ঢাকা, বুধবার, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৮ রবিউস সানি ১৪৪২

ক্রিকেট

কোহলির রেকর্ড আর পূজারার সেঞ্চুরিতে রানপাহাড়ে ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮
কোহলির রেকর্ড আর পূজারার সেঞ্চুরিতে রানপাহাড়ে ভারত বিরাট কোহলি ও চেতেশ্বর পূজারা-ছবি: সংগৃহীত

ম্যাচে এখন পর্যন্ত ভারতের সেরা পারফর্মার চেতেশ্বর পূজারা। সিরিজে নিজের দ্বিতীয় সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। কিন্তু রেকর্ড গড়ে আলো কেড়ে নিলেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তার এবং রোহিত শর্মার ফিফটি আর পূজারার সেঞ্চুরি মিলিয়ে মেলবোর্ন টেস্টে ৭ উইকেট হারিয়ে ৪৪৩ রানের পাহাড় গড়ে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে ভারত।

বৃহস্পতিবার (২৭ ডিসেম্বর) দিনের শেষ ভাগে অজিদের ব্যাটিংয়ে নামানোর জন্য ৭ ওভার বাকি থাকতেই ইনিংস ঘোষণা করেন কোহলি। হয়তো দিনের শেষের চাপ কাজে লাগিয়ে উইকেট ফেলার আশা করেছিল ভারত, কিন্তু এই সাত ওভারে ৮ রান তুলে মাঠ ছাড়েন দুই অজি ওপেনার মার্কাস হ্যারিস ও অ্যারন ফিঞ্চ।

২ উইকেটে ২১৫ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো ব্যাটিংয়ে নেমে বেশ সাবলীল ব্যাটিং উপহার দেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। আগেরদিনের ৬৮ রান নিয়ে অপরাজিত পূজারা এদিন ব্যাট হাতে ছিলেন দুর্দান্ত। আর ফিফটি ছুঁইছুঁই অবস্থা নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে যোগ্য সঙ্গ দিয়ে যান কোহলি। অজি পেসার প্যাট কামিন্সের বলে ডিপ মিড উইকেটে ফ্লিক করে ফিফটির দেখাও পেয়ে যান ভারতীয় অধিনায়ক।

এই ফিফটিতে একটা রেকর্ডও গড়ে ফেলেছেন কোহলি। সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়কে পেছনে ফেলে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এক বছরে বিদেশের মাটিতে সর্বোচ্চ রান করার রেকর্ড এখন কোহলির দখলে।

এর আগে বিদেশের  মাটিতে ২০০২ সালে ১১ ম্যাচ খেলে ১১৩৭ রান করেন দ্রাবিড়। এই সময়ে ১৮ ইনিংসে ব্যাটিং করে ৬৬.৮৮ গড়ে ৪টি সেঞ্চুরি ও ৪টি ফিফটি হাঁকিয়েছিলেন ‘মিস্টার ডিপেন্ডেবল’। কোহলিও এবছর বিদেশের মাটিতে ৪টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। তবে দ্রাবিড়ের চেয়ে তার ফিফটি একটি বেশি। গড়ের দিক থেকে অবশ্য পিছিয়ে কোহলি। এবছর বিদেশের মাটিতে ৫৪.১৯ গড়ে ১১৩৮ রান করেছেন কোহলি।  

বিদেশের মাটিতে এক বছরে সবচেয়ে বেশি রানের মালিক দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক অধিনায়ক গ্রায়েম স্মিথ। ২০০৮ সালে ১১ ম্যাচ খেলে ১২১২ রান সংগ্রহ করেন সাবেক বাঁহাতি প্রোটিয়া ওপেনার। ৭ টেস্টে ১১৫৪ রান নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন ক্যারিবীয় গ্রেট ভিভ রিচার্ডস। তৃতীয় স্থানে থাকা কোহলির সামনে এই দুই সাবেক তারকাকে পেছনে ফেলার সুযোগ অপেক্ষা করছে। চলতি টেস্টেই হয়তো আরও এক ইনিংসে ব্যাট করবেন তিনি। সেদিক থেকে রানের সংগ্রহ আরও বাড়বে সন্দেহ নেই।

দুর্দান্ত ব্যাটিং করে করে ক্রিজে অটল থাকেন পূজারা। নাথান লায়নের বলে ডাউন দ্য ট্র্যাকে এগিয়ে এসে দুর্দান্ত এক ড্রাইভ খেলে নিজের সেঞ্চুরি তুলে নেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। দুজনে দিনের প্রথম সেশনটা কাটিয়ে দেন নির্বিঘ্নে। কিন্তু দ্বিতীয় সেশনেই পরিস্থিতি পাল্টে যায়। লোয়ার ব্যাকে ব্যথা অনুভব করেন কোহলি, ফলে তার ব্যাট থেকে অস্বাভাবিক কিছু শট বের হয়। মিচেল স্টার্কের বলে আপার কাট খেলতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দিয়ে ব্যক্তিগত ৮২ রানে বিদায় নেন তিনি।

কোহলির বিদায়ের কিছুক্ষণ পর কামিন্সের নিচু হয়ে আসা বল নাড়িয়ে দেয় পূজারার স্ট্যাম্প। কিন্তু ৬২ রানের জুটি গড়ে ধাক্কা সামাল দেন আজিঙ্কা রাহানে ও রোহিত শর্মা। ব্যক্তিগত ৩৪ রানে লায়নের শিকার হন রাহানে। এরপর ঋষভ পান্ত ও রোহিত ৭৬ রানের জুটি গড়ে অজি বোলারদের কষ্ট বাড়িয়ে দেন। দলের রান ৪০০ পার হতেই আগ্রাসী ব্যাটিং শুরু করেন এই দুই ব্যাটসম্যান।

পান্তকে (৩৯) বাউন্সারে পরাস্ত করে বিদায় করেন স্টার্ক। বাউন্ডারি হাঁকিয়ে পরের বলেই হ্যাজেলউডের বলে উইকেটরক্ষকের হাতে ক্যাচ তুলে দেন রবীন্দ্র জাদেজা। এরপরই ইনিংস ঘোষণা করে দেন কোহলি।

দিনের শেষ ৭ ওভারে অজি ব্যাটসম্যানদের বাউন্স আর সুইংয়ে বেশ ভুগিয়েছেন ভারতীয় পেসার ইশান্ত শর্মা ও জাসপ্রিত বুমরাহ। কিন্তু সতর্ক ব্যাটিংয়ে উইকেট পড়তে দেননি দুই অজি ওপেনার। একটা ওভার করেছেন স্পিনার জাদেজাও। ওভারটা খুব সাবধানে পাড়ি দিয়েছেন ফিঞ্চ। তৃতীয় দিন বেশ বড় পরীক্ষাই দিতে হবে স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa