[x]
[x]
ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
bangla news

আবাহনীকে উড়িয়ে দিল বসুন্ধরা কিংস

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-২৩ ৭:৫২:১১ পিএম
নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মুখোমুখি হয় বসুন্ধরা কিংস-আবাহনী লিমিটেড-ছবি: বাংলানিউজ

নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে মুখোমুখি হয় বসুন্ধরা কিংস-আবাহনী লিমিটেড-ছবি: বাংলানিউজ

নীলফামারী: নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ঢাকা আবাহনী লিমিটেডকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে বসুন্ধরা কিংস।

বুধবার (২৩ জানুয়ারি) বিকেল ৩টায় শেখ কামাল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয় বসুন্ধরা কিংস ও ঢাকা আবাহনী লিমিটেড।

নিজেদের হোম ভেন্যুতে দ্বিতীয়বারের মতো খেলতে নেমে প্রায় ২০ হাজার দর্শকদের হতাশ করেননি কিংস কোচ অস্কার ব্রুজোনের শিষ্যরা। ম্যাচের প্রথম থেকেই নিজেদের নিয়ন্ত্রণে বল রেখে নান্দনিক ফুটবল উপহার দেয় বসুন্ধরা কিংস। 

ম্যাচের ২১তম মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় বসুন্ধরা কিংস। কিন্তু মার্কোস দে সিলভার সেই প্রচেষ্টা রুখে দেন আবাহনী গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেল। ৪২ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় আবাহনীও। কিন্তু পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন আবাহনীর সানডে চিজোবা।

প্রথমার্ধের ৪৬ মিনিটে দারুণ এক গোল করে দলকে এগিয়ে দেন নাসিরউদ্দিন চৌধুরী। গোল খেয়ে শোধ করতে মরিয়া হয়ে উঠে আবাহনী। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মো. শহিদুল আলমের প্রচেষ্টা বসুন্ধরার ডিফেন্সে প্রতিহত হলে গোলবঞ্চিত হয় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

দ্বিতীয়ার্ধে ৫৯ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান মার্কোস দি সিলভার বাড়ানো বল পায়ে জড়িয়ে নিখুঁত শটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মতিন মিয়া।

দ্বিতীয় গোলের মিনিট দশেক পরেই বখতিয়ার দুইশবেকভের পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে স্কোরলাইন ৩-০ করেন কোস্টারিকান ফরোয়ার্ড দেনিয়েল কলিনদ্রেস সোলেরা।

নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে প্রায় ২০ হাজার দর্শক উপস্থিত হয়েছিল এই ম্যাচ উপভোগ করতে। জেলা শহরের নিউ বাবুপাড়ার দর্শক হায়দার আলী বলেন, গত ২৯ আগষ্ট শেখ কামাল স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার কাছে বাংলাদে জাতীয় দলের হেরে যাওয়ার বিষয়টি নীলফামারীর মানুষ মেনে নিতে পারেনি। তবে এবারে বসুন্ধরা কিংস সেই ক্ষত অনেকটা পুষিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০১৯
এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বসুন্ধরা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache