bangla news

ম্যানসিটির পা হড়কানোর রাতে ৬ পয়েন্ট এগিয়ে গেল লিভারপুল

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১২-২৭ ২:২১:৫৬ এএম
পায়ে বল নিয়ে যাচ্ছেন মোহামেদ সালাহ। ছবি: সংগৃহীত

পায়ে বল নিয়ে যাচ্ছেন মোহামেদ সালাহ। ছবি: সংগৃহীত

বড়দিন পার হয়েছে। কিন্তু তার রেশ থামেনি। এদিকে শেষের পথে ‘বক্সিং ডে’ ও। সবে ইংলিশদের আড়মোড়া ভাব কাটতে শুরু করেছে।

এদিকে লিভারপুল শহরের উৎসব তখন বেড়ে দিগুণ হয়েছে। ঘরের মাঠ ‘অ্যানফিল্ডে’ নিউক্যাসলকে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করে তখন বুনো উল্লাসে মেতেছে পুরো লিভারপুল। অন্যদিকে একই রাতে বিষাদে ছেয়ে গেছে ম্যানচেস্টারের এক অংশ। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটি যে লেস্টার সিটির কাছে ২-১ গোলে হেরে গেছে। অবশ্য শহরের আরেক পাশে তথা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তখন টানা দ্বিতীয় জয়ের আনন্দে ভাসছে। আনন্দে ভেসেছে টটেনহামও।

এমনিতেই বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) ছিল ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ‘বক্সিং ডে’। এই বিশেষ দিনে আগেরদিনের উৎসবের আমেজ ধরা রাখা সহজ কথা নয়। সেই কঠিন কাজটিই সহজ করে জয়ের স্বাদ পেয়েছেন সালাহরা। ম্যাচে একক আধিপত্য যাকে বলে লিভারপুলের জয়টি আসলে তাই। ডেজান লভরেন, মোহামেদ সালাহ, জারদান শাকিরি ও ফ্যাবিনহো প্রত্যেকেই করেছেন ১টি করে গোল।

ম্যাচের মাত্র ১১ মিনিটেই লিভারপুলের গোলের খাতা খোলেন লভরেন। ডি-বক্সের ভেতর থেকে তার অসাধারণ হাফ-ভলি ঠেকানোর সাদ্য ছিল না নিউক্যাসল গোলরক্ষকের। এই ব্যবধান নিয়েই বিরতিতে যায় ‘অলরেড’রা। বিরতির পর গোলের দেখা পান সালাহ। তাকে নিজেদের ডি-বক্সে ফাউল করে বসেন নিউক্যাসলের পাউল ডামেট। জোরদার পেনাল্টি কিকে ব্যবধান দিগুণ করেন এই ‘ইজিপশিয়ান কিং’। ম্যাচের শেষদিকে বাকি দুই গোল করে অ্যানফিল্ডকে উৎসবের মঞ্চ বানিয়ে দেন শাকিরি ও ফ্যাবিনহো। এই জয়ে দ্বিতীয় স্থানে থাকা টটেনহামের চেয়ে ৫ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে শীর্ষ স্থান মজবুত করেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা।ছবি: সংগৃহীত
এদিকে ম্যানচেস্টার সিটি টানা দ্বিতীয় হারের যন্ত্রণা ভোগ করছে। ঘরে মাঠে বড়দিনের আগে ক্রিস্টাল প্যালেসের কাছে হারের পর এবার লেস্টার সিটির কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয়েছে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। বার্নান্দো সিলভা যদিও শুরুতে গোল করে সিটিকে এগিয়ে দিয়েছিলেন, কিন্তু লেস্টার তারকা মার্ক আলব্রাইটন সমতায় ফেরানোর পর শেষ বাঁশি বাজার ৯ মিনিট আগে ম্যানসিটির কফিনে শেষ পেরেক ঠুকে দেন রিকার্দো।
 
ম্যানসিটিকে অবশ্য শেষদিকে ফ্যাবিয়ান লাল কার্ড দেখায় ১০ জনের দল নিয়ে খেলতে হয়েছে। কিন্তু ম্যানসিটির এই হারে বড় উপকার হয়েছে টটেনহামের। বোর্নমাউথকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন হ্যারি কেইনরা। জোড়া গোল করেছেন সন হিউং-মিন।
 
টটেনহামের গোল উৎসবের সূচনা করেন ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন। এরপর বাকি সময়ে প্রতিপক্ষকে হতাশায় ডুবিয়ে সনের জোড়া গোলের মাঝে গোল করেন লুকাস মউরা এবং হ্যারি কেন। এই জয়ে সিটির চেয়ে এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে দুইয়ে চলে এসেছে টটেনহাম।
 
সিটির দুর্দিনে অবশ্য হাসি ফুটেছে ইউনাইটেডের। কারণ এদিন ভারপ্রাপ্ত কোচ ওলে গানার সোলশারের অধীনে টানা দ্বিতীয় জয়ের দেখা পেয়েছেন পল পগবারা। হোসে মরিনহোর বিদায়ে পর অনেকটাই উজ্জীবিত দলটি। উজ্জীবিত মনে হয়েছে পগবাকেও। এই ফরাসি তারকার জোড়া গোলেই জয়ের আনন্দে মেতেছে ‘রেড ডেভিল’রা।
 
পয়েন্ট টেবিলে শেষের দিকের দল হাডার্সফিল্ডের বিপক্ষে ম্যানইউয়ের জয়টি ৩-১ গোলের। প্রথম গোলটি আসে নেমানিয়া মাতিচের পা থেকে। এরপর ২ গোল করেন পগবা। তার দ্বিতীয় গোলটি সত্যি দেখার মতো। অনেকটা দূর থেকে তার নেওয়া শটটি অনায়াসে ফাঁকি দেয় প্রতিপক্ষ গোলরক্ষককে। এই জয়ে চেলসি আর আর্সেনালের চেয়ে ব্যবধান ৬ ও ৫ পয়েন্টে নামিয়ে আনলো ম্যানইউ।
 
বাংলাদেশ সময়: ০২২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৮
এমএইচএম

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-12-27 02:21:56