মাশরাফিও মিঠুনের প্রশংসা করলেন।

আগের ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও নির্বিষ বোলিং করেছেন মাশরাফিরা। সেঞ্চুরিয়ান মার্টিন গাপটিলের কাছে পাত্তাই পাননি কোনো টাইগার বোলার। প্রথম ম্যাচের চেয়েই সহজ ভঙ্গিমায় তাদের সামলেছেন কিউই ব্যাটসম্যানরা। বিশেষ করে গাপটিল। তার ব্যাট থেকে এসেছে ৮৮ বলে ১১৮ রানের ঝড়ো ইনিংস। বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন ১৪টি আর ছক্কা ৪টি। কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও বেশ সাবলীল ব্যাটিং করে ৬৫ রান নিয়ে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন। ওভার পিছু ৬-এর আশেপাশে রান বিলিয়েছেন বাংলাদেশের প্রায় সব বোলারই।

এমন বাজে বোলিং প্রদর্শনীর ম্যাচেও বল হাতে উজ্জ্বল ছিলেন টাইগার পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। দলের একমাত্র উইকেট শিকারি এই বোলার ৯ ওভার বল করে ৪২ রান খরচে ২ উইকেট তুলে নিয়েছেন। ম্যাচ শেষে মোস্তাফিজের বোলিংয়ের প্রশংসা করেছেন মাশরাফিও।

তবে সবমিলিয়ে দুই ম্যাচ থেকে খুব একটা ইতিবাচক দিক খুঁজে পাচ্ছেন না মাশরাফি, 'এই ম্যাচগুলো থেকে খুব বেশি ইতিবাচক কিছু পাইনি। আমাদের একটা গ্রুপ হয়ে খেলতে হবে। আমরা ২২০-২৩০ রান করেছি, কিন্তু আমাদের ২৭০-২৮০ রান করা উচিত ছিল। তাহলে আমরা লড়াইটা করতে পারতাম।'

সবমিলিয়ে দলের পারফরম্যান্স নিয়ে হতাশ মাশরাফি বললেন, 'বাজে একটা দিন গেল।'

বাংলাদেশ সময়: ১২২৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-02-16 12:29:31