ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪২৬, ২১ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

স্থানীয় ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্স নিয়ে চিন্তিত পাপন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১৮ ৮:৪১:১০ পিএম
সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলছেন বিসিবি সভাপতি-ছবি: বাংলানিউজ

সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলছেন বিসিবি সভাপতি-ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: বিশ্বকাপকে সামনে রেখে স্থানীয় ব্যাটসম্যানদের নিয়ে চিন্তিত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বলেন, খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স নিয়ে আমরা ভীষণ চিন্তিত। যাদের বিশ্বকাপে ভাবা হচ্ছে, ওরা কেউ কিন্তু পারফর্ম করতে পারছে না। তবে তার দৃঢ় বিশ্বাস, এখনো বিপিএল শেষ হয়নি, খেলোয়াড়দের কাছ থেকে ভালো কিছুই পাবেন।

শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সিলেট সিক্সার্স ও ঢাকা ডায়নামাইটসের মধ্যকার ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

নাজমুল হাসান পাপন বলেন, 'সকালে যখন সাকিব আল হাসানের সঙ্গে আলাপ হয়, তখন ও বলেছিল দু’জন বিদেশী খেলোয়াড় পরিবর্তন আছে। তাকে বলেছিলাম, অন্যের খেলা দেখতে আসছি না, আমি তোমার খেলা দেখতে আসছি। সো ওরা (বিদেশী খেলোয়াড়) কে-কি করলো আমার দেখার আগ্রহ নেই।'

তিনি বলেন, সাকিব আল হাসানের খেলা দেখে ভালো লাগছে। সাকিব ‘হেজ প্লেইড ব্রিলিয়ান্ট ইনিংস’। ও অসাধারণ খেলেছে।  আজ সাকিবের ব্রিলিয়ান্ট ইনিংস ছিল। একই কথা তামিমকেও বলেছি। তামিম অবশ্য ওর ক্যালিভার অনুযায়ী খেলতে পারেনি।'

পাপন আরও বলেন, আমার কাছে আগ্রহের বিষয় হলো- লোকাল খেলোয়াড়দের খেলা। আনফরচুনেটলি ওই রকম ভালো কেউ খেলছিল না। রিয়াদ.. একদমই অফ। ওকে আমাদের দরকার, সামনে বিশ্বকাপ। মুশফিক ঠিক আছে। লিটন কিছুটা খেলেছে। উদ্বোধনীতে থাকা ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার-যাদের বিশ্বকাপে ভাবা হচ্ছে, ওরা কেউ কিন্তু পারফর্ম করতে পারছে না। যে কারণে বিষয়টি নিয়ে আমি চিন্তিত।' 

'আমার দৃঢ় বিশ্বাস, এখনো বিপিএল শেষ হয়নি, আমরা আশাবাদি খেলোয়াড়দের কাছ থেকে ভালো কিছু পাব।'

বিপিএলের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে স্থানীয় প্লেয়ারদের দিয়ে 'রোল প্লে' না করানোর বিষয়ে তিনি বলেন, 'এটা ফ্রাঞ্চাইজি লীগ। এখানে বিসিবি হস্তক্ষেপ করলে ফাঞ্চাইজি লিগ থাকে না, এটা কোথাও নিয়ম নেই। অবশ্য খেলোয়াড়দের খেলার মাধ্যমে প্রমাণ করতে হবে-আমরা যে কোনো পরিস্থিতিতে খেলতে পারি। সেটা হোক সুপার ওভার। এটাই আমাদের করা উচিত এবং প্লেয়ারদের জোর করে নয়, বরং স্বাভাবিকভাবে তাদের উঠে আসতে দেওয়া উচিত।'

ঘরোয়া ক্রিকেটে বিপিএল-এর বাইরে তেমন জাঁকজমকপূর্ণ কোনো আয়োজন নেই। এদিকে নজর আছে কিনা এমন প্রশ্নে বিসিবি সভাপতি বলেন, 'বিপিএলে ন্যাশনাল টিমের বাইরে কোনো প্লেয়ার খেললে ওটার কোনো মজাই থাকে না। অথচ জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা এত ব্যস্ত, যে তাদের ব্রেক দিতে পারছি না।  ফলে আমরা কোনো নতুন আয়োজনের দিকে যেতে পারছি না। তাদের উপর প্রচণ্ড চাপ। বিপিএল শেষ হতে না হতেই তাদের চলে যেতে হবে নিউজিল্যাল্ডে। তারপর আয়ারল্যান্ড, এরপর বিশ্বকাপ শুরু হয়ে যাবে।'  

'যে জিনিসটা ঠিক করেছি, একটা মাঝামাঝি জায়গায় আসতে পেরেছি। আমাদের প্রিমিয়ার ডিভিশনে যেটা হয়, আমরা ওডিআই খেলেছি, এর সাথে টি-টোয়েন্টি যোগ করবো। এটা এক সময় ছিল। এটা হলে কিছু খেলোয়াড় বের করে অতিরিক্ত রাখতে পারবো। তবে সেটা এই মৌসুমে হবে না। অবশ্য মাথায় যখন এসেছে, তখন সেটা করবো।'

'বি' দল ছাড়া বাকি যারা পাইপ লাইনে আছে, তারা থাকলে মানসিক সাপোর্ট হয়। ফলে শুধু উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান না, আমি লোকাল সব ব্যাটসম্যানদের নিয়েই চিন্তিত।'

বাংলাদেশ সময়: ২০৪০ ঘন্টা, জানুয়ারি ১৮, ২০১৯
এনইউ/এমএইচএম

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রিকেট বিপিএল
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14